শৈশবের স্মৃতি

প্রদীপ চক্রবর্তী ১৭ জানুয়ারী ২০২১, রবিবার, ০৯:২১:৫১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১১ মন্তব্য

গাঁয়ে এখনো সন্ধ্যা নামেনি।
পুরনো প্রাচীরের দেওয়াল জুড়ে ঘিরে আছে শতবর্ষের  অজস্র বিটপী।

বোরো ধানের কচি পাতা উন্মুক্ত দক্ষিণার বিলাসী হাওয়ায় উড়ছে।
পাখিরা সবুজাভ ধানের পাতা থেকে ছোট ছোট  ঘাসফড়িং গুলো ধরে ধরে খাচ্ছে।
ঐ দূরের খোলা মাঠে রাখাল ছেলে গো পৃষ্ঠে বসে ঘুড়ি উড়িয়ে ঘরে ফিরছে।

ধীরে ধীরে বসছে সূর্য পাটে।
আবাসনে ফিরছে পাখিরা।
পড়ন্ত বিকেলে গোধূলির আরক্তিম আলো জলেশ্বরীতে রঙ মাখছে।

সন্ধ্যার আলো গাঢ় হলে বিন্দু পিসির হাতে বানানো নারিকেলের নাড়ু খেয়ে ঠাকুমার মুখে ভূতের গল্প শোনা।
আর আলোকিত পূর্ণিমার চাঁদ দেখে হলুদ গাঁদার  পুলকিত প্রেমে পড়া।
এসবে লুকিয়ে আছে আমার শৈশবের কত স্মৃতি।

শীতের এ কুয়াশারণ্য সন্ধ্যায় সে স্মৃতি গুলো যখন মনে পড়ে তখন অনুভবে ফিরে যাই পুরনো অতীতে!
আর এ পুরনো অতীত মানে কত স্মৃতি।
কত পড়ন্ত বিকেলে ধূলোবালি উড়িয়ে ঘরে ফেরা।
কিন্তু বাস্তবতায় এসবে নিজেকে অবগাহন করতে পারিনা।

আজকাল সে স্মৃতি গুলো যখন মনে পড়ে তখন ব্যস্ততা আঁকড়ে ধরে!
আর এ ব্যস্ততায় প্রিয় মানুষ গুলো একে একে চলে যায় অজানায়, অদেখায়।

ছবিঃ সংগৃহীত।

২৫৮জন ১১৬জন
15 Shares

১১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য