সিঁদুরে মেঘে বড্ড ভয়

হালিম নজরুল ৩১ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার, ১২:৩৩:১৩অপরাহ্ন কবিতা ১৯ মন্তব্য

সূর্যটা বাড়ি ফিরলে দাদার আঙুলে
খুঁজতাম ঘুমের নিমন্ত্রণপত্র।
রাজপুত্রের রাক্ষসবধের পূর্বেই—
পৌঁছে যেতাম ঘুমেদের বাড়ি।
রাত্রিও হাঁটতে হাঁটতে পৌঁছে যেতো মধ্যপথে।
গোঙানির শব্দে ঘুম ভাঙলে শুনতাম—
“ওই যে,ওই যে পাহাড়ের ওপারেই যে চিক চিক আলো, ওখানে নৌকা ভিড়লেই দেখবি স্বর্ণনগর”।

অতপর ভোর হলো,
অথচ সূর্যের আলো পৌঁছলো না আমাদের গাঁয়ে।
যে জমিটায় স্বর্ণের খনি বুনেছিল দাদু,
সেখানে সবুজের ক্ষেত।
গোছা গোছা ধানগাছে ফলহীন শীষ,
কপোতের আকাশে শকুনের ওড়াউড়ি,
বৈশাখী মেঘের মত কতগুলো কালোহাত—
সূর্যটাকে পাঠালো রাত্রির বাড়ি।

ভোর হতে না হতেই বাবা বলে উঠলো—
“ওঠ খোকা,ওই দেখ,
যে জমিটাই স্বপ্ন বুনেছিল তোর দাদু–
ওখানটাই দাউদাউ আগুন জ্বলছে।

আমরা কতকগুলো ছাঁই কুড়ালাম,কতক দীর্ঘশ্বাস।
তারপরই আমরা ঘরপোড়ো গরু,
সিঁদুরে মেঘে আমাদের বড্ড ভয়।

——————-0 0——————

১৪৬জন ৪৫জন
6 Shares

১৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য