সব কেন’র উত্তর পাইনা কেন?

তৌহিদ ১৪ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১২:৪০:৫৮অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৭ মন্তব্য

এক-

কাঠবিড়ালির লেজ লম্বা কেন?

আমি- বাবু, ঐ যে দেখো কাঠবিড়ালি!

বাবু- ভাইয়া, ঐটা কাঠবিড়ালি?

হ্যা ভাইয়া, দেখেছ কত্ত সুন্দর! পিঠে লম্বা ডোরাকাটা আর কি লম্বা লেজ!

ভাইয়া, কাঠবিড়ালির লেজ লম্বা কেন?

– তাতো জানিনা ভাইয়া।

বাবু- কেনো?

লম্বা লেজ দিয়ে ওরা কি করে?

– আমি এটাও জানিনা বাবু। নিশ্চই কোন কাজ আছে লেজটার।

বাবু- কেন? তুমি জানোনা কেন?

মনে প্রশ্ন এলো, আরে তাইতো! এত ছোট কাঠবিড়ালের লেজ এত্ত লম্বা কেন? এটা আমি জানিনা কেন?

দুই-

চীনাদের চোখ ছোট কেন?

আমি- এই শুনছ? একটু এদিকে আসোনা!
সে- হ্যা, বলো।

সুঁইয়ের মধ্যে সুতা আটকিয়ে দাওতো।
আমি- আচ্ছা দাও।

কিছুক্ষণ পরে,

সে- এই নাও হয়ে গিয়েছে।

আমি- বাহ! তুমি এত তাড়াতাড়ি কিভাবে পারলে? আমি পারিনা কেন?

সে- আজ থেকেই প্রাকটিসে লেগে পড়, টুকটাক সেলাই কর। দেখবে তুমিও পারবে, অভ্যেস হয়ে যাবে।

আমি মনেমনে – দরকার নেই সুঁইয়ে সুতা আটকানোর কৌশল শেখার, পাছে একসময় তুমি আমাকে বলবে সুতা আটকানোর কথা। পারিনা, এই ভালো আছি। উহ! অসহ্য কাজ এই সুতা আটকানো।

আচ্ছা, সুঁইয়ের ফুটো এত ছোট কেন? যারা সুঁই বানায় তাদের চোখ ছোট ছোট তাই বলেই মনে হয়। চীনারাতো এরকমই তাইনা?

আচ্ছা চীনাদের চোখ এত্ত ছোট ছোট কেন?

তিন-

আইসক্রিম আছে হটস্ক্রিম নেই কেন?

কিরে আইসক্রিম খাওয়াবি?
আমি- না দোস্ত, এই ঠান্ডায় আইসক্রিম খেলে টন্সিলের সমস্যা হবে, আমার আবার সাইনাসের সমস্যাও আছে তুইতো জানিস।

তাহলে তুই খাস না, আমাকে খাওয়া?

আমি- হ্যা, তুই খাবি আর আমি চেয়ে চেয়ে দেখবো? তা হবেনা। খেলে দু’জনেই খাবো, না খেলে নেই।

দ্যাখ, এসব ফাঁকিবাজি চলবে না। দে আইসক্রিমের অর্ডার দে।

আমি- এই যে ভাই, শুনছেন? আপনার দোকানে হটস্ক্রিম আছে?

দোকানদার অবাক চোখে জিজ্ঞাসা করলো- হটস্ক্রিম কি?

আমি- আরে ভাই এটা ঠান্ডার দিনের আইসক্রিম। আছে?

না ভাই, এই নাম জীবনেও শুনিনাই।

ধুর! ভাই, কি দোকান আপনার! এত এত মাল আর হটস্ক্রিম নেই?

দোস্ত, সত্যি হটস্ক্রিম নামে কিছু আছে?

আমি মনেমনে – হুহ! সেদিন আমাকে ঝালমুড়ি খাওয়াসনাই তোর কাছে ৫০০ টাকা ভাংতি নাই বলে। আর আজ আমাকে খসাচ্ছিস? ব্যাটা খাটাশ!

আচ্ছা ঠান্ডার দিনের আইসক্রিম নেই কেন? হটস্ক্রিম কেউ আবিষ্কার করেনি কেন?……….

এরকম কত কেন’র উত্তর আমরা জানিনা কেন? এত এত কেন’র উত্তর আমাকে কেউ দেয়না কেন? এই যে আজ লিখলাম- তাও বা কেন?

মন থেকে উত্তর এলো- এমনি এমনি, আবার কেন?

আমি- এমনি এমনিই বা কেন? ওরে পাগল মন তুমি নিশ্চুপ কেন?

এরপরে মোবাইল স্ক্রীনের কার্সরটি শুধু ভেসে উঠছে আর তলিয়ে যাচ্ছে কেন? আমি আর লিখতে পারছিনা কেন?

কেন? কেন? কেন?

২০৩জন ৩৪জন
27 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য