শ্রাবণে আকাশে মেঘের লুকোচুরি খেলা। কত রূপে সাজে সে বেলা অবেলায়। ক্ষণে ক্ষণে সে কত রং বদলায়। মাঝে মাঝে ঢেকে দেয় প্রভাতের সূর্যকে। ঘুম থেকে জেগেই দেখি আকাশ ছেয়ে আছে কালো মেঘে। আকাশের মেঘ ভর করে মনের ছায়ায়। আকাশ ফুঁড়ে নামে বৃষ্টি। আমার চোখে ভাসে তখন বসের হাতে লাল কালি।

যদি হয় ছুটির দিন। মনে বাজে তাক ধিনা ধিন। বৃষ্টি এলে উদাসী মন গেয়ে উঠে- অনেক বৃষ্টি ঝরে তুমি এলে, যেন একমুঠো রোদরো। বারান্দায় দাঁড়িয়ে বৃষ্টির ফোঁটায় ফোঁটায় ঝরে পড়া দেখতে কি যে ভালো লাগে। বাতাসের সাথে বৃষ্টির রিমঝিম শব্দের ঢেউ খেলে যাওয়া। হারিয়ে যেতে ইচ্ছে করে বৃষ্টির মূর্ছনায়। ওই বলাকারা উড়ে যায় মেঘের পানে। ওদের মতো যদি পারতাম উড়তে। একটিবার ছুঁয়ে যেতাম মেঘের কোলে। মেঘকে বলতাম –কেন শ্রাবণে আসো তুমি। বৃষ্টি হয়ে ঝরে পড়োনা এখনি। একবার না হয় এসো বসন্তে।

ছবি সংগ্রহ: সোনেলা অ্যালবাম।

১৯৩জন ৬৯জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য