স্বপ্ননদী, তোমাকে…

মর্তুজা হাসান সৈকত ২৭ আগস্ট ২০১৩, মঙ্গলবার, ০১:৪৭:৩৭পূর্বাহ্ন কবিতা, সাহিত্য ২১ মন্তব্য

এ জন্মটা তোমাকেই উৎসর্গ করেছি, করেছি জন্মাধিক সত্যি প্রিয়
ভালোলাগা ভালোবাসায় । হৃদয়ের কাছে শাদা নীলমনি ফুল,
অনুভবে ফুটেছো তুমি সমস্ত আবেগ মিশিয়ে । আগামী কোনো
জন্মে মনুষ্যজন্ম পেলে তোমার অভাবিত সুন্দরকে প্রদক্ষিন করার
বরই চেয়ে নেবো আমি ; মঞ্জুরিত বসন্তদিন বরাদ্দ নাও হয় যদি ।

কী চাইবে তুমি ? মৃণালের শীর্ষে পদ্ম নাকি শতবর্ষী গোলাপ কোনো ?
হেঁটে হেঁটে আমি পৃথিবীর শেষ অব্দিই যাব, যদি চাও ;
উজ্জ্বল আর ঝলমলে মুঠো মুঠো মুক্তোয় ভরিয়ে দেবো চলার পথ
তোমার । এ জন্মের ভালোবাসাময় হাজার রাত কিংবা শীতরাত্রির
জানালায় শার্সিটা হব । মুহূর্তেই সবচে অন্ধকার রূপান্তরিত হলে গুচ্ছ
গুচ্ছ পুষ্পিত স্বর্গে, শতাব্দীর পর শতাব্দী হৃদয়জুড়ে নড়বোনা একতিলও !

জানিতো ঊনিশ বসন্তের উঠোনে তুমি লজ্জাবতী লতা এক, অপরাজিতা
নীল, টুকটুকে লাল ফুল । দিগন্তের রাঙা মেঘ, সূর্যের জ্যোতির্ময়তা ।
একবার তোমাকে জড়িয়ে ধরে, একবার তোমার ঠোঁটে রক্তিম চুম্বন
এঁকে অজস্রজন্মও তোমার অপেক্ষায় কাটিয়ে দিতে পারি,
তোমার উদ্দেশ্য গোলাপের পাপড়ি হয়ে ছড়িয়ে পড়তে পারি চলার পথে ।

এক জন্মের পুণ্যে এ জন্মে তোমাকে না পেলে, তোমার সুন্দর প্রদক্ষিণের
সুযোগ না পেলেও, জেনো, দিন, সপ্তাহ, মাস, বছর, শতাব্দী পুরোটা এক
মর্মান্তিক দীর্ঘশ্বাস বুকে জড়িয়ে, সম্পূর্ণ জন্মটা, তোমার ফিরে আসা পথের
উদ্দেশ্যে চেয়ে থেকে থেকে টলমল অশ্রুবিন্দুর মত ঝরে যাব একদিন, ঝরে যাব
আগামীর কোনো এক মনুষ্যজন্মে তোমার সুন্দরকে প্রদক্ষিণ করার অভিপ্রায়ে !

১৮১জন ১৮১জন
0 Shares

২১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য