জিসান শা ইকরাম

# জাতীয় পতাকা খামছে ধরেছে পুরানো শকুন
# অধ্যাপক ও মাওলানা শব্দের পবিত্রতা বজায় রাখুন। কোন রাজাকারের নামের আগে দয়া করে এই দুটো শব্দ ব্যাবহার করবেন না। রাজাকারদের রাজাকার বলুন।
# প্রিয় উক্তি : তুই রাজাকার
# আমার কথাঃ "হাসি বজায় রাখুন,স্বপ্নকে বাস্তব করুন "
# স্বপ্ন দেখি একদিন আমরা সবাই ভালো থাকবো । মাঝে মাঝে সোনালী রোদ উকি দেয় আমাদের মনের আকাশে। আমরা এই রোদ কে স্থায়ী ভাবে দেখতে চাই আমাদের আকাশে।

  • নিবন্ধন করেছেনঃ ৭ বছর ৩ মাস ২৩ দিন আগে
  • পোস্ট লিখেছেনঃ ৩৩০টি
  • মন্তব্য করেছেনঃ ১৩১৯৭টি
  • মন্তব্য পেয়েছেনঃ ৯৭৮৩টি
প্রিয় পোস্টঃ ৪৮টি
 ** মাত্র দুই বছরের ছোট বড় পিঠাপিঠি ভাইবোন আমরা। বড় হয়েছি একই আলো বাতাসে । ১৯৭১ এর যুদ্ধের দিনগুলোতে ওর ছোট হাত আমার ছোট হাত দিয়ে শক্ত করে ধরে হেটেছি গ্রাম থেকে গ্রাম। শুধু যে আমার ছোট বোন তা নয় – বন্ধুর মতই বড় হয়েছি। আমাদের দুজনের সব কথাই আমরা একে অন্যের কাছে শেয়ার করেছি। [ বিস্তারিত ]
১৯৭১ এর কিছু বীভৎসতা: ১। ২৫ মার্চ থেকে পাকিস্তানিদের ধারাবাহিক ধর্ষণ উন্মত্ততার সঙ্গে মধ্য এপ্রিল থেকে যুক্ত হতে শুরু করে এদেশীয় দোসর রাজাকার, শান্তি কমিটি, আল বদর ও আল শামস্ বাহিনীর সদস্যরা। এরা বিভিন্ন স্থান থেকে নারীদের ধরে আনার পাশাপাশি ধর্ষকে অংশনিয়েছে। প্রত্যেকটি ক্যান্টনমেন্ট, পুলিশ ব্যারাক, স্থায়ী সেনা বাঙ্কার ছাড়াও বিভিন্ন স্কুল কলেজ, সরকারি ভবন [ বিস্তারিত ]
চিঠিটি ৩১ অক্টোবর ২০১০ এ পোস্ট করেছিলাম। এতদিনেও আমার ছোট ভাই চিঠিটি পায়নি। আজ বুঝলাম ভুল ডাকঘরে পোস্ট করা হয়েছিল। আশাকরি এবার চিঠিটি পাবে ও।   স্নেহের রাসেল, আমাদেরকে ছেড়ে যাচ্ছ তুই, ২ বছর তোকে দেখব না- যাবার কয়েকদিন আগ হতে এই ভাবনায় আচ্ছন্ন হয়ে ছিলাম । আব্বা হঠাৎ মারা যাবার পর, তোকে ত পিতৃস্নেহ [ বিস্তারিত ]
দুঃখিত মা , ক্ষমা করে দাও আমাকে । আমি দেখেছি তোমার ৯ মাস ব্যাপি প্রসব বেদনা। তুমি নিজকে নিজে জন্ম দিয়েছ । তারপরেও এই ৪১ বছরে একবারো তোমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানো হয়নি। অথচ কত অকৃতজ্ঞ মানুষকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছি। কত উপহার দিয়েছি জন্মদিনে তাদের। কিন্তু তোমার বেলায়ই আমার এই কৃপণতা । অনেক ঋণ তোমার প্রতি [ বিস্তারিত ]

জিসান শা ইকরাম একজন কৃষক

জিসান শা ইকরাম ১৩ ডিসেম্বর ২০১২, বৃহস্পতিবার, ০৮:৪৩:৫০অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৬ মন্তব্য
জিসান শা ইকরাম একজন কৃষক । তাঁর নিজের জমি নাই । অন্যের জমি চাষ করেন । তিনি মুলত একজন আলু চাষী । আমার একজন পরিচিত শ্নেহের মানুষ আছেন , যিনি একটি সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষক । উনি তাঁর স্কুলের ক্লাস নাইন এর প্রশ্নপত্র এভাবে করলেন , যা হুবহু এখানে দিলাম…                                    T/৯ম/ব্যবসায় পরিচিতি                                 সময়-১৫ [ বিস্তারিত ]
কিছুটা বিপর্যয় । বিপর্যয় তো প্রকৃতিরই অংশ। এর আগেও দুই বার হয়েছিল। ঘুরে দাঁড়িয়েছি আমরা সবার আন্তরিক প্রচেষ্টায়। আমাদেরকে একা চলতে দেননি আপনারা । সবসময় সাথে হেঁটেছেন প্রিয় শুভাকাঙ্ক্ষীরা । এই বিপর্যয়ে ১০ ই নভেম্বর এর পরের পোস্ট গুলো ফিরিয়ে আনা এখনো সম্ভব হয়নি। চেষ্টা চলছে আন্তরিক ভাবে ফিরিয়ে আনার। আমরা আন্তরিক ভাবে দুঃখিত এই [ বিস্তারিত ]
১৯৭১ ২৭ এপ্রিল বিকেল ৫টা। ছোট এবং সমৃদ্ধ শহরের দক্ষিন দিক থেকে হঠাৎ দ্রুম দ্রুম শব্দ। পাকিস্থানী হানাদার বাহিনীর আক্রমণের আশংকায় ২৫ মার্চের পরেই শহরের পশ্চিম পারের গ্রামের বাড়িতে বসবাস আমাদের। ক্লাস ফোর এ পড়ি। প্রস্তুতি নেয়াই ছিল। সারা গ্রামের লোকজন ধীরে ধীরে বাড়ী ছেড়ে বেড় হচ্ছে। আমাদের বাড়ীর সবাই বেড় হতে হতে সন্ধ্যা প্রায়। [ বিস্তারিত ]

মানুষ

জিসান শা ইকরাম ৭ নভেম্বর ২০১২, বুধবার, ১০:৩০:৪৪পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, বিবিধ ১৩ মন্তব্য
মানুষে মানুষে হানাহানি, দ্বন্দ্ব, ব্যাক্তি রেষারেষি , যুদ্ধ ও রক্তপাত এসব দেখে একজন মানুষ হিসেবে ব্যথিত হই খুব। অন্য কোন গ্রহে যদি মানুষ বাস করতো, তা হলে তুলনা করা যেত , আমরা তাদের তুলনায় কতটুকু ভালো বা খারাপ। আমরা আমাদের বুদ্ধি বিবেককে বিসর্জন দিয়ে কোথায় যাচ্ছি ? মনুষত্বের গুন আমাদের মাঝে আমরা কতটা ধারণ করছি [ বিস্তারিত ]

আলো চাই

জিসান শা ইকরাম ৩ নভেম্বর ২০১২, শনিবার, ০৮:৪১:০৫অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি, সমসাময়িক ১৬ মন্তব্য
দৃশ্যপট : ১ ছোট বেলা থেকেই আমরা ঈদ , পূজা , নববর্ষ একসাথে পালন করে এসেছি। দুই ঈদের দিনে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিয়েছি। আমার মুসলমান ও হিন্দু বন্ধুরা বা প্রতিবেশী হিন্দু মুসলমান সবাই একই আনন্দে অংশ গ্রহন করেছি। ঈদের দিন দলবেঁধে আমাদের বাসায় হিন্দু মুসলমান সবাই আসতো। এখনো আমার হিন্দু বন্ধুরা ঈদের দিনে, আমাদের বাসায় [ বিস্তারিত ]

আমার অক্ষমতাগুলো -১

জিসান শা ইকরাম ৩০ অক্টোবর ২০১২, মঙ্গলবার, ০৯:১২:৪০অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩৬ মন্তব্য
নখ কাটা খুব কঠিন একটি কাজ কিছু কিছু বিষয় আমি এখনো পারিনা । আমার যে বয়স তাতে এসব আর শেখারও সময় নেই। নখ কাটা এর মাঝে একটি। এটি যে আমার কাছে কত কঠিন একটি বিষয় , তা বুঝিয়ে বলতে পারাও কঠিন । এই মহা ঝামেলার কাজটি এখন আমার স্ত্রী বহন করছেন । তাঁকে ধন্য করেছি [ বিস্তারিত ]
কিছু কিছু ভাবনা খেলা করে মস্তিস্কে , যা লিখে রাখি সংক্ষেপে বিভিন্ন জায়গায় । ভাবি এসব বিষয়ে বড় করে কিছু লিখবো। পরে তা আর মনে থাকে না। মনে রাখার বিকল্প হিসেবে , ভাবনা গুলোকে এখানে রাখবো , আজ কিছু ফেইসবুকের স্ট্যাটাস এখানে জমা করে রাখছি । অক্টোবর ১৩ , ২০১২ : আমার সোনার বাংলা আমি [ বিস্তারিত ]
সিলেটের লালাখাল । স্বচ্ছ  নীল পানির নদী  , অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য , ৪৫ মিনিটের নৌ ভ্রমণ , প্রকৃতিকে একান্তে অনুভব করতে পারার জন্য স্থানটি বেশ উপযোগী ।  পাহাড়ে ঘন সবুজ গাছ , সব কছু মিলিয়ে এলাকাটি পর্যটকদের কাছে বেশ প্রিয় একটি স্থান। বাংলাদেশের সবোর্চ্চ বৃষ্টিপাতের স্থান এটি। নৌপথে যেতে যেতে যে দিকে চোখ যায় মুগ্ধ [ বিস্তারিত ]
খাসিয়া জৈন্তা পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত সিলেটের জাফলং  সারাদেশে এক নামে পরিচিত । পিয়াইন নদীর তীরে এর অবস্থান ।  সীমান্তের ওপারের পাহাড় টিলা, ডাউকি পাহাড় থেকে অবিরাম ধারায় প্রবাহমান জলপ্রপাত, ডাউকি ব্রীজ, পিয়াইন নদীর স্বচ্ছ  পানি, পাহাড়ে ঘন সবুজ গাছ , সব কছু মিলিয়ে এলাকাটি পর্যটকদের কাছে বেশ প্রিয় একটি স্থান। সিলেট থেকে  বাস , মাইক্রোবাস [ বিস্তারিত ]

বরিশালে স্বাগতম/ চলে আসুন

জিসান শা ইকরাম ৩ অক্টোবর ২০১২, বুধবার, ০৭:৪৭:৪৭অপরাহ্ন ভ্রমণ ১২ মন্তব্য
সাগরঘেঁষা প্রাচীন চন্দ্রদ্বীপ বারবার বর্মি আর পূর্তগিজ জলদস্যুদের অবাধ লুণ্ঠন ক্ষেত্রে পরিণত হওয়ায় শ্রীনগর ( মাধবপাশায় ) চন্দ্রদ্বীপের রাজধানী স্থায়ী ভাবে প্রতিষ্ঠা করেন , চন্দ্রদ্বীপ রাজবংশের কীর্তিমান পুরুষ , রাজা রামচন্দ্র । রাজবাড়ির কিছুই অবশিষ্ট নেই। বেশ কিছু দীঘি যার অধিকাংশই এখন ভড়াট হয়ে গিয়েছে , তা এখন কালের সাক্ষী। রাজবংশের অধিকাংশ সদস্য এবং জমিদারেরা [ বিস্তারিত ]
ছোট বেলায় হুজুর সুর করে পড়াতেন – ইসলাম অর্থ শান্তি এই বড় বেলায় রমজান মাসে মিছিল শুনি রমজানের পবিত্রতা বাজায় রাখতে গিয়ে অথবা বিভিন্ন ইসলামী অনুষ্ঠানে- আমরা চাই আমরা চাই – শান্তি শান্তি !! ফিরে যাই ১৯৭১ এ কিশোর বয়সে— রাজাকারদের নেতৃত্বে ” নারায়ে তাকবীর আল্লাহ হু আকবর ” হুংকার দিয়ে প্রতিদিন কয়েকশত লুটেরা লঞ্চে [ বিস্তারিত ]

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য