সেই তো এলে

মোহাম্মদ দিদার ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ১২:০৯:৩৬অপরাহ্ন কবিতা ১০ মন্তব্য

সেই তো এলে!
এলে বড্ড অবেলায়।
তুমি এলে,এযে আমার মহানন্দের ক্ষন।
অকৃপন হাসিতে মগ্ন হতে চাইলুম,
চাইলুম আনন্দে আত্নহারা হতে।
কিন্তুু দেখো আমি ঠোট বাকিয়ে কেঁদে ফেললুম!

কি ভাবছো প্রিয়তম?
আমারও আকাশ বদল হয়েগেছে?
আর তাই, তোমার দর্শনেও আমি অতৃপ্ত?
তোমায় সরিয়ে অন্যকে স্থান দিয়েছি হৃদয়ে? তোমার কোনো অস্তিত্ব নেই আমার মাঝে?

তবে ভূল ভাবছো,
যদি এসব কথা তোমার হৃদয়ের আনাচে কভূ আসে,
তবে আমিও ভেবে নিব,
তুমি আকাশ বদলের ক্ষনে তোমার মনটাও বদলে গেছে ক্ষানিক,
আর তুমি পরিণত হয়েছো এক মনভূলো মানবিতে।

প্রিয়া, আমার এমন ভাবনার কারণ জানতে চাইবেনা?
তুমি না চাইলেও আমি বলতে চাই।

মনে পরে সেবারের কথা?
ঐযে আমি দাড়ায়ে রইলুম কলেজ ক্যাম্পসে কেবলার মতো!
অপলক তাকিয়ে ছিলুম তোমার পানে।
আর তুমি!
তুমি চললে রঙ্গিন ডানা জাপটে নতুন আকাশে?

জানো! আমার একটুও কষ্ট হয়নি,
এমন মিথ্যে বলতে পারলুমনা।
ঐযে ক্ষানিক পূর্বে ব্যবহৃত নলকূপ হতে চুইয়ে পরার মতোই রক্তক্ষরণ হয়েছে আমার হৃদয়ে, হয়তো খুব নিরবে নিভৃতে,

তাতে কি?
আমিযে ভালোবাসি বললুম তোমায়,
তবে এটুকু মেনে নিতে পারবোনা কেনো?
আর তাইতো মলিন মুখখানা তুলে,
অপলক চেয়ে রইলাম পিছু হতে দেখা যায় যতোদূর,
নতুন আকাশে তোমার উরাউরি,
হাসি আনন্দ ।

বাহ্ কতো সুখিইনা হয়েছিলে সেদিন,
আমি আনন্দে আত্নহারা হয়েছিলুম প্রিয়ার হাসিমাখা বদনখানি দেখে।
সেক্ষনেই কথা দিয়েছিলুম প্রকৃতিকে সাক্ষী মানিয়া,

ভুলবোনা তোমায় কভূ।
যতোদিন এদেহে প্রাণ,
রাখিবেন প্রভূ।

সেকথা ভূলার দায়েই দিলাম তোমায় মনভূলো উপাধি,
মনে রেখো যতনে
হয়তো,শিক্ত হবে
কোনো ভালোবাসার ক্ষনে।

ভালো থেকো তুমি।

মেহাম্মদ দিদার
ল্যাম্প পোস্ট
১১/৬/২০১৯

৮০জন ৮জন
5 Shares

১০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য