মাসুদ চয়ন

সাহিত্য সাধনার পথে সকল অন্ধকার কেটে যাক।

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৩ মাস আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ৩৮টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ৩৪৮টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ৪৯২টি

হাওর বন্দি

মাসুদ চয়ন ৭ জুলাই ২০১৯, রবিবার, ০৩:০৬:১৮অপরাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
(প্রথম পর্ব) আজ আষাঢ়ের ১৪ তম প্রহর_ আমাদের নববিবাহিত জীবনের তৃতীয় দিন। পারিবারিক মেলবন্ধনের মাধ্যমে বিয়েটি সংঘটিত হয়েছে।মেয়েটিকে আগে কখনো দেখিনি।এ জন্য বিয়ের দিন মন খারাপ ছিলো।ভীষণ রকম অস্থিরতা কাজ করছিলো। একরকম জোর করেই বিয়ের আসরে নিয়ে গিয়েছিলো।একদিকে না যাওয়ার জবরদস্তি আরেকদিকে চার পাঁচজনের টানা হ্যাঁছড়া। খুব উদাসীন ঘরানার মানুষ আমি।একবার বাড়ি ছাড়লেই বহুকালের জন্য [ বিস্তারিত ]

জলজন্ম

মাসুদ চয়ন ৫ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার, ১০:৪৮:৫৮পূর্বাহ্ন কবিতা ২৯ মন্তব্য
অনুভব্য শান্তির খোঁজে নিঝুম নদী তীরে তার সাথে হৃদয়ের নিবিড় আলাপন চলে জীবনের মানে খুঁজে পেতে তার কাছে যাই নিরাশ হইনি আজও_ নদীর কাছে গেলে নিজেকে নতুন জন্ম মনে হয় ঢেউয়ে চেয়ে থেকে নতুনের স্বপ্নালু স্বাদ জাগ্রত হয় জোয়ারের টানে সাঁ সাঁ শব্দে সুপ্ত কল্পনা আন্দোলন তোলে যে কল্পনায় মানবজন্ম বাঁচে স্বপ্নে_ তাই আজও নদী [ বিস্তারিত ]

কচুরিপানা ও মুক্ত জলতরী

মাসুদ চয়ন ২ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার, ১২:২৬:০৮অপরাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য
(কচুরিপানা) মাঝে মাঝে জীবনকে কচুরিপানার ঘনিষ্ঠ ক্লোণ বলে মনে হয়– জলে ভেসে চলে ঘুম জলে ভেসে ওঠে চৈতন্য_ জল শুকোলেই নিথর দেহ এভাবেই ফুরোবে সমস্ত লেনদেন আর বাঁচিবার আয়োজন– মিথ্যে হয়ে যাবে সমস্ত সজীবতা নিমিশেই সবুজ আলো ঔজ্জ্বল্য হারালে পোঁড়া পাতায় ছাঁই ওড়ে কচুরিপানা জন্মে জেনেছি–সব ছাঁইয়ে দৃশ্যমান আভা থাকেনা থাকেনা পুঁড়ে যাওয়ার গন্ধ এমন [ বিস্তারিত ]

চিত্র কাব্য

মাসুদ চয়ন ১ জুলাই ২০১৯, সোমবার, ১১:৫৮:৩৩পূর্বাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য
(ভয়) সাদা মেঘে নীলান্তিকার নীল ছেয়েছে হায় সবুজ পাতার অন্ধকারে ঘোরের রাজ্য ধাই এমন প্রহর আমার জন্য নিয়োগ দিলো কে এমন প্রহর ভয় ধরালো আলোক সীমান্তে। (দহন) চারপাশে আগুনের মতো প্রজ্জ্বলিত আলো’ আমাকে ছুঁয়ে যায় সারাক্ষণ সে আলোয় ভেসে চলেছি যে আলো আমার নয়,তবুও পোঁড়ায়। (ভোরের দেশ) এমন ভোরের দেশে না গিয়েছে যে এমন অনীল [ বিস্তারিত ]

আলো আঁধারে ঘনিষ্ঠ ইতিহাস

মাসুদ চয়ন ২৯ জুন ২০১৯, শনিবার, ০৪:২৩:১৩অপরাহ্ন কবিতা ১৩ মন্তব্য
নেশায় নিমগ্ন হলে পাখিদের চোখ_ ব্যথা পুষে রাখে নরম দেহটি ডানা ঝাঁপটায় নীলচারী চৈঁ-চৈঁ চৈতন্যে নৈবেদ্য সুর বাজে কিছুই বলেনা পাখিরা শুধু দেখে যায় নিথর অনুভব্য ধ্যানে- তখন নেশারত কাব্যরা বুঝতে পারে– পাখিটি মানুষের ইতিহাস বুঝেছে অনেক আগেই মানুষের জীনে পাখি হয়ে জন্ম নিয়ে জেনেছিঃ এই জন্ম মৃত্যুর মতো কালোয় রাঙা চিরকাল পাখিদের মৃত্যু হয়েছে [ বিস্তারিত ]

প্রকৃতির রায়

মাসুদ চয়ন ২৮ জুন ২০১৯, শুক্রবার, ১২:১৫:২৩অপরাহ্ন গল্প ১৩ মন্তব্য
হরিণটি আনন্দে উচ্ছ্বসিত হয়ে উঠলো’ সে খুঁজে পেয়েছে বিস্তৃত তৃণভূমি– রুগ্ন পেটপৃষ্ট ধীরে ধীরে টৈটম্বুর হয়ে উঠলো খেয়ে দেয়ে। চোখে মুখে চিরতরুণ আনন্দ হিল্লোল ফুটলো। একবেলা ছিড়ে ছিড়ে খেয়ে দুপুরের কড়া রোদে এগিয়ে চললো শঙ্খ নদীর তীরে এবার পানি চাই_ তাকে দেখে নিঝুম ঝোঁপ হতে হালুম হুলুম হুংকার ছেড়ে বেড়িয়ে এলো ক্ষুধার্ত বাঘ- হরিণটি ছুটছিলো [ বিস্তারিত ]

স্পর্শ প্রহর

মাসুদ চয়ন ২৬ জুন ২০১৯, বুধবার, ০৯:৫৫:০৯অপরাহ্ন গল্প ২১ মন্তব্য
গ্রামীন পরিবেশ যেনো_ মায়ের স্নেহময় সান্নিধ্য তূল্য। গ্রামের অলি গলি পথ-প্রান্তর,নদী, বাঁশঝাড়, পুকুর,ডোবা সব কিছুতেই আলাদা আলাদা গন্ধ পাওয়া যায়। মায়ের ভালোবাসার নিগুঢ় স্বচ্ছতা অনুভব করা যায়। _তাই কবির কবিতায় গ্রামীণ আবহকে মাতৃ উপমায় বারবার বিশেষিত করা হয়েছে। গ্রামে আসলাম অন্তত ১০ বছর পর। নিজের গ্রাম নয়, পরের গ্রাম। মানে একটা মেয়ের গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছি। [ বিস্তারিত ]

শাখা নদীর কষ্ট কাহন

মাসুদ চয়ন ২২ জুন ২০১৯, শনিবার, ০৯:৫৩:৩৪অপরাহ্ন কবিতা ২৩ মন্তব্য
#শাখা নদীর কষ্ট কাহন” সূর্যোদয় হতে সূর্যাস্তের দূরত্ব ছুঁয়ে দিনের সমস্ত কর্ম আয়োজন শেষ হয়ে যায় সময় স্রোতে ঘন হয় রাত্রিযোগ কেউ কেউ ঘুম খেয়ে নিমগ্ন হয় রাত্রি প্রয়াসে তারা সূর্যাস্তকে অতিক্রম করছে প্রতিবেলা পরিসর নদীর পটভূমে তিনটি শাখা  নদী দৃশ্যমান হলো প্রথম শাখাটি জলে টৈটম্বুর_যে জলে অন্যদ্বয়ের আফসোস ভেসে বেড়াচ্ছে বুনো হাস হয়ে প্যাঁক [ বিস্তারিত ]

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য