সহমরণ

খাদিজাতুল কুবরা ২৮ নভেম্বর ২০২১, রবিবার, ০৪:৫৬:০৮অপরাহ্ন কবিতা ২০ মন্তব্য

 

স্যাঁতস্যাঁতে ঝুপড়িতে বেড়ে ওঠা কচি আবেগ জানেনা আকাশ কত নীল!
সমুদ্র কতটা সফেন আর সুনীল?
আকাশ দেখবে বলে উড়ুক্কু গাঙচিলের ঝাঁকের পিছে ছুটতে গিয়ে ডানা ভেঙ্গেছে উঠোন বাড়ির শালিক।
তবে কী আবেগ পাখির বেহিসেবী পালক?
যত্রতত্র যখন তখন ঝরে যায়….
নির্জন দুপুরে একান্তে ডাকা ঘুঘুকে কি তাড়িয়ে দিতে হবে?
চালচুলোহীন ভবঘুরের স্পর্শকাতর অনুভূতি শূন্য হতে হতে ; যদি মিলিয়ে যায়, দিগন্তের শেষ রেখায়!
যদি আর ফিরে না আসে প্রাণে সঞ্চিত বারুদ শিখায় __
তবে কী জগতের স্বাদ অনর্থ হবে?
নিরানন্দ থেকেই শুরু প্রথম চরণ ; আর নিরাবয়ব আত্মজীবনী অসমাপ্ত লিখে রাখার নাম- ই বুঝি জীবন!
এ বড় অনিয়ম!
কেন নিয়ম অনুসৃত পথটি হৃদয়ে ঢুকেই চকিতে দেখে; ভেতরে অজস্র ফাটল?
দিশেহারা হয় সুখের প্ররোহ, অসুখ বিস্তার লাভ করে পরজিবী ছত্রাক আশ্রয় করে।
গোটা একটি জীবন পরে নেয় বৈরিতার  বৈরী আবরণ!
কার দোষ কার গুণ বিচার্য নয়, এ শুধুই জীবন__
যার প্রতি রেখায় আঁকা বাঁকা বক্ররেখার আয়তলোচন দৃষ্টি!
এ বড় নেশাতুর! বিভোর হলেই নিশ্চিত মরণ! এ মরণ যন্ত্রণার! এ মরণ দহনের!  এ মরণ আজীবন বন্দিত্বের!
এ মরণ কষ্টের সহমরণ!

৩২২জন ১৪৭জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ