সোনেলার জন্মদিন। (অষ্টম পেরিয়ে নবমে পা )

উর্বশী ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার, ০৭:৪৯:১৩পূর্বাহ্ন কবিতা ২৮ মন্তব্য

 

“সোনেলা কাব্য।”

ভেবেছিলাম প্রথম যেদিন ভালোবাসবো, ফোটা পুষ্পবনের গাঁথায় তোমায় নিয়ে মনের মত লিখবো।
ইচ্ছে করে ডেকে বলি ওগো প্রিয় সোনেলা,
তোমার দেখা পেয়ে সবার মন জুড়ালো।
মাঝে মধ্যে পেছন ফেরা, ফিরতে ফিরতে এগিয়ে যাওয়া,
জীবন মানে তো সামনের দিকে ছুটে চলা,
মনে হলো নতুন করে স্পর্শ করি জোড়া হাতে,
দুঃসাহসেই এগিয়ে চলি ক্ষতি নেই তো তাতে।
একদিন কোনো এক আনন্দের মাঝেই জন্ম সোনেলার,
সেদিন আমি ছিলাম না রঙিন মুহূর্তের সুষমা দেখার।
সোনালী — রুপালী  গল্প জড়ানো সময়,
আবার নতুন করে সবার সাথে আলাপ শুরু হলো,
প্রথম ধাপে পছন্দ,পরে তীব্রতায় কাছে পেতে চাওয়া,
স্বচ্ছলতা ফিরে আসে, ক্রমে ক্রমে পরিপূর্ণ হওয়া।
নিজের স্বপ্নের কাছে এভাবেই জয়ী হয় সোনেলা।
শূন্যতাকে  জনস্রোতে  ধারণ করে চলে সোনেলা।
তীব্রতা তাড়িত করে কেটে গেছে আট টি বছর।
মনে হয় এই তো কিছু আগে একটি শালিক এসে ঝিলের রঙিন জলে স্নান শেষে রোদ্দুরে মেলেছে ভেজাচুল।
একটি হিজল পাতাও ভেসে যাচ্ছে  স্বচ্ছ জলের স্রোতে।
মনের ভিতর থেকে উদ্ভাসিত হলো সোনেলাকে,
এক অদ্ভুত ভালো লাগা,  এক অবিশ্বাস্য স্বপ্নভূমি।
নিজের ইচ্ছে ডানার  চেতনার বিচরণ এই সোনেলায়।
আবার ফিরে তাকালাম, অজস্র পাখিদের মেলা,
অজস্র পাখিদের কলকাকলীতে কেটে যায় বেলা।
বুঝে নিলাম রঙিন এই মুহূর্ত নতুন সাজানো পৃথিবী,
গলগল জলধারায় বেরিয়ে এলো স্রোতস্বিনী।
সবুজ ঘাসের  ডগায় শিশিরের ফোঁটায়   স্বচ্ছতায়,
হয়ে ওঠে সবাই অনন্যা এই সোনেলায়।

বিঃ দ্রঃ—– শুভ জন্মদিন সোনেলা।

সোনেলা পরিবারের সবার জন্য আন্তরিক প্রীতি  ও শুভেচ্ছা সহ সালাম।’

বিশেষভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি ইঞ্জা ভাইয়া ও ফয়জুল মহীকে।এই দুজন ই আমায় সোনেলার ভালোবাসার  পরশ পাওয়ার আহবান জানান  । প্রথমে ইঞ্জা ভাইয়া আমায় ইনভাইট পাঠান,ভেবেছিলাম হ্যাকার গ্রুপ।ইঞ্জা ভাইয়া পরিচিত  তো আগে থেকেই ছিলেন,সেই সময়ে অন লাইন গ্রুপ এসোসিয়েশনে কিছুটা ঝামেলার সমুক্ষীন হয়,এবং হ্যাকারদের বেশ দৌড় ঝাপ শুরু হয়।এসোসিয়েশনে প্রথম সারির একজন হওয়াতে এবং এক মাত্র মেয়ে কিছুটা সাবধানে থাকতে হতো।পরে অবশ্য কমিটিতে আরও সিনিয়র আপারা আসেন।   সিনিয়র কবি ভাইয়ারা অবশ্য  সহযোগিতা করতেন।ঠিক সেই সময় সোনেলার সাথে আমার হালকা পরিচয়।ইঞ্জা ভাইয়ার মোবাইল নাম্বার না থাকায় যোগাযোগ করার সুযোগ হয়নি।তখনও আমি ভীষণ অসুস্থ ছিলাম।কিছুদিন যাওয়ার পরে মহী একদিন আবার সোনেলার কথা বলেছে।সম্ভবত ইঞ্জা ভাইয়ের কমেন্টে     বা ম্যাসেঞ্জারে  কথা বলার জন্য সময় চাই।   এবং তার সহযোগিতায় আমি সোনেলাকে পেলাম।

সোনেলা ও এই পরিবারের সবাই দীর্ঘ জীবি হোক।
সোনেলার সফলতা  কামনা করছি।

২৩২জন ৭৮জন
0 Shares

২৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য