সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

সোনেলা বিজ্ঞপ্তি

সাবিনা ইয়াসমিন ২৩ আগস্ট ২০২১, সোমবার, ১১:০৩:৪১অপরাহ্ন সোনেলা বার্তা ৩৮ মন্তব্য

 

সোনেলা ব্লগ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সুন্দর/সুস্থ মানসিকতার লেখকদের জন্য। যারা নিরিবিলি পরিবেশে এবং অন্যান্য ব্লগারদের সাথে আন্তরিক আবহে নিজেদের প্রতিভার স্ফূরণ ঘটাবেন। যেখানে কোনো ব্যক্তি আক্রমন, দলাদলি, কোন্দল থাকবে না। মত প্রকাশের স্বাধীনতার নামে অশ্লীলতার প্রকাশ হবে না।

সোনেলায় আমরা তেমনই অগুনতি ব্লগার পেয়েছি, পাচ্ছিও। সুন্দর মানসিকতার সাথে বিপরীত চিন্তার লোক থাকবে এটাও স্বাভাবিক। সোনেলাতেও হয়ত তেমন আছে। তবে ইতোপূর্বে ব্লগারদের মনে যাই থাকুক, সবাই এখানে একটি পরিবারের মত সোনেলার উঠোনে বিচরণ করেছি, করবো ও।

ইদানীং সোনেলায় সুন্দর পরিবেশের সাথে অসুন্দরের কিছু কার্যকলাপ ব্লগ টিম এর দৃষ্টি গোচর হয়েছে। এতে সোনেলার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। তাদের কার্যকলাপে সোনেলা ব্লগকে হাস্যস্পদ ব্লগে পরিণত করার প্রয়াস লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এই অবস্থাকে আর চলতে দেয়া যায় না। সোনেলার ভাবমূর্তি যাদের কারণে ক্ষুণ্ণ হচ্ছে তাদেরকে থামানো জরুরী হয়ে পড়েছে।

ব্লগে এমন কিছু লেখকদের দেখতে পাওয়া যাচ্ছে যারা তাদের লেখা কেউ পড়ছে কিনা সেটাও হয়তো ঠিকমতো জানেন না, অথচ তারা রিফ্রেশ দিয়ে/ বিভিন্ন সফটের সহায়তা নিয়ে নিজেদের সহ অন্যদের পোস্ট গুলো শীর্ষে রাখার চেষ্টা চালাচ্ছেন। সে/তারা বুঝার চেষ্টাও করছেন না এটা একটা অসুস্থ মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ ছাড়া আর কিছুই না। এতে লেখকদের লেখাগুলোর অবমূল্যায়ন করা হচ্ছে। লেখকরা প্রতারিত হচ্ছেন।

সোনেলা ব্লগ টিম কিন্তু জানে যে কোন কোন লেখা বারবার রিফ্রেস দিয়ে শীর্ষ পঠিত লেখার স্থানে নিয়ে আসেন। আমরা জানি কে কে এই কাজটি করছেন। ব্লগারদের সন্মানে কথা ভেবে আমরা নাম প্রকাশ করছি না। তবে সোনেলা ব্লগ টিমের এই উদারতা কেউ যেন দুর্বলতা না ভাবে। ভবিষ্যতে যদি এমন করা হয়, তবে ব্লগ টিম অবশ্যই তাদের নাম প্রমাণ সহ প্রকাশ করবে।

সোনেলা ব্লগ এবং এর ব্লগারদের স্বার্থে সোনেলা কর্তৃপক্ষ এই বিষয়টির অবসান ঘটাতে কিছু পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে।
১। আপাতত সপ্তাহের আলোচিত লেখার অপশনটা বাদ দিয়ে দেয়া হবে।
২। পোস্টে রেটিং পদ্ধতি যুক্ত করা হবে।
৩। পরবর্তী সপ্তাহের প্রথম দিনে বিগত সপ্তাহের সর্বোচচ রেটিং প্রাপ্ত পোষ্ট নিয়ে বিশ্লেষণ মুলক রিভিউ পোষ্ট দেয়া হবে।

উপরোক্ত পদক্ষেপের বিষয়ে ব্লগারদের সুচিন্তিত মতামত আশা করছি।

শুভ ব্লগিং।

৪৫৭জন ৩২জন
0 Shares

৩৮টি মন্তব্য

  • আরজু মুক্তা

    ১) ভালো হয়েছে। এখন কারও মন খারাপ হবে না। অসুস্থ মানসিকতার অবসান হবে।
    ২) রেটিং পদ্ধতি কেমনে করা হবে?
    ৩) এবং এই রেটিং পদ্ধতি নিয়ে রিভিউ কারা দিবে?
    ৪) শেয়ার কতোবার হলো, এটা অনেকের দেখা যায়। অনেকের দেখা যায় না। এটা নিয়েও অনেকে কথা বলে।
    আশা করছি, ব্লগটিম তাদের সুচিন্তিত মতামত জানাবেন যাতে লেখকরা উপকৃত হন।
    সোনেলা তার নিজস্ব ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এগিয়ে যাক। শুভ ব্লগিং।

    • সাবিনা ইয়াসমিন

      2, প্রতিটি লেখার নীচে পাঁচ পয়েন্ট থাকবে। একজন পাঠক লেখার মান অনুযায়ী যে কোনো একটি পয়েন্ট দেবে। পাঠক ইচ্ছে করলে রেটিং না ও দিতে পারেন।

      3. ব্লগের মডারেটর, সোনেলা গ্রুপের এডমিন, মডারেটরগন রিভিউ পোস্ট দেবেন। অন্য ব্লগারগনও ইচ্ছে করলে রিভিউ দিতে পারবেন। একই লেখার একাধিক রিভিউ হতে পারে।

      4. শেয়ার কাউন্টিং এর সমস্যা নিয়ে কাজ চলছে।

      অসুস্থ প্রতিযোগিতা/মানসিকতার অবসান হোক।
      ১.৩ এর জন্য ব্লগারদের নিয়ে আলোচনা সাপেক্ষে কাজ করা হবে।
      আগে সকল ব্লগারদের মতামত জানতে চাচ্ছি।

      সোনেলার সাথে থাকুন।
      শুভ ব্লগিং।

  • বন্যা লিপি

    অনেকদিন অপেক্ষা করছিলাম এমন এক পোষ্টের। আপনাকে ধন্যবাদ। সপ্তাহের রেটিং পদ্ধতিটা পছন্দ হয়েছে। রিভিউ পোষ্ট হলে লেখকদের লেখা নিয়ে আলোচনা করার এবং মানোন্নয়নে সুবিধা হবে বলে মনে করি।অত্যন্ত সময়োপযোগী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে মনে করি আমি।

    • সাবিনা ইয়াসমিন

      সুমতামতের জন্য আপনাকেও ধন্যবাদ প্রিয় ব্লগার।
      সোনেলার সাথে থাকুন।

      পোস্ট আমরা তিনটি সিদ্ধান্ত জানিয়েছি। ২ এবং ৩ নিয়ে আপনার বক্তব্য জানা গেলো।

      ১। আপাতত সপ্তাহের আলোচিত লেখার অপশনটা বাদ দিয়ে দেয়া হবে। ( এটার পক্ষে/বিপক্ষে কিছু বলার থাকলে বলতে পারেন)

      শুভ ব্লগিং।

      • বন্যা লিপি

        আমার মতামত দিতে আমি দ্বিধা করছি। রিফ্রেশিং করাটা বন্ধ করা যেতে পারলে ভালো হয়। নইলে রেটিং পদ্ধতিও দুর্নীতির (চোরামি) আওতায় চলে যেতে পারে( এটা আমার নিজস্ব ভাবনা) সপ্তাহের আলোচিত পোষ্টেী যে মহা গুটিবাজি হয়!! সেতো দেখতেই পাচ্ছি। এই ব্যাপারে আমি লক্ষ করে আসছি অনেক আগে থেকে, আমার প্রশ্ন….. এটা কি করে সম্ভব একাধারে??? এই অপশনটার রিফ্রেশিং দেয়া বন্ধ করা যায় কিনা চেষ্টা করা যেতে পারে। রেটিং সিস্টেম ও মুখ চেনা, স্বজনপ্রিতী, বেশি খাতির, এইসবের আওতায় চলে যাবে বলে আমার সন্দেহ আছে।

        আপনার লেখা অনুযায়ী ‘ সুন্দর মানসিকতার সাথে বিপরীত চিন্তার লোক থাকবে এটাও স্বাভাবিক। সোনেলাতেও হয়ত তেমন আছে। ‘ হয়তো বলছিনা, অবশ্যই আছে। সব জায়গাতেই থাকে/থাকবে। আমরা মানুষ তো! সপ্তাহের আলোচিত লেখা অপশন বাদ দিয়ে রেটিং পদ্ধতি আপাতত চালু করে পরিস্থিতী পর্যবেক্ষণ করে দেখা যেতে পারে।

  • রেজওয়ানা কবির

    ধন্যবাদ সুন্দর সিদ্ধান্তের জন্য সোনেলাকে। আসলে আমি অন্য কারো কথা জানি না আমার নিজের কথাই বলি সোনেলায় লিখি মনের খোরাক মেটানোর জন্য আর অন্যদের মন্তব্যে নিজের লেখায় গ্যাপটা পুরোনের চেষ্টা করি। তবে কিছু লেখা নিজেরই স্যাটিসফাইড অথচ সপ্তাহের আলোচিত লেখায় একদমই থাকে না। এটাতে আগে অতকিছু মনে হতো না কিন্তু ইদানীং যখন দেখি যে লেখাটির যোগ্যতা থাকে সেটাও নেই তখন নিজেই লেখার আগ্রহ হারিয়ে ফেলি। তবে যেইহোক না কেন সবার সবার লেখাকে সম্মান করা উচিত। কারন আমরা কেউ কারো মত না। আমাদের প্রত্যেকের লেখায় ও নিজস্বতাও আছে তাই সবাই হুমায়ুন আহমেদ না। তাই কেউ জাফর ইকবাল আবার কেউবা সমরেশ মজুমদার। সবসময় নিজের সাথে নিজেরই কমপিটিশন করা উচিত এতে করে নিজের উন্নয়ন সম্ভব বলে আমি মনে করি। যদিও আমি খুবই ক্ষুদ্র একজন মানুষ এসব ভুল ও বলতে পারি। শুধুমাত্র আমার ভাবটা প্রকাশ করলাম। তবে হ্যা সোনলার এদিকে খেয়াল রাখা উচিত যে লেখক যেন তার লেখার আগ্রহ এইসব অযাচিত বিষয়ের জন্য হারিয়ে না যায় এইটুকুই অনুরোধ। কারন বেসিকালি আমার সোনেলার কিছু মানুষের লেখা পড়তে অতিরিক্ত ভালো লাগে তাই সোনেলায় আসি শুধু নিজের লেখার জন্য না পড়ার ও জন্য । আসুন সোনলায় সবাই সবার পাশে থাকি, সবাইকে ভালোবাসি, ভালো ভালো লেখা পড়ি আর ভালোকিছু শিখি এই কামনা।

    • রিতু জাহান

      আপু, চমৎকার কথা বলেছেন। নিজের মনের খোরাকই বড় কথা।
      আমি কোনোদিন লাইক কমেন্ট দেখি না লিখে।
      আমার স্কুল, কলেজ গ্রুপ ফ্রেন্ড ত্রিশ হাজার,, ওখানে পর্যন্ত আমি কম লিখি। যারা লেখে সবাই আমার পরিচিত।
      আমার নিজের ফেবু ওয়ালে আমি খুব কম ফ্রেন্ড রাখি।
      লেখার ব্যাপারে তো আমি আরো আনাড়ি। আগে হিমেল (কবি হিমেল বরকত) দাদাভাই লেখা প্রকাশ করে দিতো।
      আজ আমার দাদাভাই নেই। চলে গেছে ওপারে। দাদাভাই, আমাকে বলতো লিখে যাবে আপনার জন্য।
      শব্দ নিয়ে কাজ করতে তাই ভালো লাগে।
      তবে আমার ইগো প্রবলেম আছে,,, কারো ভাব নিতে পারি না লেখার জগতে।
      আমি অমায়িক হব যতোক্ষণ সে আমার সাথে অমায়িক।

    • সাবিনা ইয়াসমিন

      প্রতিটি লেখক তার নিজের মতো করে ভাবেন, লেখেন। সবাই সবার মতো করে লিখবে এমন ভাবা ঠিক নয়। একজন লেখক অনেক পরিশ্রম করেন তার লেখায়। সোনেলার কাছে তার সকল ব্লগার সম্মানিত, তাদের পোস্ট গুলো মুল্যবান।
      সোনেলা ব্লগ কতৃপক্ষ কখনোই চাইবে না অঅনাকাঙ্ক্ষিত কোন কারনে কোন ব্লগার এখান থেকে হারিয়ে যাক।

      পোস্টে আমরা তিনটি বিষয়ের উপর ব্লগারদের মতামত জানতে চেয়েছি। কমেন্টে আপনার মতামত দিন প্লিজ।

      ১। আপাতত সপ্তাহের আলোচিত লেখার অপশনটা বাদ দিয়ে দেয়া হবে। ( এটার পক্ষে/বিপক্ষে কিছু বলার থাকলে বলতে পারেন)
      ২। পোষ্টে রেটিং পদ্ধতি যুক্ত করা হবে।
      ৩। পরবর্তী সপ্তাহের প্রথম দিনে বিগত সপ্তাহের সর্বোচচ রেটিং প্রাপ্ত পোষ্ট নিয়ে বিশ্লেষণ মুলক রিভিউ পোষ্ট দেয়া হবে।

      • রেজওয়ানা কবির

        রেটিং অপশনটা ভালো লেগেছে। এতে করে লেখক নিজেকে উন্নয়নের সুযোগ পাবে।
        আর রিভিউ পোস্ট ব্যাপারটাও ভালো লাগল এতে করে অন্তত লেখক পাঠক উভয়ের জন্যই ভালো। সোনেলার এই ডিশিসানের সাথে আছি এটুকুই বলা।

  • রিতু জাহান

    হা হা,,,স্যরি হাসার জন্য। ব্লগিং আর ফেসবুক জগতে এমন সব ব্যক্তিত্বহীনদের দেখলে আমার হাসি আসে,,
    আমি আভিজাত ব্যক্তিত্ব বলে একটা কথা বিশ্বাস করি।
    ব্লগিং জগতে অনেক কিছু দেখেছি এ পর্যন্ত।
    প্রতিযোগিতা নিয়েও দেখেছি।
    সে সব কথা থাক।
    ভাইয়াও জানে,,,
    তো,, কিছু লেখা শীর্ষে দেখে আমিও ভেবেছিলাম পাঠকের রুচি আছে বটে!!
    একটা তথ্যবহুল লেখা যাকে আমরা প্রবন্ধ বা গবেষণা মুলক লেখা বলি তা যখন একদম নীচে থাকে তখনও আমার হাসি আসে।
    রেটিং সিস্টেমটা ভালো। আর হ্যাঁ,,, রিতু জাহানের একটা লেখা হঠাৎ উপরে শীর্ষে দেখে আমি বিস্মিত!!

    • সাবিনা ইয়াসমিন

      অনুগ্রহ করে বিস্তারিত কমেন্ট দিন মহারাজ।

      ১। আপাতত সপ্তাহের আলোচিত লেখার অপশনটা বাদ দিয়ে দেয়া হবে।
      ২। পোস্টে রেটিং পদ্ধতি যুক্ত করা হবে।
      ৩। পরবর্তী সপ্তাহের প্রথম দিনে বিগত সপ্তাহের সর্বোচচ রেটিং প্রাপ্ত পোষ্ট নিয়ে বিশ্লেষণ মুলক রিভিউ পোষ্ট দেয়া হবে।

      আলোচিত বিষয়ের পক্ষে/বিপক্ষে আপনার মতামত দিন।

      • ছাইরাছ হেলাল

        একান্ত ব্যাক্তিগত মতামত, এই সব রেটিং ফেটিং কিচ্ছু না, আলোচিত পোস্ট বলতে কিচ্ছু নেই।
        আর রিভিউ!! তা তো ‘সহমত ভাই’! আমরা রিভিউ চাই, তালগাছ নিজের ভেবে।
        আসলে আমরা রিভিউ চাই না, আপনার এই লেখা নিয়ে রিভিউ দিলে গাল ফোলাবেন (আপনাকে বলছি না),
        আপনি আমাত্তে বেশী জানেন!! আইছে ব্যাপুক গ্যানি!! কাজেই আলোচিত পোস্ট না থাকলেই হবে।
        দেখুন ব্লগ ভালোবাসি, তাই এখানে থাকি। অতএব চিন্তার কিছু নেই। জিরো স্মার্টনেস যারা দেখায় তারা/তাদের ব্যাক্কল বলেই জানি।

  • বোরহানুল ইসলাম লিটন

    ব্লগের পবিত্রতা রক্ষার্থে নেয়া যে কোন সিদ্ধান্তই গুরুত্বপূর্ণ
    নিশ্চয় তা প্রকৃত কার্য করণে অমঙ্গল বয়ে আনে না।
    অটুট আস্থা রইল প্রতিটি সিদ্ধান্তের প্রতি।
    অর্থনীতির ভাষায়
    ’একটি দেশের সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ সেই দেশে জনসমষ্টি
    যদি তা হয় দক্ষ’।
    তাই প্রত্যেকেরই উচিত মেধা ও মনন বিনিয়োগ করে অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে
    নিজে অবস্থান থেকে দক্ষতার পর্যায়ে উন্নিতকরণের জন্য চেষ্টা করা।
    ছল চাতুরীর আশ্রয় নিলে নিজের বিবেকের কাছেই দায়বদ্ধ হতে হয়।
    অনেক অনেক শুভ কামনা রইল আপনার জন্য।
    সুস্থ থাকুন খুব ভালো থাকুন নিরাপদে থাকুন।

  • নিতাই বাবু

    সুন্দর ও সময়োপযোগী উদ্যোগ! তবে রেটিং পদ্ধতি ভালো এবং’ সম্মানজনক! কিন্তু এখনও অনেক ব্লগাগণ রেটিং পদ্ধতির কিছুই বোঝেননা। সেবিষয়ে আগে থেকে পাট-বাই-পাট বিস্তারিত জানিয়ে বা বুঝিয়ে দিলে আরও ভালো হয়। তবে হ্যাঁ, সবার জন্য নয়, যারা এবিষয়ে না জানে না বুঝে তাদের জন্যই বিস্তারিত জানাতে হবে। শুভ ব্লগিং। ব্লগ এবং ব্লগের সবার মঙ্গল কামনা করছি।

    • সাবিনা ইয়াসমিন

      অনেক ব্লগার রিফ্রেশ (অনৈতিক) কি জিনিস তাও বোঝে না, বুঝতো না। কিন্তু কারো কারো বিশেষ কল্যাণে এখন রিফ্রেশ সম্পর্কে সবারই মোটামুটি ধারণা হয়ে গেছে। রেটিং সম্পর্কেও জেনে যাবে।

      শুভ ব্লগিং।

      • নিতাই বাবু

        কিছু মনে করবেন না, দিদি। আমি জানতে চাই “রিফ্রেশ” (অনৈতিক) কী? এই রিফ্রেশ বিষয়ে আমি অজ্ঞ! রিফ্রেশ কী এবং কীভাবে ব্যবহার করতে হয় একটু বুঝিয়ে বলবেন কি? ব্লগে এই রিফ্রেশ অপশনটাই বা কোথায়?

        নিজের কিছু কথা:
        একটা সময়ে যখন ব্লগে রেজিষ্ট্রেশন করে লেখা জমা দিলাম। তারপর লেখা প্রকাশ পেলো। কিন্তু আমার লেখার তেমন একটা মান ভালো ছিলো না। তাই লেখায় পাঠকসংখ্যাও হতো ব্লগের সব ব্লগারদের লেখার চেয়ে অনেক কম। তবুও লিখেই যেতাম। লিখতাম সাধু চলিত ভাষার সংমিশ্রণে। কাজেই আমার লেখায় পাঠকসংখ্যা বা হিট খুবই কম হতো।

        এজন্য ব্লগ টিম থেকে আমাকে দিকনির্দেশনা দিতে শুরু করলো। কীভাবে লেখা পাঠককুলে পৌঁছাতে পারি। কীভাবে লেখার মান ভালো করবো। কীভাবে লেখায় পাঠকসংখ্যা বৃদ্ধি করবো ইত্যাদি ইত্যাদি বিষয়ে সাজেশন।

        আর এখানে দেখছি এর বিপরীত। একজন লেখকের লেখায় পাঠকসংখ্যা কেন বেশি হলো, সেদিকে থাকে নজরদারি! যার লেখায় পাঠকসংখ্যা বেশি, সে-ও শুকরিয়া আদায় না করে হয় বিস্মিত! এটা যে আসলে কী, সেটা আমার মাথায় ঢুকছে না।

  • সুপর্ণা ফাল্গুনী

    লেখা শীর্ষে নেয়ার জন্য ও অপশন আছে ? জানা ছিলো না। কতটা বিবেচকহীন হলে এমনটা হতে পারে!! আমি আমার লেখা আমার ফেসবুক ওয়ালে ও শেয়ার দেইনা। ব্লগের পাঠক আলাদা তাদের মেধা, মনন অন্যরকম হবে কিন্তু এখানে ও এসব কেমনে করে? রেটিং এ ও তেমনটা হতে পারে তবে আইডিয়াটা ভালো লেগেছে।
    আপনার আইডিয়া গুলো ভালো তবে এপ্লাই করার পর বোঝা যাবে কতটা কার্যকর হবে। চেষ্টা করে দেখা যাক তারপর অবস্থা বুঝে অন্য ব্যবস্থা নিতে হবে। শুভ ব্লগিং

  • মোহাম্মদ মনজুরুল আলম চৌধুরী

    সুপর্ণা ফাল্গুনী দিদির মতো আমারও প্রশ্ন —- লেখা শীর্ষে নেয়ার জন্য ও অপশন আছে ?
    আমার মনে হয় যারা করছেন তাঁদের নাম প্রকাশ করা উচিৎ। সুন্দর এবং পারিবারিক পরিবেশ রক্ষার্থে যে কোনো ভালো সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাই।
    ধন্যবাদ এবং শুভ কামনা রইল।

  • রোকসানা খন্দকার রুকু

    যারা দূর্নীতি করে তারা সবটাতেই করতে পারে বা করে থাকে। রেটিং সিস্টেম ভালো কিন্তু সেটাও যদি রিফ্রেশ এর মতো ব্যবহার হয় তাহলে তো লাভ নেই। বরং রিফ্রেশটাই উঠিয়ে দিন। চাহিদা যদি মনের হয় তাহলে যে যার মতো লিখুক এতো কম্পিটিশন কেন? সেটি উঠিয়ে দিন দেখবেন সব শেষ?
    আর আমরা নিজ নিজ প্রফেশনে ব্যস্ত থাকি। নিয়মিত রিভিউ কে দিবে। আপনি নিজেই হয়তো দুটো দিয়ে হারিয়ে যাবেন। ব্লগার্স প্রফাইল লেখা শুরু হলো কজন লিখলো? আপনি নিজেই কিন্তু লেখেননি। দাদাও লেখে নি। ব্যস্ত সবাই।
    আমি দেখেছি যারা সিস্টেম তৈরি করে তাঁরাই ঠিকঠাক ফলো করে না। মনমতো চললে কোনকিছুই হয়না। এটিও দায়িত্বশীল পেশার মতোই নিয়মমাফিক নিতে হবে। আগে সেটি তৈরি করতে হবে তারপর রিভিউ।
    বাংলাদেশে আইন বেশি প্রয়োগ কম এমনটা যেন না হয়!!শুভ কামনা।

  • দালান জাহান

    আমার মতে, রিফ্রেশ অফ করে
    ভিউটা ডার্ক করে দেওয়া হোক। যা শুধুমাত্র মডারেটর এবং পরিচালকগণ দেখতে পারেন। তখন লেখক ভিউ নিয়ে পড়ে থাকবে না। তারপর সপ্তাহের আলোচিত লেখাগুলো সম্পাদক প্রকাশ করতে পারেন গ্রুপে/ব্লকে সপ্তাহ শেষে। রেটিং এ যে এমন হবে না এটাও কিন্তু বলা যাচ্ছে না।

  • সাবিনা ইয়াসমিন

    ১। আপাতত সপ্তাহের আলোচিত লেখার অপশনটা বাদ দিয়ে দেয়া হবে।
    ২। পোস্টে রেটিং পদ্ধতি যুক্ত করা হবে।
    ৩। পরবর্তী সপ্তাহের প্রথম দিনে বিগত সপ্তাহের সর্বোচচ রেটিং প্রাপ্ত পোষ্ট নিয়ে বিশ্লেষণ মুলক রিভিউ পোষ্ট দেয়া হবে।

    আমার মতামত-
    ১। সাপ্তাহিক আলোচিত পোস্ট/শীর্ষ পঠিত পোস্ট অপশন বাতিল করে দিলেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে এমন ভাবতে পারছি না। ব্লগে আছি তিনবছর+ অনেক কিছু দেখেছি, উপলব্ধি করেছি। সেই উপলব্ধি থেকেই বলবো, এই অপসন থাকা না থাকায় কিছু লেখকের (এরা সংখ্যালঘু) উপর কোন প্রভাব পড়েনি/ পড়বে না। কিন্তু বিশেষ একটা শ্রেণীর বিরাট ক্ষতি হবার সম্ভাবনা আছে। দেখা যাবে এদের অনেকেই জাস্ট হাওয়ায় উড়ে যাবে। গায়েব হওয়া বলতে যা বোঝায়। কেন? বলছি..
    সোনেলায় লিখে কেউ আর্থিকভাবে লাভবান হয়েছে এমন উদাহরণ নেই। কেউ আর্থিক পারিশ্রমিকের বিনিময়ে এখানে লেখালেখি করেন না। যারা ব্লগ/ব্লগারদের পেছনে সময় দিচ্ছেন তারাও কেউ কোন বিনিময় গ্রহণ করে নিজেদের সময় বিনিয়োগ করেন না। (এর চুড়ান্ত উদাহরণ আমাদের পিচ্চি স্যার)।
    এছাড়া সোনেলায় লিখে কেউ নোবেল প্রাইজ পাবে, এমন কোন প্রতিশ্রুতিও কাউকে দেয়া হয় না। মুলত এখানে লেখালেখির বিনিময়ে কোন পুরস্কার পাবার আশা জিরো। তাহলে কেন লেখেন! কিছু ব্লগার লেখেন (এরা সংখ্যালঘু+ ঝিম মারা, আনস্মার্ট) মানসিক তৃপ্তিবোধ থেকে, মনের একান্ত অনুভূতি গুলো থেকে নিজেকে সাময়িক সময়ের জন্য হালকা হতে। বাকিরা (সংখ্যাগুরু+স্মার্টনেসের ধারক/বাহক) কিন্তু ঐ শীর্ষে থাকতেই আসেন/আসতেন/আসবেন। আর ভাগবেন, যেহেতু লেখার বিনিময়ে এখানে নগদ-নারায়ণ প্রাপ্তি নেই, নোবেল প্রাইজ দুঃস্বপ্ন!

    ২। রেটিং পদ্ধতি আমার পছন্দ হয়েছে। আধুনিক প্রায় সব ব্লগ সাইটে এর প্রচলন আছে। আপডেট সোনেলা আমারও কাম্য।

    ৩। রিভিউ দেয়া যেতে পারে। সোনেলায় আসার প্রথম দিকে ব্লগারদের মাঝে এমন আন্তরিকতা লক্ষ্য করা গিয়েছিল। ব্লগাররা স্বতঃস্ফূর্ত হয়েই একে অপরের লেখা নিয়ে রিভিউ দিয়েছেন। জবাব পোস্ট দিয়েছেন।
    রিভিউ এখনো দেয়া যায়, তবে খেয়াল রাখতে হবে রিভিউ যেন জোর করে না হয়, মনের বিরুদ্ধে সহমত ভাই-বোন পাতানোর জন্য না হয়। রিভিউতে ভালোমন্দ উভয় দিক নিয়েই আলোচনা থাকবে। নিঁখুত বললে তেলবাজি, আর সমালোচনা করলে গালবাজী ( গাল ফোলানো) চলবে না।

    সোনেলার সাথে আছি। ব্লগ কতৃপক্ষের যেকোনো সিদ্ধান্তকে মেনে নিতে তৈরী।
    শুভ ব্লগিং।

    নোট ** ব্লগারদের জ্ঞাতার্থে বলছি, সোনেলা বিজ্ঞপ্তি পোস্ট টি ব্লগ কতৃপক্ষের পক্ষ হতে দেয়া। এটাকে যারা/যিনি আমার ব্যক্তিগত পোস্ট/আইডিয়া ভেবে আক্রমণাত্মক কমেন্ট দিয়েছেন তাদেরকে এখানে মতামত না জানানোর অনুরোধ করা হলো। এধরণের ইচ্ছা যাদের আছে তারা আলাদা পোস্ট দিতে পারেন।

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য