স্বামী

মাছুম হাবিবী ২৬ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, ১২:২৩:২৩পূর্বাহ্ন গল্প ২৩ মন্তব্য

আজ আরিফের বিয়ে! চারিদিকে সানাইয়ের সুর, হৈহুল্লোড়ে কেঁপে উঠছে বাড়ির উঠুন। পছন্দের প্রেয়সী শেলির সাথেই আরিফের বিয়ে হচ্ছে। আরিফ আর শেলির পরিবার খুব সহজেই মেনে নিয়েছে তাদের সম্পর্কটা। ভার্সিটির প্রথম থেকেই শেলির জন্য উন্মাদ ছিল আরিফ। একটু ভদ্র টাইপের ভীষণ লাজুক ছেলে। বন্ধুদের দ্বারাই প্রেম অবধি পৌছে ছিল অারিফের ভালো লাগাটা। আরিফ খুব ভালো ছেলে। বর্তমানে সে একটি বেসরকারি ক্ষুদ্র ব্যাংকে ম্যানেজার হিসাবে জব করছে। মাসে মোটা অংকের টাকা দিনশেষে পরিবারের মুখে হাসি সবকিছুই ঠিকঠাক।

 

খুব ধুমধামের সাথে আরিফ আর শেলির বিয়ে হয়। শেলির পুরো নাম হেলেনা আক্তার শেলি, একটু দুষ্টু টাইপের হলেও কথায় কথায় হুহু করে হেসে উঠা তার কাজ। অারিফ মূলত শেলির তুলতুলে দুষ্টুমি আর হাসির প্রেমেই পড়েছিল। শেলি আজ খুব খুশি, পছন্দের মানুষের সাথে বিয়ে হলে সব মেয়েরাই খুশি থাকে এটাই স্বভাবিক। শেলির গায়ে অনেক গয়না! হাতে গোল্ডের চুড়ি, গলায় চকচকে নেকলেস। দেখতে একদম ফুলপরীর মত লাগছে শেলিকে।

 

আরিফ বাসর ঘরে ঢুকে প্রথমে মুচকি হেসে শেলির পাশে বসলো! কি এক অজানা লজ্জায় ছুঁতে পারছেনা শেলিকে। এদিকে শেলিও আরিফের হাবাগোবা ভাব দেখে মিটমিট করে হাসছে। দুজনই লজ্জায় গোল পাতা হয়ে গেছে আজ! তার কিছুক্ষণ পর আরিফ গলা কাশি দিয়ে শেলির হাত ধরে। আরিফ শেলির হাত ধরতেই শেলি কেঁদে উঠে। আরিফ অবাক হয়ে জিজ্ঞাস করে আরে বাবা কাঁদছো কেন? কি হয়েছে তোমার? আজতো আমাদের সুখের দিন। শেলি অারিফকে জড়িয়ে ধরে বলে আমি সুখেই কাঁদছি। কোনোদিন ভাবিনি এতটা সহজে তোমাকে পাব। আরিফ একটু কুঁচ হেসে বলে হয়েছে ঢং করতে হবেনা এবার একটু ভালোবাসো!

 

অারিফের কথা শুনে শেলি হাই তুলতে তুলতে বলে ‘একদম হবে নাহ আগে শর্ত পূরণ করো তারপর আদর, ভালোবাসা। আরিফ চিন্তিত হয় বলে কিসের শর্ত শুনি। শেলি আরিফের হাতে চিমটি কেটে বলে বিয়ের অাগে যে বলেছিলে বাসর রাতে ইস্পেশাল গ্রিপ্ট দিবে সেটা কই? আরিফ এবার হেসেই দিল! হেসে’ হেসে বলে তোমার এখনো মনে অাছে সে কথা? অামিতো ভুলেই গেছি প্রায় কি গ্রিপ্ট দিব। তারপর আরিফ আস্তে করে পকেট থেকে এক জোড়া দুল বের করে। দুলদুটি শেলি হাতে দিতেই শেলি চমকে উঠে আরে এটাতো ডাইমন্ড রিং তুমি এটা কোথা থেকে আনলে? আরিফ ঠোঁট বাঁকিয়ে বলে চোরি করে এনেছি হাহাহা…! শেলি রেগে বলে ঢং করবা না, বলো কোথা থেকে এনেছো? আরিফ শেলির চোখের দিকে তাকিয়ে বলে ‘যেদিন তোমার হাত ধরে বলেছিলাম বিয়ের পর বাসর রাতে তোমাকে ইস্পেশাল গ্রিপ্ট দিব সেদিন থেকে টাকা জমিয়ে এটা কিনেছি। আরিফের কথা শোনে শেলি আরিফকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরে। তারপর চোখের পানি ছেড়ে দিয়ে বলে তুমি শুধু আমার!  বড্ড ভালোবাসি এই গাধাটাকে।

২য় পর্বের জন্য অপেক্ষা করুন।

১৪২জন ৩১জন
5 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য