স্বপ্ন

রিমি রুম্মান ৮ ডিসেম্বর ২০১৩, রবিবার, ১১:৪৭:২৩পূর্বাহ্ন কবিতা ১৯ মন্তব্য

চলন্ত গাড়িতে সেই পড়ন্ত বিকেলে___
শীতে কুঁকড়ে থাকা দেহে চাদর জড়িয়ে
পিছনে ফেলে আসা দু’টো দিন নির্ঘুম ছিল যে
গাড়ীর কাঁচ ভেদ করে দৃষ্টিসীমা দূরের আকাশে
সীমাহীন নীলের অনেকটা নীচ দিয়ে কিছু উড়ে গেল বুঝি
হয়তো ধবল বক নয়তো নীড়ে ফেরা পাখি
শীতল সাগরের বুকে বিলাসী ঢেউয়ের জলরাশি
হয়তো তলদেশে শৈবাল, প্রবাল আর মাছদের মিতালী
গাঢ় সবুজে ছেয়ে আছে বিস্তীর্ণ মায়াবী অরণ্য
পাহাড়ে পাহাড়ে ছোঁওয়া-ছোঁয়ি, সবুজে সবুজে মাখামাখি
চড়াই-উতরাই পাহাড় ডিঙিয়ে পিচ ঢালা পথে
অবশেষে যান্ত্রিক লোকালয়ে, দূষিত শব্দের কোলাহলে
আচমকা এইদিকটায় কিছু নিক্ষিপ্ত হল বুঝি__!
নিমেষেই দাউদাউ করে জ্বলছে গাড়ী, জ্বলছি আমি এবং আমরা
আগুন পোড়া দেহ আমার, নিথর নির্লিপ্ত কর্নিয়া
অন্ধকার ধোঁয়াটে গহব্বর, শুকিয়ে আসে শ্বাসনালী
বিরান প্রান্তরের তৃষ্ণার্ত মানুষের হাহাকার যেন
আহ্‌! পানি, পানি, একফোঁটা পানি……
ওঠো ওঠো… কেউ ডাকলো বুঝি !
জেগে উঠি, চোখ মেলি, আবিস্কার করি
বাড়ির সামনেই পার্কিং স্পেসে গাড়ী
ঘড়িতে তখন রাত্রি তিনটা বাজতে পাঁচ মিনিট বাকী।

১৫৯জন ১৫৯জন
0 Shares

১৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য