Category: কবিতা

শুভনববর্ষ। নববর্ষের শুভেচ্ছা।

গাজী বুরহান ১৪ এপ্রিল ২০১৭, শুক্রবার, ১২:৩৪:১৯পূর্বাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য
চুনাওঠা পাঁচিলের কলঙ্ক লোপ হোক। গত হওয়া শালিকেরা ফের প্রাণ ফিরে পাক। অশ্বত্থের নিচে হোক না একটু ঝঁঝাটপূর্ণ ঘুঘু কিবা শাঁখচুন্নি ডাইনীদের আমন্ত্রণে। লক্ষ্মীপেঁচা এবং আমি না হয় থাকিব ঘুমে। মঙ্গলকাব্যের মঙ্গলকথন শুনেছি ওই ছেঁড়া পাতায়। সেদিন তো আর নেই, মানুষ এখন পশুদের মত। হোক না একটু পশুর মস্তক নিয়ে মঙ্গলের টানাটানি। হয়ত কাটা দিয়ে [ বিস্তারিত ]

স্বৈরাচারী

বায়রনিক শুভ্র ১৩ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ১০:৫৭:৫৪পূর্বাহ্ন কবিতা ৪ মন্তব্য
আমার ঠোঁটে চুমু খাও অন্যথায়   ভূমীকম্প হবে,ধ্বংস হবে লাস্যময়ী নগরী রাস্তায় রাস্তায় নিয়ন আলোর বদলে উড়ে বেড়াবে অসংখ্য পোকা কবির বদলে বিকলাঙ্গ মন নিয়ে জন্ম নেবে অশ্লীল কায়কাউসের বাচ্চা ধার্মিকে ভরে উঠবে বিশ্ব লাইব্রেরী গুলো ভেঙে পড়বে টুপির আধিক্যে পথ হারাবে বিজ্ঞান   এক বেকার প্রেমিকের অভিশাপে শ্মশানে পরিণত হবে পৃথিবী তোমার সম্পূর্ণ লাবণ্য [ বিস্তারিত ]

দৃশ্যকল্প – মায়াবী আলোর ভোরে

আগুন রঙের শিমুল ১২ এপ্রিল ২০১৭, বুধবার, ০৫:৩১:৩৭অপরাহ্ন কবিতা ১০ মন্তব্য
ঠিক মাঝখানের বোতামটাই নেই – সেইখানে খানিকটা অন্ধ শুন্যতা লেগে আছে, তুমি সেই শুন্যতায় হাত বুলায়ে দিলে যেই অমনি আমার ইচ্ছে হলো, একটা চোখ ওখানটাতে বসিয়ে দিই ; শুন্যতা ঢেউয়ের মতো পিছলে যাক, আলো আসুক আলো। এবং কাধেঁর কাছে কুঁচকে থাকা আঁচলের নীচ থেকে – উকি দিয়ে যাওয়া গোপণ রঙ, দেবদারু বনের হাওয়ার মতোন ফুরফুরে [ বিস্তারিত ]
ফড়িঙের মতো একটা জীবন যদি পাওয়া যেতো, অনুভূমিক পাখায় ভর দিয়ে এদিক থেকে ওদিক ইচ্ছেমতো ঘুরে বেড়াতাম। “যে জীবন ফড়িঙের,দোয়েলের-মানুষের সাথে তার হয়নাকো দেখা” সত্যি কি তাই! কেন আমি তবে মানুষ হোলাম? বেনোজলে খড়কুটো হয়ে ভেসে গেলে একদিন হয়তো ঠিক সমুদ্রে মিশে যাওয়া যেতো। যদিও সমুদ্র ভালো লাগেনা আমার। তবুও কোথাও তো যাওয়া হতো! কতোদিন [ বিস্তারিত ]

বেল কাঠ

বায়রনিক শুভ্র ৯ এপ্রিল ২০১৭, রবিবার, ১২:০৭:৫২পূর্বাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য
দক্ষ রাধুনির মত বলেছিলে “ছুয়ে দেখো,কিচ্ছুটি হবেনা- কুসুম গরমে তুমি উষ্ণ হবে” “লাল নীল প্রজাপতির মত তুমিও রঙ্গিন হবে,উড়তে শিখবে” ক্ষত ভুলে উপশমের আশায় আমি ছুয়ে দেখেছিলাম তোমায় সেই থেকেই আমি জ্বলছি পুড়ে সোনা খাটি হয় জানি প্রিয়তমা আমি যে মানুষ বর্ণান্ধ হিন্দুর মত প্লিজ আমাকে ছাই হয়ে উড়তে দিও না ।।

নিশুতি জাগে

ইঞ্জা ৮ এপ্রিল ২০১৭, শনিবার, ১০:১৯:৪৩পূর্বাহ্ন কবিতা ২৩ মন্তব্য
নিশুতি জাগে, জাগে রাত্রি নিশাচর শুনে গাছেদের খশ খশ শব্দ, ফিসফাস দূরে কোথাও কুকুর ডাকে কুঁউউ মরণ শব্দে এই ডাকে নিশ্চয় শবেরাও জেগে উঠে সচরাচর মরণ সুরে জেগে উঠে পাড়ার চৌকিদার হাঁক দিয়ে বলে জাগো, জেগে উঠো রাত্রি চোরেরাও জেগে থাকে সুযোগের অপেক্ষায় আমিও জেগে উঠি ছটফট করে ভাবি তুমিও কি জেগে উঠো এইসময় ভাবো [ বিস্তারিত ]

আমার পৃথিবী

সৈয়দ আলী উল আমিন ৮ এপ্রিল ২০১৭, শনিবার, ০৯:৫৫:৪০পূর্বাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য
  তোমাকে আমার প্রয়োজন কেন সেকথা বলি ! তুমি আমার জন্মস্থান, আমার পৃথিবী- যখন সময় যন্ত্রণা নিয়ে হৃদয়ে নামে তখন তোমার আকাশ একদিকে তপ্ত অন্য দিকে অশান্ত বৃষ্টির ক্রন্দন ক্রমশ । তুমি আমার জন্মস্থান, আমার পৃথিবী ।   তোমাকে আমার প্রয়োজন কেন সেকথা বলি- তোমার বক্ষে আমার শান্তি,জীবনের অর্থনীতি অভাব হতো না কখন কোনও মুহূর্তে [ বিস্তারিত ]

স্পনটেনিয়াস

নীলাঞ্জনা নীলা ৬ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ১০:০৮:০৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ৩৬ মন্তব্য
তুই, যাকে আমি কোনো এককালে ভালোবেসেছিলাম। উদ্দেশ্যহীনভাবে ভালোবেসেই যাচ্ছিলাম। বিষণ্ণ ছায়া ভেবে কখনোবা ক্যামেলিয়া ফুল। কখনো দেখেছিস ক্যামেলিয়া ফুল দেখতে কেমন? প্রেমহীন আলোর ভেতরে আমি খুঁজে যাচ্ছিলাম নীল আগুণ। যেখানে রোজ নিজেকে জ্বালাতে আর পোড়াতে রেখে দিতাম শুকনো কাঠের মতো। জানিস কয়লা যখন আগুণে পোড়ে সে কাঁদে? শুধু তার নাম দিয়েছি স্ফুলিঙ্গ। রোজ কতো কতো [ বিস্তারিত ]

সে এসেছিলো গত রাতে

চাটিগাঁ থেকে বাহার ৬ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার, ০৬:০৭:২৪পূর্বাহ্ন কবিতা, সাহিত্য ১৫ মন্তব্য
সে এসেছিলো গতরাতে যাকে আহবান করে দুইদিন আগেও কবিতা লিখেছিলাম। যার অপেক্ষায় ঘন্টার পর ঘন্টা তৃষ্ণার্থ হৃদয়ে হাহাকার চিত্তে প্রহর গুনেছি। যাকে কামনা করেছি প্রতিটি নি:শ্বাসে প্রশ্বাসে। যার অনুপস্থিতিতে শরীর-মন-দেহে পানিশূন্যতা বিরাজ করার দ্বারপ্রান্তে। সে এসেছিলো গতরাতে, গভীর রাতে যখন আমি অঘুরে ঘুমুচ্ছিলাম। তার নুপুরের রিমঝিম সুরেলা আওয়াজ আমার আধজাগা কানে এসেছিলো। তার আচল দোলানো [ বিস্তারিত ]
কবিতা দ্রোহের স্বর (ম্যাগাজিন) আমি তো ধ্রুপদী আকাশ দেখে গুটিয়ে রাখা পা বাড়ানোর পথে। শামুক শামুক চিৎকার শুনে কচ্ছপ গতির মানবিক আমি বুনে, আবারো গুটিয়ে ফেলেছি। শামুক শামুক! আমি তো হিমেল হাওয়া দেখে পোড়ানো একটুকরো মাংস নিয়ে। ছাই ছাই চিৎকার শুনে আদ্র ন্যাংটো ঝরা-পাতার মত, তলিয়ে গিয়েছি আমি। ছাই ছাই! মোমের আলো জ্বালাতে গিয়ে চৈত্রের [ বিস্তারিত ]

সীমান্তে বৈশাখ (ম্যাগাজিন)

শুন্য শুন্যালয় ৫ এপ্রিল ২০১৭, বুধবার, ০৮:৪৬:০১পূর্বাহ্ন কবিতা ২৩ মন্তব্য
আবারো বয়স বাড়লো তিনশো পঁয়ষট্টি দিন। জন্ম হলো নতুন ভাঁজের, মৃত্যুঞ্জয়, তোমাকে রোওওওজ স্বপ্ন দেখি। একটি শীত কমলো বাঁধা না মেনেই যে চারাগুলো রোপণ করেছিলাম সেখান থেকে একটি আর বেঁচে ওঠেনি, জাতিস্মর, আর কতো অপেক্ষা? যেভাবে বেঁচে থাকি, যেভাবে বেঁচে থাকে সবাই তার ভেতরেই মরে গেলো একটি চৈতী সয়ে যাওয়া মৃত্যুচোখেই ভাবি কবে আসবে তুমি? [ বিস্তারিত ]

এসো হে বৈশাখ

ইঞ্জা ৩ এপ্রিল ২০১৭, সোমবার, ১০:০৩:৫৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ২০ মন্তব্য
অলস দুপুর, সূর্যের প্রকট তাপে ঘেমে নেয়ে একাকার শরীর বাতাসটাও বিদঘুটে, আরামের ছোঁয়াও দেয়না পাশের ছাদে দুই শালিক খুটে খুটে খায় আপন মনে যেন গরমে তাদের কিছু আসে যায়না হতাস মনে পায়রার দল ঘুটুর ঘুটুর করে ফন্দী  আঁটে এক সাথে উড়ে গিয়ে শালিকদের আসে পাশেই যেয়ে বসে শ্রান্ত মনে আমি জানালার গ্রিল ধরে তাকিয়ে থাকি [ বিস্তারিত ]
  অ)  কতোটুকু চেনো তুমি নিজেকে? কমা, সেমিকোলন নাকি বিস্ময়কর যতি! আমি বলি, “এটুকুই চিনি, তোমার ওই প্রশ্নের মতোই!” (আ) কি চাইবার আছে আর! মরুভূমি পেয়েছি, সমুদ্রও; দু’ চোখেই আমার। (ই) পাহাড়ের গায়ে আকাশ নাকি মেঘ? কি জানি কোনটা! যেমন উদ্দেশ্য আর বিধেয়, না কি! (ঈ) বিত্তহীন নদী দেখো, গাঙচিলেরও দেখা মেলেনা; সাঁতার? নাহ! (উ) আরেকটি মাইলস্টোন অভিমুখে ! [ বিস্তারিত ]
সোনেলা ব্লগের জন্য লেখা—– বৈশাখ সাজে সোনেলা–/অরুণিমা মন্ডল দাস প্রবন্ধ “পয়লা বৈশাখ” আমাদের দেশে যেমন পালিত হয় তেমন প্রবাসী বাঙালীরাও খুব আনন্দের সংগে পালন করে থাকেন। বাঙালীদের রক্তে যেন পয়লা বৈশাখের সাজ মিশে আছে। পয়লা বৈশাখ কি? কেন? বাংলা সনের প্রথম দিনকেই বা বৈশাখের প্রথম দিনকেই পয়লা বৈশাখ হিসেবে ধরি। ওইদিন আমরা নতুন বস্ত্র পরিধান [ বিস্তারিত ]

আমার পৃথিবী

নীরা সাদীয়া ২৯ মার্চ ২০১৭, বুধবার, ১০:১৬:২৮অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ২৮ মন্তব্য
তোমাদের যখন রাতের আকাশে সবান্ধবে তারা দেখা, আমার তখন তারা ঝিকমিক আকাশ একলা একা। তোমাদের যখন প্রেমিকার আঁচলে হালকা আকাশী নীল আমার তখন বিশাল আকাশ প্রশান্তি অনাবিল। তোমাদের চোখে বিষাদের ছায়া প্রেমিকের বিচ্ছেদে আমার তখন হৃদয় পোড়ে পাখির আর্তনাদে। তোমাদের বুকে মাথা গুঁজে প্রেমিকারা যখন কাঁদে, এদিকে আমার পোষা বিড়ালটা বায়নায়, আহ্লাদে। তোমাদের কান্না ধুয়ে [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ