লেখালিখি করা আমার শখ। আমার কাছে মনের ক্ষুধা মেটানোর অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে লেখার মাধ্যমে পাঠকদের সাথে আনন্দ-বেদনাগুলি ভাগাভাগি করা। কিন্তু হুটহাটতো আর যেখানেসেখানে লেখা যায় না। লেখার পরিবেশ, পাঠক সংখ্যা, নিজের আত্মসম্মান এসবই যেখানে রক্ষা পাবে সেখানেই একজন লেখক বিচরণ করবে এটাই স্বাভাবিক।

এ কথা অনস্বীকার্য, লেখার জন্য উপযুক্ত প্লাটফরমটি সোনেলাই আমাকে দিয়েছে। সেই কৃতজ্ঞতাবোধ থেকেই সোনেলার জন্মমাসে পাঠকদের সাথে নিজের অনুভূতি শেয়ার করা উচিত বলে আমি মনে করি।

সহব্লগারদের সাথে আন্তরিকতা বৃদ্ধিতে সোনেলা অদ্বিতীয়-

সহব্লগারদের সাথে নিজের আন্তরিকতা বৃদ্ধি করার বিকল্প নেই। এরজন্য করণীয় হচ্ছে- ব্লগারের লেখায় সুন্দর গঠনমূলক মন্তব্য করুন। ব্লগারের জন্মদিন, পঞ্চাশ কিংবা শততম প্রভৃতি বিশেষ দিনগুলিতে তাঁকে নিয়ে শুভেচ্ছা পোষ্ট দিন। যে লেখাগুলো ভালো লাগবে সেটি নিজেই সোনেলার ফেসবুক গ্রুপে, আপনার ওয়ালে শেয়ার দিন। সোনেলা সার্বক্ষণিক এদিকে বিশেষ সুদৃষ্টি রাখে যা অত্যন্ত ভালোলাগার জন্ম দেয়।

অনেকেই হয়তো ভেবে থাকেন এসবই গ্রুপ এডমিন এবং ব্লগ কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব। আসলে কিন্তু মোটেই তা নয়। আমরা যারা শুভেচ্ছা পোষ্ট এবং লেখা শেয়ার দেই তারা সহব্লগারদের প্রতি নিজস্ব ভালোবাসা থেকেই দেই। এই সম্মান এবং ভালোবাসা ব্লগে বিচরনের মাধ্যমেই তৈরী হয়েছে। এগুলোই আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টা। এই প্রচেষ্টায় সোনেলার সাথে আপনিও নিজের হাত বাড়িয়ে দিন।

মন্তব্য নিয়ে কিছু কথা-

মাঝেমধ্যে ফেসবুক, ব্লগ কিংবা অনলাইন মিডিয়ায় আমার বা আমাদের কিছু পোস্টে এমন সব মন্তব্য আসে যা অপ্রাসঙ্গিক এবং লেখা সম্পর্কিত নয়। বাজে মন্তব্য কিংবা হেয়ালীস্বরূপ এমন মন্তব্য যেগুলো দেখলে মনে আমরা কষ্ট পাই। “লেখা লিখবোনা আর” এরকম অনুভূতি মনে পুষে রাখি অনেকক্ষণ।

সবাইকে অনুরোধ দয়া করে এমনটা করবেননা। আপনি পিছিয়ে গেলেন মানেই হেরে গেলেন। লেখায় পাঠক মন্তব্য করবেই। আপনার নিজস্ব মতামত সঠিক হলে সেটাতেই অটল থাকুন। অযাচিত বাকবিতণ্ডায় জড়াবেননা। মনে রাখবেন সোনেলা ব্লগ কর্তৃপক্ষ আপনার পক্ষে সর্বদা ঢাল হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এই বিশ্বাস আমার মনে সবসময় সাহস যোগায়। এর কৃতিত্ব অবশ্যই ব্লগ কর্তৃপক্ষের।

সোনেলার ফেসবুক গ্রুপ এডমিনের দায়িত্বপ্রাপ্তি-

২০১৯ সালের মে মাসে আমাকে সোনেলার ফেসবুক গ্রুপের এডমিন হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হলো। জানিনা ব্লগ কর্তৃপক্ষ আমার মধ্যে কি এমন দেখেছিলেন! সেই আমন্ত্রণ পেয়ে আমি, মনির ভাই, ইঞ্জা ভাই, সাবিনা আপু, হেলাল ভাই, জিসান ভাই আলোচনা করেই আমরা এডমিনের দায়িত্ব নিয়েছিলাম যা অদ্যাবধি চলমান।

ফেসবুকে অন্যান্য গ্রুপের এডমিন হওয়া আর সোনেলার মত একটি স্বনামধন্য বাংলা ব্লগ গ্রুপের এডমিন হওয়ার মাঝে বিস্তর ফারাক। সম্মান এবং মর্যাদায় সোনেলার একজন এডমিন অনন্য মর্যাদার অধিকারী এবং এই সম্মান প্রদানের জন্য আমি ব্লগ কর্তৃপক্ষের কাছে সবসময়ই কৃতজ্ঞ।

সোনেলার একজন ব্লগার হিসেবে আমি গর্বিত-

অন্যান্য বাংলা ব্লগের তুলনায় সোনেলা ব্লগের প্রতিটি লেখায় পাঠক সংখ্যা, মন্তব্য সংখ্যা এবং অনলাইন শেয়ারের অংকটা দেখলে গর্বে বুক ফুলে যায়। আমিও যে এই পরিবারেরই একজন সদস্য। আমাদের নিজেদের সাথে কিংবা অন্যদের সাথে কারও কোনো দ্বন্দ্ব নেই, দম্ভ নেই, ন্যূনতম অহমিকা নেই। আমাদের সকলের বিশ্বাস এবং আস্থার শেষ বিন্দুটুকুও সোনালী ভালোবাসা আর মমতার মোড়ানো। সত্যিই অন্যান্য ব্লগের সবার থেকে আমরা সোনেলা পরিবার ভালো আছি, অনেক অনেক ভালো।

সোনেলা ব্লগ এগিয়ে চলুক তার আপন গতিতে। সোনেলার জন্মমাসে সোনেলায় বিচরণকারী সকল ব্লগার, পাঠক এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের সর্বদা পাশে থেকে আমাদের উৎসাহ দেবার জন্য মন থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা জানাই।

(চলবে…)

সোনেলার জন্মোৎসব ২০২০ (আমার অনুভূতি – ২য় পর্ব)

২৪৫জন ২৪৫জন
0 Shares

২৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ