গাজী বুরহান

নিজের সম্পর্কে কিছু বলা বা লেখা পৃথিবীর সব কঠিন কাজগুলোর একটি।

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৩ বছর ৬ মাস ১১ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ১১টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ২৮২টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ২৩৫টি

স্বাধীনতার সুখ।

গাজী বুরহান ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার, ০৯:৫৮:৫৭অপরাহ্ন কবিতা ১০ মন্তব্য
(একজনের কবিতা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে) এখানকার সবচেয়ে ব্যস্ততম দিনে প্রচুর জনসমাগম ‘ভাইভাই’ নামক রেস্তোরাঁর ঠিক মধ্যিখানে একটি চেয়ারের উপর বসে আছি। হাহাকারযুক্ত নিঃশ্বাস হইহই কলরবের মাঝে আছাড় খেয়ে পড়েছে। এক ছোকরা কিছুক্ষণ পরপর স্থানীয় ‘বাংলা টিস্যু’ নামক গেজেট দিয়ে আমায় যেন অভিবাদন জানাচ্ছে। ‘এক কাপ চায়ের’ ফরমাশি জানিয়ে আবারো আড়মোড় ভেঙ্গে বসে আছি। ছোকরা ‘চা’ [ বিস্তারিত ]

শুভনববর্ষ। নববর্ষের শুভেচ্ছা।

গাজী বুরহান ১৪ এপ্রিল ২০১৭, শুক্রবার, ১২:৩৪:১৯পূর্বাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য
চুনাওঠা পাঁচিলের কলঙ্ক লোপ হোক। গত হওয়া শালিকেরা ফের প্রাণ ফিরে পাক। অশ্বত্থের নিচে হোক না একটু ঝঁঝাটপূর্ণ ঘুঘু কিবা শাঁখচুন্নি ডাইনীদের আমন্ত্রণে। লক্ষ্মীপেঁচা এবং আমি না হয় থাকিব ঘুমে। মঙ্গলকাব্যের মঙ্গলকথন শুনেছি ওই ছেঁড়া পাতায়। সেদিন তো আর নেই, মানুষ এখন পশুদের মত। হোক না একটু পশুর মস্তক নিয়ে মঙ্গলের টানাটানি। হয়ত কাটা দিয়ে [ বিস্তারিত ]
কবিতা দ্রোহের স্বর (ম্যাগাজিন) আমি তো ধ্রুপদী আকাশ দেখে গুটিয়ে রাখা পা বাড়ানোর পথে। শামুক শামুক চিৎকার শুনে কচ্ছপ গতির মানবিক আমি বুনে, আবারো গুটিয়ে ফেলেছি। শামুক শামুক! আমি তো হিমেল হাওয়া দেখে পোড়ানো একটুকরো মাংস নিয়ে। ছাই ছাই চিৎকার শুনে আদ্র ন্যাংটো ঝরা-পাতার মত, তলিয়ে গিয়েছি আমি। ছাই ছাই! মোমের আলো জ্বালাতে গিয়ে চৈত্রের [ বিস্তারিত ]
“প্রিয় আব্বু, পত্রের শুরুতে হাজার হাজার সালাম নিও। আশা করি ভালো আছো। আপনার দোয়ায় আমরাও ভালো আছি। আজ দুসপ্তাহ পর চিঠি লিখতে বসেছি। তুমি মনে হয় অনেক বেশি রাগ করেছ! কি করব বলো? স্কুলে যে পরীক্ষা ছিল। তাই লিখতে পারিনি। তোমার চিঠির উত্তরও দিতে পারিনি। এ জন্য সত্যিই দুঃখিত। কালকে মন খারাপ ছিল। স্কুলে সবাই [ বিস্তারিত ]

কিছু না বলা কথা

গাজী বুরহান ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, সোমবার, ০১:৫১:৪৩অপরাহ্ন কবিতা ১৮ মন্তব্য
১/ ঘুম-পক্ক্বীদের ভিড়ে নির্ঘুম রাত কত বিস্বাদ! কত নির্ঘাত!! হিম ধরা সময় হয়ে ওঠে ভয়ংকর! এ যে ফাগুন! এ যে আগুন!! . শয়নে মাথার আধ হাত উপরে, কে বসে ঈশারা করে? রাতের ঘুম পাড়ানোর দায়িত্ব কি আমার? কে বলেছে? . মোয়াজ্জিনের আজান ভেসে এসে কর্ণকুহরে প্রবেশ করলে পরে তবে নাকি মিলবে ছুটি!! তুমি ক্যুন হে…? [ বিস্তারিত ]

শিরোনামহীন

গাজী বুরহান ১৫ নভেম্বর ২০১৬, মঙ্গলবার, ১২:০৪:৩৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৭ মন্তব্য
কুকুরের বাচ্ছা কুকুর মরেছে এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। এ দেশে রাস্তা-ঘাটে মানুষ মরে আর এ তো সামান্য কুকুর! যুদ্ধ হলে খুন, ধর্ষণ,লুটতরাজ হয় এটা স্বাভাবিক। স্বাধীনতা যুদ্ধে কত খুন হল কত জন নারী ধর্ষিতা হল তার হিসেব-নিকেশ করবার লোকের কমতি নেই। পরিসংখ্যানে একটু উনিশ-বিশ হলেই রাষ্ট্রদোহী মামলা থেকে রাজাকার পর্যন্ত হবেন, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু [ বিস্তারিত ]
#অবসর সময়ে কি করিস? *আমার কাছে অবসর সময় বলতে কিছু নাই। আমি এটাকে জীবনের পরম না , চরম লগ্ন বলি। আর জীবনের চরম লগ্ন আমি বই পড়ি, প্রেমিকার সাথে ঘুরোঘুরি করি। #বই পড়িস? হাহাহা… বই কি কেঁউ পড়ে? বই কি পড়ার জিনিষ? *তাহলে বই দিয়ে মানুষ কি করে? #শুন! বই হল ছোটদের খেলনার জিনিষ। এসএসসি [ বিস্তারিত ]
আকাশ আজ কালো, শুধু কালো না ঘন কালো। মাথার উপরে ঝুলে থাকা ঘন-কালো মেঘ বৃষ্টির হুমকি দিচ্ছে। আজ বৃষ্টি হবেই, নগর ধোয়া বৃষ্টি, স্বস্তির বৃষ্টি, আজ বৃষ্টিতে ভিজবই। ৩ দিন গোসল করি নাই,পণ করেছিলাম যে, বৃষ্টিতে ভিজেই তবে গোসল করব। সেদিন রাত ৩ টায় বৃষ্টি হয়েছিল, কিন্তু ভিজতে পারিনি। মালিক পক্ষের কড়া নির্দেষ রাত ১২ [ বিস্তারিত ]

পথের ফুল

গাজী বুরহান ৫ আগস্ট ২০১৬, শুক্রবার, ০৯:০৩:৪৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২০ মন্তব্য
একটা গান আছেনা… “জীবনে ভালবেসে করেছি ভুল বুঝিনি পাথরে ফুটবেনা ফুল” পাথরে ফুটবেনা ফুল! জিনিসটা যে সত্যি না, তা বুঝতে পেরেছিলাম সেন্টমার্টিন দ্বীপে গিয়ে। হুমায়ুন আহমেদ স্যারের বাড়ি থেকে ফেরার পথে একটি ছোট মেয়ে আমার পাঁশ দিয়ে যাচ্ছিলো। হঠাৎ সে অদ্ভুত রকমের একটি ফুল আমার হাতে দিয়ে বলল… ভাইয়া এটি আপনার জন্য। থ্যাংকইউ। আমি পকেট [ বিস্তারিত ]
ব্লগিং বিরক্ত হয়েই গেছিল। প্রতিদিন শতশত লেখা। আমার মত হাজারটে কয়লার ভেতর থেকে হীরে গুলো খোঁজে বের করাও কঠিন ছিল। বিরক্ত হওয়ার প্রথম কারণ হাবিজাবি লেখা। আমি বুঝিনা, হাবিজাবি লেখার যায়গা ফেইসবুক, ব্লগ না। ব্লগিংয়ের কাজ হচ্ছে যতটা না জানানো তাঁর চেয়ে বেশি নিজেকে জানা। এটা-কি মেনে নেয়া যায়? একজন ভাত খেয়ে উঠে ব্লগে এসে [ বিস্তারিত ]

লাইফ ইজ বিউটিফুল

গাজী বুরহান ১৫ জুলাই ২০১৬, শুক্রবার, ০৩:২২:২৯পূর্বাহ্ন বিবিধ ২০ মন্তব্য
মেইন রোডে দাঁড়িয়ে আছি, হঠাৎ কিছুটা শূন্যের উপর দিয়ে শাঁ করে একটা বাইক পাঁশ কাঠিয়ে চলে গেল। মনে হল এই শব্দটাই লাইফ। গাড়ী করে যাচ্ছি, চোখের সামনে ভাসল আকাশ সম পাহাড়। এই পাহাড়গুলো আমাদের বাড়ি থেকে দেখা যায়। প্রতিদিন ঘুম থেকে ওঠে পাহাড়কে সুপ্রভাত বলে দিন শুরু করি কিন্তু এত এত কাছ থেকে দেখার সুযোগ [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য