বাংলা ১৩৫৮ সালের ৮ই ফালগুন। আমাদের ভাষা শহীদ দিবস। বাংলার কৃষ্টি কালচার ধারন, ঘটা করে বাংলা নববর্ষ পালন। কিন্তু ভাষার বেলায় এই কার্পন্য কেন? এই বাংলা সন তারিখ আমাদের প্রজম্ম কি জানে? অথচ এটাই আমদের মূল শিকর হবার কথা ছিল।আজ ১৯৫২ এর ২১ ফেব্রুয়ারী এটাই সবার কাছে সুপরিচিত।কিন্তু এটা কারো মনে হয় না এটা ইংরেজি ক্যালেন্ডারের হিসাব।বাংলাকে টপকে ইংরেজি কখনো আগে আসতে পারে না। কবি বলেন- একবার আপনারে চিনতে পারলেরে যাবে অচেনারে চেনা। নিজেকেই চিনলাম না ।অচেনাকে আপন করে নিচ্ছি। এটা কি যুক্তি যুক্ত? ইংরেজী আন্তর্জাতিক ভাষা। এটা আমাদের ভাষার পরে আমরা চর্চা করব। আমাদের ভাষাকে পিছনে রেখে নয়।এ কথা সত্য যে  ২১ ফেব্রুয়ারী পালন করা হয়েছে বলেই আজ এই দিনটি  আন্তর্জাতিক দিবস এর মান পেয়েছে। বাংলা ক্যালেন্ডারের হিসেবে পালন করা হলে হয়তো তা এ স্বিকৃতি নাও পেতে পারতো। আমরা কিন্তু কোন কিছু পাওয়ার জন্য নিজের সংস্কৃতিকে ছোট করতে পারি না। ইংরেজি মাস ও তারিখ উচ্চারনে আমার ভাষা কিছুটা হলেও এই ভাষার মাসে ছোট হচ্ছে। আমাদের উদ্দেশ্য কিন্তু এই দিনটিতে ভাষা শহীদদের স্মরন করা । তাদের যে ত্যাগের কারণে স্মরণ করা সেটা যদি পিছনে থাকে তাকি যথার্থ হলো? আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে বেশী দিন হয় নি। কিন্তু ভাষা দিবস পালন হয়ে আসছে তার অনেক আগ থেকে।তখন কি কেউ জানতো এই দিবসটি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হবে? জানতো না। তবে কেন তখন এটা বাংলায় সনে পালন হল না? আজ যুক্তি পেলাম আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সম্মান পেয়েছি। কিন্তু যদি না পেতাম কি উত্তর হতো একটু ভেবে দেখেছেন কি? একুশে ফেব্রুয়ারী মাতৃভাষা দিবস স্বীকৃতি পেয়েছে। ঐদিন অন্যদেশ পালন করুক ভাষা দিবস।যাক মন্দের ভালো অর্জন যেটা হওয়ার হয়ে গেছে।  আমরা ফিরে আসিনা কেন আমাদের উৎস মূলে?  ৮ই ফালগুনকে আমরা কি  এখন ভাষা শহীদ দিবস হিসেবে পালন করতে পারি না? এখনই কিন্তু ভুল সংশোধনের মোক্ষম সময়। ৮ই ফালগুন হোক আমার আপনার সবার মৌলিক চেতনা।

২৬৬জন ১৯১জন
8 Shares

৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য