বিভাগ: সাহিত্য

ঘুম ব্যাপক প্রস্তুতি, উৎসাহ, উদ্দীপনার সাথে বিশিষ্ট ঘুমবিদ ঘুমের ইন্তেজাম করেন। তাঁর কাছে ঘুমের স্টাইলটি বেশ জৌলুসে পূর্ন । তিনি স্থির করেছেন তাঁর এই ঘুমের ঘটনাটির সাথে বিভিন্ন বাড়ীর মানুষকে সংশ্লিষ্ট করবেন, যাতে প্রতিটি বাড়ীর মানুষ আনন্দিত এবং খুশী হন। তাঁর পরিকল্পনা মত, তিনি এক বাড়িতে রাখলেন বালিশ, এক বাড়িতে রাখলেন বালিশের কভার। অন্য এক [ বিস্তারিত ]

শুন্যতার মিনারে দাঁড়িয়ে

জসীম উদ্দীন মুহম্মদ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪, সোমবার, ০৩:৫২:০৫অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য
ব্লাকহোলের অন্ধজলে এক বুক সাগর শূন্যতায় এখনও আমি সেই আগের মত, ডানপিটে কিশোর ঝড় নেই বাদল নেই আর কোনও দিকে ভ্রূক্ষেপ নেই হিমগিরির মত অচল দাঁড়িয়ে আছি তোমার আঙিনায় এখনও তাকিয়ে আছি তোমার নীল নয়নের অপেক্ষায় কখনও স্মৃতিরা উদ্বেল হয় কাতর কণ্ঠে কাঁদে আসমানের নীলসিয়া ডানা হারা পাখির মত আমিও ভাসি বাতাসে । তুলার পেঁজার [ বিস্তারিত ]
রাম্বা কোনো কথা না বলে দৌড়ে গিয়ে চিতায় ঝাপ দেয়। মৃদঙ্গে ডঙ্কার তাণ্ডব বাজে, ডোম নারীরা উলুধ্বনি করে। প্রলয়ের মাতম ওঠে, ‘হরি বোল, বোল হরি… হরি নাম সত্য।’ চিৎকার করে রাম্বা। দাউ দাউ করে জ্বলে রাম্বার বসন। আগুনের তোড়ে নারাছু ডোমের হাত পা উঠে যায়। রমেশ চণ্ডাল আর শ্মশান বন্ধুরা ‘হরি বোল’ বলে হাত পায়ের [ বিস্তারিত ]
গৌরীপুর জংশন হুমায়ূন আহমেদ স্পয়লার সতর্কবাণী : রিভিউটি স্পয়লার দোষে দুষ্ট জয়নাল শীতের রাতে ষ্টেশনই ঘুমায়। একসময় সে কুলি ছিল। তিন মোনি একটা বস্তা তার পিঠে পরে সে অচল হয়ে যায়। এখন তার একটা পা শুকিয়ে গেছে। বজলু নামের ৮/৯ বছরের এক টোকাই জয়নালের পিছনে ঘুর ঘুর করে। বজলুর চাচা তাকে এই ইস্টিশনে ফেলে রেখে [ বিস্তারিত ]

প্রজম্মের ঋণ শোধ ১১তম

মনির হোসেন মমি ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৪, সোমবার, ০৯:৩৫:২৩পূর্বাহ্ন গল্প, মুক্তিযুদ্ধ ১৮ মন্তব্য
সূর্য্য রিক্সা হতে নেমে ফোনের পর ফোন দিচ্ছেন রক্ত দাতাকে,কোন উত্তর নেই ,কিছু ক্ষণ ঘুড়ে ঘুড়ে দেখছেন প্রজম্মের ঋণ শোধের চত্ত্বরটিকে।যে দিকে তাকায় লোকে লোকারণ্য স্বাধীনের পর এমন গণ জমায়েত আর কখনও হয়নি।নিঃস্বার্থ ভাবে দূর দূরান্ত থেকে ছুটে আসা রাজাকারদের ফাসির দাবীতে ছেলে বুড়ো সবাই ছিল উম্মুখ।দল বদ্ধ ভাবে বিভিন্ন গ্রুপে ভিন্ন ভিন্ন মনোরঞ্জন আয়োজনে [ বিস্তারিত ]

খোয়াবনামা… জাগরী

আগুন রঙের শিমুল ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪, রবিবার, ১১:০২:২৭অপরাহ্ন কবিতা ২৬ মন্তব্য
একদিন, অঙ্গুলী হেলনে দেখিয়েছি বিচিত্র ম্যাজিক, বিভিন্ন সময়ের বুকে একেছিলাম যুগল পদরেখা। একদিন, তুমি ; নক্ষত্রের রুপালী আগুনে লীন রূপকথার ছায়া শিকারির মতো,আত্মখনন শেষে মায়াবতী নীল জল। একদিন, অঙ্গুলী স্পর্শেই কামনার বিষ শ্বাসের শব্দে সুগন্ধী ঝড়, কমলা রঙের আলো। তারপর একদিন, অঙ্গুলীস্পর্শ ছেরে হয়েছো সুদূর। – আচ্ছা তবে যাও, আমিতো আছিই। দেখা হবে হয়তো কোন [ বিস্তারিত ]

না মানুষের গল্প

নীলকন্ঠ জয় ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪, রবিবার, ১০:২৩:০৯অপরাহ্ন গল্প ১৫ মন্তব্য
[ গল্পটি একটি শর্ট ফিল্ম – এর জন্য লেখা। ] রেললাইন ছেড়ে সবুজ ধানক্ষেতের মাঝে একজন মানুষ অঝোরে কেঁদে চলেছে। মানুষটির নাম ‘না মানুষ।’ হ্যাঁ ও মানুষ না, না মানুষ । অতীত এবং বর্তমানের কথা ভেবে নিজেকে সান্ত্বনা দিতে না পারা এক মানুষ। ওর কান্না দেখে কেউ একজন বলে চলেছে, ‘কাঁদো, না মানুষ কাঁদো, তোমার [ বিস্তারিত ]
আঁধারের সলতে উস্কে দিয়ে তুমি চলে গেছো আলোর খোঁজে সিলেবাসহীন জীবনে সঠিক পথের দিশা না পাওয়ায় আঁধারের দিকেই মুখ ফিরে চলতে থাকি তাই দেখে মধ্যরাতের মাতাল আমাকে শেখাতে আসে ভরা পূর্ণিমার মানে। মাতালের দোষ খুঁজে পাই না আমি এর বেশি সে আর কিবা উপদেশ দিতে পারে নিজের স্বার্থগুলো পকেটে পুরে উধাও হয়ে গেছো পরিযায়ী পাখির [ বিস্তারিত ]

লোভে পাপ

রুদ্র আমিন ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪, রবিবার, ০৪:১৫:১৩অপরাহ্ন কবিতা ১৪ মন্তব্য
চোখ দিয়ে তাকিয়ে মুখ খানি বাড়িয়ে শীষ দেয় ইশারায়– ভালো কি মন্দ সে বোঝা বড় বেকায়দায়-? ঠিক রাত দুপুরে কুকুরের পাহারায় বসে আছি দু’জনে পুকুরের কিনারায়। একেতে বর্ষাকাল তার উপর টিনের চাল, বেঁধে রেখেছে পাহারাদার প্রেমিকার ভাই কামাল। ঝোপ বুঝে কোব দেব ধরা যেন নাহি খাই থর থর বুকটা এই বুঝি যাই যাই, মানসম্মান গেল [ বিস্তারিত ]

নির্বাসিত স্বপ্ন-বিলাস

নীলাঞ্জনা নীলা ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪, রবিবার, ০১:১৫:৫৪পূর্বাহ্ন গল্প ২৬ মন্তব্য
অযথাই যে জেগে আছে কুন্তলা , তা নয় । এমনকি অপেক্ষা করছে কেউ আসবে বলে , তাও নয় । বুঝে উঠতে পারছে না জীবনে এমন সময় কেন এলো ? নিজেই কি জেনে-শুনে জন্ম দেয়নি ? “আমি জেনে-শুনে বিষ করেছি পান…” রবি ঠাকুর এই গানটি যেনো এ সময়ের জন্যেই সৃষ্টি করেছিলো । কুন্তলা নিজেই নিজেকে বলে [ বিস্তারিত ]

আঁচড়ে মেঘরঙ

সাদিক মোহাম্মদ ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৪, শনিবার, ০৯:৫৭:৫৫অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য
নিস্তব্ধতার তরঙ্গ ছুঁয়ে যায় মন ব্যাকুল হয়ে ওঠেন আশ্রাফ কাবেরী বরাবরের মতো তিনি তাঁর ইজেল মেলে ধরেন বিমর্ষ ঘরে শুভ্ররঙ মেখে দিতেই ক্যানভাসে জেগে ওঠে শূন্যতা অভ্রনীল আসমান অস্ফুট আঁচড়ে আঁচড়ে মেঘরঙ দিগন্তসীমা অথচ ফোটে না প্রাণ জীবনের বর্ণ জানা নেই বলেই আজও শূন্য ঘরে দানা বাঁধেনি জীবন
যমুনার পাড়ের দূরবর্তী কোল ঘেষে ধূ ধূ মাঠে শ্মশান। চারিদিকে কোনো জনবসতি নেই। শ্মশানের মাঝে একটা প্রাচীন পাকুড় গাছ বৃহৎ ডালপালা মেলে দাঁড়িয়ে একা। পাশেই বহমান প্রমত্ত যমুনা। পাকুড়  গাছটির ডানে পুরোনো শিবমন্দির। মন্দিরের বামে অনতিদূরে একটা ছোট্ট নিঃসঙ্গ শনের ঘর। জনবসতির সাথে সে ঘরের কোনো সংশ্রব নেই। সে শনের ঘরে একা বাস করে রমেশ [ বিস্তারিত ]

চিলেকোঠা

তাপসকিরণ রায় ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪, শুক্রবার, ১১:২৭:১৯পূর্বাহ্ন কবিতা, সাহিত্য ১৬ মন্তব্য
চিলেকোঠার স্বপ্নগুলি আধ অন্ধকারে ভেসে যাচ্ছে– সিঁড়িগুলির ধীর পায়ে পায়ে উঠে আসা– ছায়াগুলি ছুঁয়ে আছে অন্য ছায়ায়। এখনও লুকোনো কার্নিশ ঘেঁষে, সেই হাত পা ছুঁয়ে আছে শৈশব, চিল উচ্চতার ভাবনাগুলি একান্ততা খোঁজে– ফিরে আসার ভাষ্যগুলি চুপচাপ শুয়ে আছে

জলছবি

জসীম উদ্দীন মুহম্মদ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪, শুক্রবার, ০১:৩১:৩২পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, কবিতা ১৪ মন্তব্য
মনের ভিতর কিলবিল করা শব্দেরা আশ্রয় খুঁজে পায় কবিতার খাতায় বুকের নরম মিহি ঘাস গুলোর মতন খরতাপ দগ্ধ সরু নালার জলের মতন সাগরের মায়াবী নীল জলের মন্দিরে খুঁজে বেড়ায় আবেহায়াত ! আমিও তেমনি কনকনে শীতের জবুতবু রাতে খুঁজে পেয়েছি তোমার উষ্ণ পরশ ! লাল গালিচার উষ্ণ সংবর্ধনা ! তাপিত হৃদয়ের যাপিত জীবন ছিল সিন্ডিকেটের চার [ বিস্তারিত ]

কাঙ্ক্ষিত কম্পন

সাদিক মোহাম্মদ ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৪, বৃহস্পতিবার, ০৯:৫৭:১৬অপরাহ্ন কবিতা ৮ মন্তব্য
দরোজা-জানালা বন্ধ বাইরের স্বচ্ছ আকাশে প্রার্থনামগ্ন চাঁদ বিজন অন্ধকারে দু’জন হাতড়ে ফিরি চেতনার গভীরতা বিমুগ্ধ অস্তিত্বের আশ্রয় পরস্পর ঠাই আমরা ক্লান্ত আমাদের হৃদপিণ্ড প্রকম্পিত-প্রবল ঝড়ো হাওয়ার মতো প্রক্ষিপ্ত গতিবেগ… এইতো অনুভব- স্পর্শ পাচ্ছি পাতাল… হঠাৎ বৃষ্টি জলের ছাঁটে নিশ্চল ভিজে যায় দু’পাড়

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

সাম্প্রতিক মন্তব্যসমূহ