বাংলা ব্লগিং জগতে জ্বলজ্বলে একটি নক্ষত্রের নাম সোনেলা। সোনালী রোদের আলোয় উদ্ভাসিত হোক সকলের জীবন- এই বিশ্বাস থেকেই কোনোএক শুভক্ষণে যাত্রা শুরু হয়েছিল সোনেলার। চলমান সে যাত্রা সেই যে চলা শুরু হয়েছে, অদ্যবধি তা চলছে আপন মহিমায়। তীব্র রোদ, ঝড়-বৃষ্টি কোন কিছুই সামান্যতম থামাতে পারেনি সোনেলাকে।

সোনেলার যাত্রাপথে যতবার বন্ধুরতা এসেছে, আবার আমরা সবাই মিলে ততবারই মসৃণতার রুপ দিয়ে সে যাত্রাকে এগিয়ে নিয়ে চলেছি অদ্যবধি। কারণ আমরা বিশ্বাস করেছিলাম সোনেলার সোনালী আভার ছোঁয়া যার লেখাতেই লেগেছে এবং লাগবে- তিনি অদম্য হয়ে পাঠক সমাজে সমাদৃত হয়েছেন, হচ্ছেন স্বনামধন্য।

সোনেলা ব্লগের যখন যাত্রা শুরু হয় তখন সময়টা বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আপামর জনসাধারণের অংশগ্রহণে রাজাকার বিরোধী আন্দোলনের প্রথমার্ধের কথা। চারিদিকে গুনগুন, ফিসফিস আওয়াজে সেই আন্দোলন মহীরুহ রুপে শুরু হতে যাচ্ছে যাচ্ছে ভাব। দেশে তখন রাজাকারদের ফাঁসির বিচারের বাণী শোনানোর অপেক্ষায় সবাই। এমন একটি শুভমাসের শুভক্ষণে জন্ম হয়েছিলো সোনেলার। সে কারনেই নিজের মন-প্রাণ দিয়ে বাংলা ভাষাকে, বাংলাদেশকে ভালবাসে এমন প্রতিটি মানুষের শরীরে সোনেলার সোনালী আভা লাগবে এটাই স্বাভাবিক এবং লেগেছিলও কিন্তু তাই।

অন্যান্য বাংলা ব্লগের তুলনায় সোনেলা ব্লগের প্রতিটি লেখায় পাঠক সংখ্যা, মন্তব্য সংখ্যা এবং অনলাইন শেয়ারের অংকটা দেখলে গর্বে বুক ফুলে যায়। আমিও যে এই পরিবারেরই একজন সদস্য। আমাদের নিজেদের সাথে কিংবা অন্যদের সাথে কারও কোনো দ্বন্দ্ব নেই, দম্ভ নেই, ন্যূনতম অহমিকা নেই। সবার শেষ বিন্দুটুকুও সোনালী ভালোবাসা আর মমতার মোড়ানো। সত্যিই অন্যান্য ব্লগের সবার থেকে আমরা সোনেলা পরিবার ভালো আছি, অনেক অনেক ভালো।

সোনেলা ব্লগ এগিয়ে যাক তার আপন গতিতে। সোনেলা ব্লগের জন্মমাসের প্রথম দিনে সোনেলায় বিচরণকারী সকল ব্লগার, পাঠক এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের আমাদের সাথে থেকে পাশে থেকে আমাদের উৎসাহ দেবার জন্য মন থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা জানাই।

যেদিন দেখবো সোনেলায় আমার লেখার মন্তব্যের ঘর ফাঁকা, সেদিন বুঝে নেবো সাহিত্য জগতে আমার বিচরণের সময় শেষ। সেদিন মৃত্যু হবে নিজের অস্তিত্বের, লেখক সত্ত্বার। সমাধি হবে আমার সোনালী স্বপ্নের।

সোনেলার পাঠকদের জন্য আমার একটি কবিতা-

কৈশোরত্তীর্ণ বাসনা-

তুচ্ছ প্রলাপের পুচ্ছকে শুন্যে মেলে
ক্ষণিকসময় কৌতুকের ছেলে খেলাখেলিতে,
আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে থাকা কামনারা আজ;
বেলা অবেলার ভাবের মেলায়
লজ্জিত বিহনে হয়েছে নিষ্পেষিত।

অভিসারিকার আগমনে আনন্দরুপে উদ্বেলিত
মুক্ত বিহঙ্গমার সুপ্ত চৈতন্যরা,
ঝড়ের বেগের মৃদুমন্দ দোলনে পর্যবেসিত;
কিশোর অক্ষরলিপিতে আঁঁকা রংতুলিতে
আড়ালে আবডালে এসেছিল যে- সে অবন্তিকা।

গহনে গ্রহণে আলোর সঙ্গমে মিলিত জোনাকীরা
বিশ্বপ্রাণের স্পর্শরসে তন্দ্রাচ্ছন্ন আকাশতলে,
কবিত্বহীন বিধাতার হিসেবের যাতাকলে;
দেহরসের অস্তিত্বরা বিলীনতায় মত্ত ধীরলয়ে-
শরীরতত্ত্বের বক্রতায় জ্যামেতিক ত্রিভূজে।

সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন।

৩৩৪জন ২জন
65 Shares

৫০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য