প্রথম আলোর লিংক দিয়েই শুরু করলাম নিজের বক-বকানী……… জানি কেউ পড়বে, কেউ পড়বে না,কেউ চিন্তা মগ্ন হবেন এর সমাধানে , কেউ হবেননা। এ বিষয়ে নিজে কিছু করতে না পারলেও নিজের আবেগটুকু সোনেলায় প্রকাশ করতে পেরে আমি গর্বিত।

তাজনীন গার্মেন্টস আগুন লাগার পর বাংলাদেশের ইতিহাসে আর কালো অধ্যায় ছিল রানা প্লাজার ঘটনা যা এখনও বিচারাধীন…আদৌ মালিক সোহেল রানা গংদের উপযুক্ত বিচার হবে কিনা সন্দেহ আছে। কারন রানা গংরা এদেশের একটি প্রভাবশালী দলের লোক। এ দেশের রাজনিতীর নোংরামীর জন্য বার বার পার পেয়ে যায় এসব অপরাধীরা।

গাজীপুরে পলমল গ্রুপের আসওয়াদ কম্পোজিট নীট ওয়ার একটি কম্পোজিট ফ্যাক্টরীর অগ্নিকান্ডে  সেখান তৎক্ষনাত কর্মকর্তা সহ ৮ জনের লাশ পাওয়া যায় । ঘটনা ঘটতে দেরী টিভিতে টকশো করতে দেরী হয়নি। রাত ভর টকশো ,আলোচনা ,প্রতিবাদ পর্যন্তই সার । এর বাহিরে আমরা আর কিছুই করতে পারিনা। এ যেন দুর্ঘটনা নয় চ্যানেলগুলোর জন্য এক প্রকারের ব্যাবসাও বটে। ভেবেছিলাম রানা প্লাজার ঘটনা আমাদেরকে এ শিল্পের জন্য নতুন উন্নয়নমুলক পথ দেখাবে কিন্তু না ,মানুষ মারা গেলে যেমন চার দিনের খরচের পর অনেকেই ভূলতে বসে তেমনিই হয় এ দেশে । ঘটনার পর ঘটনা যেন চাপা পরে যায় আমরা আর ভূলেও তা মনে করিনা। যতটুকু জানি রানা প্লাজার রানা জেলেও রাজকীয় হালে আছেন। যার জন্য এতগুলোর লোকের অকাল মৃত্যু হল,,নাম না জানা আরো অনেকে বুলডুঝারে ঝড়ে গেলো,যার জন্য পুরো বিশ্বে টনক নড়ে,যার জন্য আমাদের এক মাত্র বেকারত্ব গোচানুর এবং বৈদেশিক আয়ের সবচেয়ে বড় সংস্হা বিলীন হবার পথে সে জেলে এখনও থাকে কি করে ?তার অপরাধ প্রমানে আর কতদিন লাগবে? রাজনিতীবিদদের এখন এ সব নিয়ে ভাববার সময় নেই। এখন সময় কেউ সিংহাসন পেতে কেউ সিংহাসন রক্ষায় ব্যাস্ত। রাজনিতীবিদরা রানা প্লাজার দূর্ঘটনাস্হলটা সৃতিস্বরূপ অন্তত পক্ষে সকল পোষাক শিল্পের কর্মকর্তা আর কর্মচারীদের কল্যানে একটি বহুতল মার্কেটে রূপান্তর করতে পারত।

এখনও সময় আছে এ শিল্পকে এ দেশের বৈদেশিক আয়ের অস্তিত্ত্ব ভেবে তাকে রক্ষা করা-এ শিল্পে জড়িত আছে,,এ দেশের অসংখ্য লেবেল ফ্যাক্টরী, বহু লোকের কর্মসংস্হান ,আছে প্রিন্টিং ব্যাবসা,আছে স্পিনিং,নিটিং,হাজারো আইটেমের লুকাল এ্যাসোসরিসের দোকানের ব্যাবসা।এ শিল্পের ধষ মানে এই সমস্হ ব্যাবসার লাল বাতি জ্বলা এ ব্যাবসার সাথে মালিক এবং কর্মচারীদের ভবিষৎ অনিশ্চিত হওয়া।তাহলে রাজনিতীবিদরা কি উন্নয়ন নিয়ে রাজনিতী করবে?রাষ্ট্র চালাবে কিসের উপর ভিত্তি করে?বেকার সমস্যা চলে যাবে ‘৯০ এর আগের যুগে।

যদি সময় থাকতে বায়ারদের আকৃষ্ট করতে না পারি তবে নিশ্চিত এ দেশে আর একটি হবে রায়েট……….কারন আমাদের আর কোন এমন কর্মসংস্হান যোগান দেয়া কিংবা বৈদেশিক আয়ের আর কোন সংস্হা অবশিষ্ট নেই কিংবা হবে বলে মনে হয় না।

 

 

 

 

২১২জন ২১২জন
0 Shares

৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য