হয়তো তুমি স্বপ্ন ছিলে

সৌবর্ণ বাঁধন ২৮ জুন ২০২১, সোমবার, ০২:০২:৩৩অপরাহ্ন কবিতা ১২ মন্তব্য

তুমি কি স্বপ্ন ছিলে?
শ্বেতগন্ধী রাজহাঁস যেভাবে টুপ করে মাথা তুলে,
চিরতরে ডুব দেয় কাজল জলের সরোবরে,
একই ঢং এ তুমিও গিয়েছ চলে!
জলে ভাসমান পদ্মের মতো বুদবুদ উড়ে ইতস্তত,
নাড়া দেয় প্রেম গোপন কুঠুরিতে সতত,
তালপাতার সেপাই হয়ে হাত পা ছুড়ছি কতো,
তবু কেন মিলায় না তোমার অস্তিত্বের বুদবুদ?  

স্বপ্নে আমি ডাহুক ছিলাম বিলের জলে,
শালিক ছিলাম তোমার শহরে কাক ডাকা ভোরে,
হঠাত দেখি নীল সায়রে তুমি এলে,
বিলটা একটা সাগর হলো! আমি হলাম শঙ্খচিল!
আকাশ বাড়ির নীল উঠোনে দুঃখগুলো,
হলো বিলীয়মান ধুলার মতো লীন!
তবুও আহ্নিক গতি বুঝল না আমাদের মতিগতি,
দুরন্ত পৃথিবী ঘুরল নিয়মে নিজ অক্ষের উপর,
হয়তো তুমি স্বপ্ন ছিলে! ভোরে তাই বিলীন হলে,
ঠিক মৃত উপগ্রহদের মতোন!   

হয়তো ওটা স্বপ্ন ছিল,
পুন্ড্রের প্রাচীন ঐরাবত জীর্ণ মর্মরের বারান্দায়
ক্ষণকাল থেমেছিল!
সন্ধ্যার আনমনা বাতাস খিলখিল করে হেসেছিল,
তুমি ছায়ার মতো বসেছিলে,  
কয়েক লক্ষ প্রদীপের মাঝে জ্বলছিলে মিটমিট,
যেন স্বর্গোদ্যান থেকে মুক্তি পাওয়া প্রথম অপ্সরী,
প্রাচীন শোকগাথার নায়িকাদের মতো নিশ্চল!
হয়তো স্বপ্ন ছিল তাই,
সমস্ত নিয়ম ভেঙ্গে দাড়িয়েছিলে বারান্দায়,
গল্প বলেছিলে অনর্গল! শুনেছিলে চাতকের মতো!
স্বর্গীয় নিষেধের তোয়াক্কা করোনি!
জানতাম এটা স্বপ্ন স্রেফ! তাই জেগেছিলাম দ্রুত,
তবু মন কেন বিশ্বযুদ্ধের কামানের মতো বিক্ষত?

তারা বলে আমি জেগে আছি,
আমি বলি এখনো গভীর ঘুমেই আছি!
কেউতো জানেনা,
নিদ্রা ও জাগরণের প্রকৃত পার্থক্যটা কি!
স্বর্গ থেকে স্বপ্ন এসে ফিনিক্স পাখির মতো পুড়ে যায়,
অথচ এখনো স্বপ্নের শোকে পাথরের মতো স্থির,
ভাবি তুমি কাশবনের দেশে এসে যাবে ঠিক!
স্বপ্ন কি মাঝে মাঝে এতোটাও বাস্তব হয়?    

২২১জন ২১জন
0 Shares

১২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য