সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

শুধুই কষ্টের না বলা স্মৃতি

শামীনুল হক হীরা ২৯ মে ২০২১, শনিবার, ১১:৪৭:২৪পূর্বাহ্ন কবিতা ৮ মন্তব্য

একটি ছেলে বড়লোক মেয়েকে ভালবাসে
ছেলেটি মেয়েটির নাম জানেনা,
বড়লোক হওয়ার মেয়েটি পাত্তাই দেয় না
ছেলেটি কোন বাধা মানেনা।
মেয়েটি কলেজ যাবার প্রতিদিন ছেলেটি
পথের মাঝে দাঁড়িয়ে থাকে,
নাম জানেনা বলেই মেয়েটিকে ছেলেটি
অনামিকা বলে ডাকে।
মেয়েটিকে মনেপ্রাণে ভালোবাসে ছেলেটি
তাকে বুঝাতে চায়,
আর প্রতিবার এই মেয়েটির কাছে ছেলেটি
শুধুই কষ্ট পায়।
ছেলেটি অপমানিত হয়েও বার বার
ছুটে যায় তার কাছে,
কিছু না থাকলেও বুঝাতে চায় ছেলেটি
মনের ভালোবাসা আছে।
মেয়েটি বিরক্ত হয়ে ছেলেটিকে শিক্ষা
দেবার সিদ্ধান্ত নেয়,
আর টাকা আছে বলেই বকাটে ছেলেদের
অনেক টাকা দেয়।
পরদিন সকালে খবরের কাগজ দেখে
মেয়েটি চমকে গেল,
একটি ছবি নিচে লেখা সংবাদ দেখে
মন হলো এলোমেলো।
ছেলেটি আর নেই যাকে সে সবসময়
অনামিকা বলে ডাকত,
প্রতিদিন কলেজ যাবার সময় অপেক্ষায়
রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকত।
কলেজের সামনে ভয়ঙ্কর সড়ক দুর্ঘটনায়
ছেলেটির প্রাণ গেল,
খবরের কাগজের দিকে তাকিয়ে মেয়েটির
চোখে জল এলো।
মন খারাপ করেই কলেজে গিয়ে দেখে
আজ জায়গাটা শুন্য,
ছেলেটি বুঝি বিদায় নিল তার ভালোবাসা
না পাওয়ার জন্য।
সব কিছু ভাবতে ভাবতে মেয়েটির বুকে
ঝড় নেমে এলো,
কিছুদিন পর প্রকৃত ভালোবাসার টানে
মেয়েটিও চলে গেল।

৩৮৬জন ১০৯জন
0 Shares

৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য