মনিরুজ্জামান অনিক

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ১০ মাস ২ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ২৪টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ৯৩টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ২০৫টি
প্রিয় পোস্টঃ ৩টি

এক মুঠো সাদা ভাত।

মনিরুজ্জামান অনিক ১৬ জানুয়ারী ২০২২, রবিবার, ০১:৫৯:৪১অপরাহ্ন কবিতা ৩ মন্তব্য
যেই লোকটা রাস্তায় ঘুরে ময়লা চামড়ার, মাথায় তার খেলা করে শুধু - বাড়িতে রেখে এসেছে ক্ষুধার্ত সংসার। যাবজ্জীবন মৃত্যু বুকে নিয়ে হাটে না তো কেউ! ঐ লোকটা হেঁটে যায় শুধু,রাজ্যে যখর উন্নয়নের ঢেউ। জানি,সমাজপতি .. লাল ইটে পৌঁছায় না হাহাকার। সীসা গলানো কানে শুনতে কি পাও! চামড়ার বুকে স্লোগান উঠেছে - একমুঠো সাদা ভাত দরকার।

লজ্জিত মুখ।

মনিরুজ্জামান অনিক ১৫ জানুয়ারী ২০২২, শনিবার, ০৯:১৬:১২অপরাহ্ন কবিতা ৩ মন্তব্য
জীবনের কাছে চরমভাবে হেরে যাওয়া যেই লোক সে জানে - সন্তান যখন বলে, বাবা! ওরা নিয়মিত  আপেল খায় আমায় কিনে দাও না কেন? এ প্রশ্নের জবাবে কতোটা নীরবে কেঁদে উঠে বুক। অতোটা শক্তভাবে দাঁড়িয়ে থাকতে পারেনা পাহাড়,  যতোটা শক্ত গাঁথুনি লজ্জিত ঐ বাবার পাঁজরের হাড়।

পাখির মতন জীবন।

মনিরুজ্জামান অনিক ১৪ জানুয়ারী ২০২২, শুক্রবার, ০৫:৩০:০৩অপরাহ্ন কবিতা ৩ মন্তব্য
দূর আকাশে একটা মেঘ অন্ধকার করে আছে। এখনি বৃষ্টি নামবে হয়তো! নাগরিক কোলাহল কিছুটা থেমে গেলে, আমি জানালার পর্দা সড়িয়ে ভাবি তোমাকে। যতদূর চোখ যায় আকাশের ঠিকানায়, দেখি একটা পাখি এখনো হিসেব করে উড়ছে তার নাকি আরো কিছু পথ উড়া বাকি!! মানুষের জীবন কিছুটা পাখির মতন... সারাদিন উড়া উড়ি, বেলা শেষে ক্লান্ত পায়ে ঘরে ফিরে। [ বিস্তারিত ]

জামরুল ঠোঁটের প্রেমিকা।

মনিরুজ্জামান অনিক ৮ জানুয়ারী ২০২২, শনিবার, ০৩:৫১:৪৯অপরাহ্ন কবিতা ৯ মন্তব্য
তোমার ঐ জামরুল ঠোঁটে চুমু এঁকে দেয়, যদি এক তৃষ্ণার্ত প্রেমিক। কি করে তাকে অগ্রাহ্য করবে! জামরুল ঠোঁটের মালিক। তুমি কি মামলা ঠুকে দিবে আদালতে? শাস্তি হবে! চুমুর দায়ে এই বিশ্বব্রহ্মাণ্ডে তার কি ফাঁসি হবে? নাকি কাটিয়ে দিতে হবে জীবন, কনডেম সেলে। প্রতিটি দৈনিক পত্রিকায় উৎসুকে নিউজ ছাপা হবে, চুমুর দায়ে সামনের বিষ্যুদবারে ফাঁসিতে ঝুলে [ বিস্তারিত ]

নীলাম্বরী তোমায় মনে পড়ে।

মনিরুজ্জামান অনিক ৫ জানুয়ারী ২০২২, বুধবার, ০৩:০৪:৫০অপরাহ্ন কবিতা ৮ মন্তব্য
নীলাম্বরী, তোমায় দেখেছি সেদিন রেস্তোরাঁয় বসে অপেক্ষমান দুটি চোখ। কার জন্য এতো গভীর প্রণয়ের অসুখ? জানালার কাঁচ গলে বৃষ্টি ছুঁয়ে যায়.. খানিকদূরে কৃষ্ণচূড়া গাছ ফুলে ফুলে লাল। তোমার ভ্রূক্ষেপ নেই সেদিকে, যেনো দখিনা বাতাসের মতো উদাস তোমার মন। একাকী দুল খাওয়া দোলনার মতো শূণ্য আয়োজন।   নীলাম্বরী, এভাবে বসে থাকবে কি! সময়ের কাঁটা ভেঙে। চলো [ বিস্তারিত ]

খারিজ (পরিত্যক্ত)

মনিরুজ্জামান অনিক ২ জানুয়ারী ২০২২, রবিবার, ০৪:১৭:৩৮অপরাহ্ন কবিতা ৯ মন্তব্য
  আমাকে হত্যা করতে এসেছে একদল স্বাধীনতার পায়রা। আমি পায়রা ভালোবাসি, একথা ওদের বুঝাতে পারলাম না। আমার সমস্ত দলিল দস্তাবেজ খুলে পৃষ্ঠার পর পৃষ্ঠা উল্টেপাল্টে ওদের দেখালাম। নাহ্! কিছুতেই ওরা বিশ্বাস করলো না। সবিশেষ আমি খাটের তলায় লুকানো পুরনো ট্রাঙ্ক খুলে বের করলাম এক ডজন স্বাধীনতাকামী কবিতা, রক্ত লেগে আছে এখনো কবিতায়। ওরা কবিতা দেখলো,রক্তের [ বিস্তারিত ]

উল্টো পথে।

মনিরুজ্জামান অনিক ৩১ ডিসেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ০৮:২৫:২৮অপরাহ্ন কবিতা ২ মন্তব্য
  সবকিছু আজ উল্টো পথে চলে।  ঘড়ির কাটা। আমার জীবন। রাশি ফল। এমনকি মাস শেষের মাইনে...  যারা বুঝে আমাকে, যারা চলেছে একসাথে,  অথবা যাদের সাথে দু-কদম হেঁটেছি, আড্ডা মেরেছি ছোট্ট কোন চায়ের দোকানে। সবাই আজ উল্টো পথে।কেউ আর এগোয় না।  করমর্দন করে বলেনা কেউ, একদিন সব ঠিক হয়ে যাবে। তোমার কি হলো!  তুমিও ঠিক নিয়ম [ বিস্তারিত ]

তোমার ফুলের সু-ঘ্রাণ।

মনিরুজ্জামান অনিক ৩০ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:২৪:৪২অপরাহ্ন কবিতা ১৩ মন্তব্য
তোমাকে ভেবে ভেবে যে ফুল ফুটে সে ফুলের সু-ঘ্রাণ আমার নাকে লাগে। মাধকতাময় সে গন্ধ...   রাত্রির আধারে আমি চুপিচুপি যাই সে ফুলের কাছে। সদ্য ফুটেছ তুমি - এখনো আড়মোড়া ভাঙেনি। অবাক নয়নে তাকিয়ে থেকে বলো - প্রেমিক এতো রাতে কেনো এলে? কেনো মনে বাড়ালে জ্বালা। তুমিতো জানোই, আমার ঘরের বাহিরে যেতে মানা। তবুও কেনো [ বিস্তারিত ]

শূন্য বারান্দা।

মনিরুজ্জামান অনিক ৩০ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:০৪:০০পূর্বাহ্ন কবিতা ১১ মন্তব্য
এশার আযানে আমার উঠানে নেমে আসে এক ঝাঁক শূন্যতা। কেউ কোথাও নেই। আকাশে চাঁদ নেই, ঢেকে আছে ঘন কুয়াশা।   আমি জানালার পাশে এসে দাঁড়াই। দূরে দেখা যায় একটা বাতির টিমটিমে আলো। দোল খায় - হয়তো কোন জেলে পল্লীর নৌকায়।   বাড়িতে বধূ উঠানে চড়িয়েছে রান্না, বধূর চোখে ও কি মাঝে মাঝে ভেসে আসে! দূর [ বিস্তারিত ]
  শেষ ফেরী চলে গেলো এ পাড়ে বসে আমি একলা। অথচ আমার ছিলো কত তাড়া। গত হাটে কেনা-বেচা শেষে বাড়ি ফিরলো দোকানী,  আজ কোথাও হাট বসেনি। আমি কিছু সদাই কিনবো ভেবেছি।   কুপি বাতির সলতে পুড়ে নিভেছে আলো, জোনাকির বুক চিঁড়ে আলো কেড়ে নিলো.. আমিও চেয়েছিলাম কিছু আলো যা গত হয়ে গেলোপাইনি,  সব কেড়ে নিলো [ বিস্তারিত ]

জোৎস্না বন্দনা।

মনিরুজ্জামান অনিক ৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ০৩:২০:৪৮অপরাহ্ন কবিতা ৭ মন্তব্য
    নীলাম্বরী, দোয়ার খোলো। আমি ভিজে যাচ্ছি জোৎস্নায়! বাইরে কেমন মন খারাপের জোৎস্না বয়! কি চাপিয়েছ উনুনে? ভাত,আলু সেদ্ধ! দোয়ার খোল, চলো আজ পাখি হয়ে উড়ে যাই কোন আদিম বৃক্ষে। অন্ধকার শাড়ি পড়ে যে দাঁড়িয়ে থাকে। তার সবচেয়ে উচু ডালে দুজনে জিরিয়ে নিই, এক পৃথিবীর দীর্ঘশ্বাস মুছে দিই দুজনে। যেখানে থেকে পৃথিবীর কেনাবেচা আর [ বিস্তারিত ]

দুঃখের ডাকনাম।

মনিরুজ্জামান অনিক ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ০৬:২০:২৭অপরাহ্ন কবিতা ৮ মন্তব্য
      বুকের দেয়ালে যে শৈবাল জন্মেছে... তাদের আলাদা কোন নাম দেইনি আমি। হাঁটতে হাঁটতে একদিন পাড়ি দিবো, পৃথিবীর চোরাবালি।   যন্ত্রনার যে পেয়ালা ছিলো বুক পকেটে গোপনে গোপনে তা পান করেছি। কবিতার মহামারীতে কবিতা খেয়ে,জীবন বাঁচাতে চেয়েছি।   দোয়াতের কালি শুকিয়েছে - মরেছে এক নদী। দোয়াতে ঠিকই রক্ত মেখেছি - নদীটি আর পাইনি। [ বিস্তারিত ]

আত্মহত্যা এবং কয়েকটি মূহুর্ত

মনিরুজ্জামান অনিক ৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার, ০২:৫২:৫৫অপরাহ্ন কবিতা ৬ মন্তব্য
•• আত্মহত্যার আগে আমি কিছুটা স্থির ছিলাম। একটার পর একটা সিগারেট পুড়িয়েছি। এক গ্লাস ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়েছি - এর বেশি জল ছিলোনা; হয়তো বরাদ্দ শেষ।। আমার পোষা কুকুরকে বললাম ভালো থেকো বন্ধু। সে কিছু বলল না লেজ নাড়িয়ে দৌড়ে চলে গেল। খানিক বাদে একটা পুরনো ডাইরি মুখে করে নিয়ে এলো। আমি ডাইরিটা হাতে নিলাম। [ বিস্তারিত ]

অনুবাদ

মনিরুজ্জামান অনিক ২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ০৭:০০:৫২অপরাহ্ন কবিতা ১৬ মন্তব্য
•• আমি তো কবিতা লিখি না, আমি শুধু তোমাকে অনুবাদ করি। তোমার বুকের গহীনে যে রাস্তা মিশে গেছে.. আমি বারবার সেখানে হাঁটি, তবুও মনে হয় ...কেমন যেন অপরিচিত সেই রাস্তা। অথচ প্রতিদিন আমি সেখানে ঘুরি, বসে জিরুই।। তোমার সামনে এলেই আমি ব্যস্ত হয়ে পড়ি... কবিতারা বৃষ্টির মতো নেমে যায়.. আমার মস্তিষ্ক বেয়ে কলমের ডগায়। আমি [ বিস্তারিত ]

বাহারি রঙের মৃত্যু।

মনিরুজ্জামান অনিক ১ আগস্ট ২০২১, রবিবার, ০৮:৩৭:১৯অপরাহ্ন কবিতা ৮ মন্তব্য
              দিনদিন বাড়ছে ক্রেতা বাড়ছে ভীষণ ভীড়, সস্তা দামে মৃত্যু নিতে হয়েছে অস্থির। লাইন ধরো হে! লাইন ধরো হে!একি করছো তোমরা। সস্তা দামে মৃত্যু নিতে ঘষছো বুকের চামড়া! আগে এলে আগে পাবেন, টাটকা ভীষন ভাই। মৃত্যু নাকি খুব সুস্বাদু, ভেজাল তাতে নাই। তাইতো এতো লাইন পড়েছে অজগরের মতো, জীবন [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য