চাওয়া-পাওয়ার বিড়ম্বনায় দোদুল্যমান যেখানে স্বার্থপরতা, সেখানে অপ্রত্যাশিত সার্থকতা হলো নিজেকে গুটিয়ে রাখা। ক্ষণস্থায়ী আনন্দলাভের মোহে কি দরকার বিরাগভাজন হবার?

আমি ভারমুক্ত হতে চাই অথবা সমভারে সবার সাথে এগুতে চাই। আসক্ত-অনাসক্ত গন্ডীর সীমা পেড়িয়ে হতে চাই নিষ্কলঙ্ক তৃপ্ত লেখক।

নিজের বস্তুনাশের দুঃখ নেই, কারো উপর অসন্তুষ্টির প্রকাশ নেই। আমি মুক্তি খেলার নির্মল আনন্দ লাভে মত্ত দূরাকাঙ্ক্ষায় ছুটোছুটি করা প্রবাহমান কালের হাতে বন্দী নই।

তাসের খেলাঘরে হৃদয়কে সঁপে দিয়ে আমি শুদ্ধ ভালোবাসাকে বিলাতে এসেছিলাম। যার বেড়ী পায়ে গেঁথেছি, বাসনা-মুঠিতে মিথ্যে ভ্রমে নাগালে পেয়েছি অহমের থালা।

জ্ঞান দিতে নয়-
চিরদিনের অভ্যস্ত পথে পাঁপড়ি ছড়িয়ে, সাবধানী বিবেচক মানুষের ভালোবাসাকে শেকলমুক্ত করতে এসেছিলাম। আমি সবকিছু ভুলে অহেতুক বিচার বিতর্কের বন্ধন ভাঙ্গাতে এসেছিলাম।

৪৭১জন ৩৩১জন
0 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ