সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

সমুদ্রে যাবই

ছাইরাছ হেলাল ২৪ আগস্ট ২০২১, মঙ্গলবার, ০৭:১৭:০৫অপরাহ্ন অণুগল্প ২২ মন্তব্য

 

কুড়িয়ে পেয়েছি এক সমুদ্র লবণ, জাহাজ ডুবির, প্রাণে বেঁচে যাওয়া এক নাবিক কে
বলেছিলাম–লবণটুকু তোমার হলে নিয়ে যাও, রাজি হয়-নি;

সান্ত্বনা-হৃদয়কে বলেছিলাম– টক টক কমলা কিনে দেব এক ঝুড়ি,
লবণ মিশিয়ে মজা করে খেও, যখন তখন যেভাবে যেসময় ইচ্ছে করে,
ভেংচি কেটে ভেগে/পালিয়ে গেছে;

পথহারা অরণ্য কে ডেকে বলেছিলাম—দাঁড়াও না একটু, খোলা হাওয়া বুকে টেনে,
দুর্বল দীর্ঘনিঃশ্বাস ফেলে বলে–আমি তো কবেই মরে গেছি!!

আনন্দ-ভড়ং- এ উত্তল উষ্ণতার অনুভূতিতে আরামদায়ী আত্মীয় আত্মীয়কে
ডেকেছিলাম– দূরে দাঁড়িয়ে প্রচণ্ড বিরক্তি ছুঁড়ে জানিয়ে দিয়েছে–
সব সময় তাপহীন আলোহীন ম্যার ম্যারে নড়নচড়নহীন কবিতা-ফবিতা ভাল্লাগে-না!!

শোরগোলের সঙ্গীতে কর্মচঞ্চল সমুদ্র শরীরী উদ্যম-উদ্দাম নৃত্যে বয়ে যায়,তাচ্ছিল্যের ভঙ্গিতে!

ছবি নেটের।

২০৪জন ৩৬জন
0 Shares

২২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য