স্ব রচিত তিনটি কবিতা

নাজমুল হুদা ১২ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১২:৩৯:০৭অপরাহ্ন কবিতা ১৭ মন্তব্য

(০১)

শব্দের গোলটেবিল

হঠাৎ বাংলার তিন শব্দ এক জরুরি গোলটেবিলে;

খতিয়ে দেখা বললো-
সুশীল গলায় আমার না এখন বিষণ কদর
কথায়,ব্যথায় দিচ্ছে জামাই বাড়ির আদর

তদন্ত ব্যঙ্গ করে বললো-
পড়েছি তো জামাই আদুরীতন্ত্র
চাচা আপন প্রাণ বাঁচা- নীতির নাই অন্ত
স্ব-দোষে হৃষ্টপুষ্ট
ইঁদুরের গর্তে সাপ রেখে- তবুও চালায় যন্ত্র

বহিঃস্কার রেগে গিয়ে বললো-
থামাও তো গলা হেঁচকির মন্ত্র
দুধে আলতা রূপে তোমরা- আহা! কি পরিষ্কার
না থাকিলে তিন সদস্য
ওরাও মাঠেই মারা খেত- ভাবছো কি একবার?

(০২)

বলছি কাঁচের বয়াম

বাষ্পীয় ভাবনা আর বাস্তবতাকে মিলিয়ে
আমাকে যারা আলাদীনের সব প্রশ্ন করো
তোমরাই মানুষের সচিত্রে রসহীন মানুষ জানো।

ভালো লাগা আর অনিয়মের দেয়াল তুলে
আমাকে যারা শুনাও ভবিষ্যতের হুঁশিয়ারি
তোমরাই জাতের পাল্লায় অযোগ্য মানুষ খোঁজো ।

চুক্তিতে আর কর্কশ বুদ্ধিতে শর্ত ঝুলিয়ে
আমাকে যারা ভালোবাসো বলে উঠে আসো
তোমরাই মিনিট কার্ডে প্রেম ঘষে প্রেমিক ভুলো।

সুদিন আর দুর্দিন বলছি কাঁচের বয়ামে;
না জেনেই যারা আমাকে অস্পর্শ জখম করো
তোমরাই হাতে ধরা যোগ বিয়োগে প্রেমিক চুষো।

(০৩)

অনুবাদ বন্ধ থাকুক

কাম-বাসনার সঙ্গী না হোক, কেউ অন্তত আমাকে
জিজ্ঞেস করুক : ‘তোমার চোখ এতো লাল কেন?’
পড়শি কবি গুণের এই কবিতার মতো কেউ
না বললেও, এখন জিজ্ঞেস করে আমাকে
চেনা অচেনা মানুষটি
রাস্তায় স্কুল পড়ুয়া পরিপাটি শিশুটি
প্রেমিকের শাসন পালানো অবুঝ প্রেমিকাটি
-আপনার চোখে হঠাৎ করে ব্যান্ডেজ কেন?

সবাইকে না বললেও মনে মনে বলে দেই
চোখে চোখ গেঁথে চোখের অনুবাদ বন্ধ থাকুক।

নেত্রকোনা, ময়মনসিংহ।

১৫১জন ২৬জন
42 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য