কোন এক বিরল সন্ধ্যায়
ঠাটা-মৃত্যুর অভিশাপে ভারাক্রান্ত
অন্তঃসত্ত্বা এ হৃদয়,
খোঁজে একটুখানি উন্মুখ জানালা;
বিনিদ্র রাত্রির শঙ্কায় একটু বাতাস,
গলে-যাওয়া চাঁদের হিম-শ্রী হ্রদে
খরতাপের অন্তহীন একাকীত্বে।

ক্ষণ-জীবনের জল-বৃষ্টিতে নির্বাক বিস্ময়ে ভাবে,
কে আর রাখিবে কারে আধার-স্মরণে!

আচ্ছন্নের মসৃণ খুশি, অনুপকারী প্রত্যহের ফুটে থাকা
কিরণ-কল্পন আফসোসের কারণ,
সবেধন-নীলমণি চাঁদ, ফিকে আজ দূর আকাশে
স্তব্ধতায় ডুবে আছে, নরম-সন্ধ্যা শুয়ে আছে নিসর্গ-শিয়রে,
মৃদু-উজ্জ্বল আলো ফেলে, বৈপরীত্যের অবগুণ্ঠনে!

১৫২জন ১৯জন
14 Shares

২২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য