শূন্যতা

প্রদীপ চক্রবর্তী ৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শনিবার, ০৫:০৮:৫৭অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৬ মন্তব্য

প্রতিটি নক্ষত্রের মতো একা হয়ে যাওয়া দিঠি গুলো আজ কাউকে অন্তর্বেক্ষণ করেনা।
পৃথিবীর ব্যস ব্যাসার্ধের ধমনী জুড়ে কেবল শূন্যতার অশ্রুপাত।

ক্লান্ত হয়ে যাওয়া শরীরের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গ যখন সুখ খুঁজে তখন অক্সিজেনের মাত্রা কমে যায়।
নিজেকে আর সবল করে তোলা হয়না।
সমুদ্রের নোনাজল আর নদীর তীরে ফুটে ওঠা কাশফুল রোজ মেঘমালার সাথে জলকেলি করে।
উদার বক্ষে প্রকৃতি তখন প্রেম বিলায়।

ভরদুপুর পেরিয়ে পাড়ার গাঁয়ে বিকেল হলে সন্ধ্যা নামে।
পাখিরা তখন পাতাঝরা হিজলের ডালে আবাসন খুঁজে।
শূন্যতা কাটানোর জন্য ঘরফেরা পাখিদের দিকে খানিকক্ষণ চুপ করে বসে থাকি।
আর ভাবি পাখিদের মতো যদি আমার উড়ে বেড়ানোর সীমান্ত উন্মুক্ত হতো?
তাহলে পৃথিবীর উদার বক্ষে আমিও একদিন ভবঘুরে হতাম। আর দিক হতে দিগন্তে ছুটে বেড়াতাম।
কিন্তু আমি যে শূন্যতার কাছে বন্দি।

বিকেল হলে কখনো নদীর তীরে,কখনো দূর্বাদলের উপর আসন পেতে শরতের অর্গলিত বৃষ্টি বিলাসে হারিয়ে যাওয়া পাখির পালক খুঁজে বেড়ানোর বিলাসিতায় মত্ত হতাম।
সে সুবাদে রঙিন প্রজাপতির পেছনেও ছুটে চলতাম।
যদি মুহূর্তরা ফিরিয়ে দেয় পুরনো অতীত।
সে আশায় অনেক প্রহর কাটিয়েছি কিন্তু আজও ফিরে যেতে পারিনি পুরনো অতীতে।
বরং শূন্যতা আমায় গ্রাস করেছে।

সময়ের স্রোতে প্রতিটি শব্দ লিখতে গিয়ে আমার স্মৃতিশক্তি লোপ পাচ্ছে।
ক্ষতবিক্ষত হচ্ছে যত্নে রাখা প্রতিটি বর্ণমালা।

.
ছবিঃ সংগৃহীত।

১৮৬জন ৪২জন
0 Shares

২৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য