স্বর্গীয় নিঃসঙ্গতা

সাবিনা ইয়াসমিন ২ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১১:৪৯:১৬অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৩১ মন্তব্য

আজকের মতো সব কাজ শেষ করে বিছানায় যখন এলো, রাত প্রায় দেড়টা বাজে। মোবাইলটা হাতে নিয়ে ঢুকলো ফেসবুকে। ক্রল করে নিউজফিডটা দেখছে/ পড়ছে। দেখার মতো কিছুই নেই। একই জিনিস নিয়ে সবাই মেতে আছে। কেউ পক্ষে, কেউ বিপক্ষে লিখে পোস্ট দিয়েছে। বিরক্ত লাগছে এসব দেখে। ঘুম আসছেনা, মেসেঞ্জারে সবুজ বাতিটা জ্বলজ্বল করছে! কি করছে সে এতো রাত জেগে!! ভাবতে ভাবতেই নক করে বসলো কোনো কিছু না ভেবেই।

– কি করছো এতো রাত জেগে?
= একটু কাজ করছি। কেন?
– ভাল্লাগছে না, একটু কথা বলি?
= আচ্ছা।

তারপর আর কোনো সাড়াশব্দ নেই। কি হলো, অন্যকারো সাথে চ্যাট করছে নাকি! নাকি আমি তাকে বিরক্ত করলাম। রিপ্লাই দেখেতো মনে হচ্ছেনা বিরক্ত হয়েছে।

– চুপ কেন? কিছু বলো
= কথা বলতে চাইলে তুমি! আমি কি বলবো?
– ওহ! তাইতো! আসলে কি বলবো ভেবে পাচ্ছি না।
= মন খারাপ?
– হ্যা
= বলতে পারো। শুনছি
অনেক কথা বলার আছে। কাউকে বলতে ইচ্ছে করছে। কিন্তু শোনার মতো বিশ্বাসযোগ্য কেউ নেই। আজ কেউ শুনতে চাচ্ছে কিন্তু কেন জানি বলা হচ্ছে না।

– জানো, আমি একজনকে ভালবেসেছি। খুউউব ভালবাসা যাকে বলে, ঠিক তেমনি করে।
= বাহ! খুব ভালো। তারপর?
– সেও বাসে,
= তাহলে সমস্যা কোথায়?
– জানিনা কোথায়। সেও ভালবেসেছে বুঝতে পারি। কিন্তু তারটা আমার মন অতিক্রম করে হৃদয় পর্যন্ত পৌঁছায় না। অসম্পূর্ণ লাগে।

– তাকে জানিয়েছো?
= হুম, জানিয়েছি। যা যা মনেহয় সব বলেছি।
– তারপর?

= সে এটাকে অন্যভাবে নিলো। সবকথা তাকে বলতেই সে জানিয়ে দিলো এগুলো মিথ্যা অভিযোগ। যা ভাবছি তার কোনো ভিত্তি নেই। আমি নাকি এসব বলে তাকে অপমান করছি।

– তুমি কি বলেছো?
= বলেছি, আমি আমার অসহায়ত্ব প্রকাশ করছি। অভিযোগ নয়। আমি তাকে ভালবেসেছি নিজের সমস্ত স্বত্বা দিয়ে। সেও বাসে, সম্পূর্ণ নাহোক কিছুটা অবশ্যই।
আমি সেটুকুই অনুভব করতে চাই।

– সে তোমায় তিরস্কার করেছে?
= আমি ভালবাসতে চাই একজনকে, একটা মানুষকে। অনুভূতি সম্পন্ন মানুষ। যার মন থাকবে, অনুভব-উপলব্ধি থাকবে। সম্পূর্ণ সততায় যে নিজেকে প্রকাশ করবে।

– এমন মানুষ কোথায় পাবে?
= কোথাও পাবো না বলছো? তুমি, তুমিতো আমাকে বুঝতে পারো। তুমি কি আমার আপন হবে? জমানো যত প্রেম সবটাই তুমি নিয়ে নাও। বিনিময়ে কিছু দিতে হবেনা। ভালবাসো আর না বাসো, শুধু সৎ থেকো।

– আমি!
= বিশ্বাস করো, আমার স্বর্গে যাবার কোনো তাড়া নেই, তুমি পাশে থাকলে আমি ইহজনমেই স্বর্গের সুখ পাবো।

সবুজ বাতিটা নিভে গেছে অনেকক্ষণ হলো। চারিদিকে নিস্তব্ধ নীরবতা। এখনো জেগে আছি , রিপ্লাই পাওয়া অক্ষর গুলো নিয়ে। অনেকদিন ধরে বন্ধ থাকা মনের দরজাটা খুলে গেছে দমকা হাওয়ায়। হুহু করে ভেতরে ঢুকছে শীতল হাওয়া। ব্যাথারা পালাচ্ছে…

– যদি ভালো থাকতে চাও, নিজেকে ভালোবাসো। যতদিন অন্যের মাঝে সুখ খুঁজবে ততোদিন তুমি একা থাকবে। একাকীত্ব তোমায় ধ্বংস করে দিবে। বন্ধু যদি হতেই চাও নিজেকে করে নাও। ভালবাসো নিজেকে। নিজেতে মগ্ন হও সর্বাত্মক রুপে। যেখানেই যাবে নিজের ছাঁয়াটিকেই আপন পাবে।

= এতো দেরিতে কেন এলে? আরও আগে এলে আমি তোমায় দিতে পারতাম হৃদয়ের সমস্ত বিশুদ্ধতা।

দেখতে দেখতে দিনগুলো কেমন পার হয়ে যাচ্ছে। বাড়ছে দূরুত্ব। সরকারের বেধে দেয়া নিয়মে নয়, সময়ের সাথে সাথে সময়ের নিয়মে। সময়ের আবর্তন খুব অদ্ভুত ভাবে সব পরিবর্তনের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। অপেক্ষারা বুঝে নেবার আগেই পরিবর্তনের ছাঁপ রেখে যায় চলার পথে।

★ছবি-নেট থেকে।

৪৭৭জন ৫৩জন
194 Shares

৩১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য