চিঠি প্রতিযোগিতায় ব্লগার সজীব একাই হস্তগত করল সাত সাতটি পুরস্কার। তাও আবার প্রথম পাঁচের প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় (অর্ধেক), চতুর্থ (অর্ধেক), পাঁচটি বিশেষ পুরস্কারের চারটি!
এতে অবাক হবার কিছুই নেই। খুবই সিম্পল একটি কৌশলে এটি প্রাপ্ত হয়েছে সে।
কিভাবে? আসুন বুঝিয়ে দিচ্ছিঃ
প্রথম পুরস্কার পেয়েছেন নীলাঞ্জনা নীলা আপু। আপু থাকেন কানাডা।পুরস্কার গ্রহন করতে হলে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর নীলাপুকে দেশে আসতে হবে।আমি নিশ্চিত হয়েছি যে এই বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর উনি বাংলাদেশে আসবেন না। নীলাপু আপনি কত্ত শ্নেহ করেন আমাকে। ভাভু ভাইয়া বলে ডাকেন। আপনার পুরস্কার আমিই তো নেবো আপনার পক্ষ থেকে 🙂 তাইনা আপু? প্রথম অনুরোধ তো আমিই করলাম। আমি জানি আপনি আমাকেই দিয়ে দেবেন প্রথম পুরস্কার 🙂

দ্বিতীয় হয়েছেন শিমুল ভাইয়া। ভাইয়া থাকেন ইতালী। উনি নাকি আসবেন ২৭ সেপ্টেম্বর। যদিও পরে মন্তব্য সংশোধন করে বলেছেন উনি ২৩ তারিখ আসবেন। ভাইয়ার যে ভুলো মন, আমি নিশ্চিত যে ভাইয়া ২৭ সেপ্টেম্বর দেশে আসার ফ্লাইটের টিকেট করবেন? তো কে নিবে ভাইয়ার পুরস্কার? উত্তর পানির মত সহজঃ আমি ছাড়া আবার কে? 🙂

তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছেন দুজনে। অরুণিমা আপু থাকেন কলকাতায়। এই আপুটাও আসবেন না পুরস্কার নিতে। আপুও আমাকে খুব শ্নেহ করেন। তার পুরস্কারটাও আমি পাচ্ছি এটি দিবালোকের মত পরিষ্কার 🙂

চতুর্থ পুরস্কার পেয়েছেন দুইজনে।রিতু আপু থাকেন উত্তরবঙ্গে।সেপ্টেম্বর মাসের ২৩ তারিখ পরিবহন ধর্মঘট থাকায়( আমি গনক হয়েছি) আপু আসতে পারবেন না। কে নিবে এই পুরস্কার? রিতু আপু বলে দিন তো আপনার পুরস্কার সজু নেবে 🙂

বিশেষ পুরস্কারের মধ্যে আমার ওস্তাদ পেয়েছেন একটি। ওস্তাদ আমি আপনার একমাত্র শিষ্য। আমি কোনো পুরস্কার পাইনি ( উপরের লেখা পড়বেন না প্লিজ )। আপনার পুরস্কারটা আমাকে দিয়ে দিন।আমি কোনো পুরস্কার পাইনি এটি শুনে জানি আপনার মন খুব খারাপ হয়েছে, কষ্ট পাচ্ছেন আপনি। আপনার মন ভাল করা এবং কষ্ট দূর করার জন্য আমিই আছিনা? 🙂 পুরস্কার আমি পেলে ওস্তাদ খুব খুশি হবেন, তাই ওস্তাদের পুরস্কারটি আমিই যে পাচ্ছি এ বিষয়ে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই 🙂

মিষ্টি জিন আপু থাকেন লেবানন। তিনি কি আসবেন পুরস্কার নিতে? এইমাত্র আপুর সাথে মনে মনে সরাসরি কথা হলো। আপু বলেছেন’ সজু আমি আসতে পারবো না, আমার পুরস্কারটি তুমি নিয়ে তো।’ মিষ্টি আপু আপনার কন্ঠ এত মিষ্টি কেন? (হালকা একটু পটালাম)। আপু হেসে দিয়ে বললেন ‘ হয়েছে আর পটাতে হবেনা, সবাইকে বলে দিচ্ছি মন্তব্যে।

রিমি রুম্মন আপু আছেন আমেরিকায়। আপু এমনিতেই মায়াবতী। কত যে মায়া আপুর সবার প্রতি! আমার প্রতি আবার একটু বেশিই 🙂 তাঁর পুরস্কারটাও আমি নিচ্ছি, আপুই বলে দেবেন সবাইকে আমি জানি 🙂

আমার এই পোষ্ট পড়ে কেহ আবার পুরস্কার প্রাপ্ত ভাইয়া আপুদের কাছে পুরস্কারের জন্য অনুরোধ করবেন না। আমিই প্রথম আবেদন করেছি। একটিই আবেদন গ্রহন করা হবে, সেটি আমি করেছি।

আসুন সবাই দলে দলে এত গুলো পুরস্কার প্রাপ্তিতে আমাকে অভিনন্দন জানান 🙂

সবাইকে নববর্ষের শুভেচ্ছা ও ভালবাসা   -{@
(3

 

 

১১৮জন ১১৮জন
0 Shares

৩৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য