শিকার —- তিন

উর্বশী ৬ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০২:৩৯:০৩অপরাহ্ন গল্প ১৬ মন্তব্য
  • পরিস্থিতি  সামলে নিয়েছে লম্বু। তরুনীকে ঠান্ডা গলায় বললো “দিয়ে দিন ওটা “। আমার কিন্তু কোন ধরনের ঝামেলা করার ইচ্ছে নেই।
  • কতবার বলবো  নিইনি আমি। দেখুন, আমি  চোর নই। আপনার পকেটে হাত- টাত  কিছুই ঢোকাইনি।
  • কিন্তু আমি আপনাকে চুরি টা করতে দেখছি, ম্যাডাম,আবার বললো দারোয়ান।
  • ঠিক আছে,নিজের কাজ যথারীতি  শুরু করে  দিল পুলিশ। প্লিজ, আপনাকে আমার সাথে আসতে হবে ইয়ং লেডি। আর আপনাকেও স্যার, দামি কাপড়ে সজ্জিত লবমা লোকটাকে উদ্দেশ্য করে বললো। পুলিশ স্টেশনে যেতে হবে আপনাদের। একটি ক্যাব ডাকোতো দারোয়ান কে বললো পুলিশ।
  • ‘আমি চুরি করিনি’ ক্যাবে উঠতে উঠতে একই কথার পুনরাবৃত্তি করলো তরুনী।অবশ্য গাড়ী চলতে শুরু করতেই শান্ত হয়ে বসে রইল। অন্যদিকে চুরির ভুক্তভোগী জানালার বাইরের দৃশ্য দেখায় মনযোগ   দিল। সেদিকে লক্ষ্য নেই পুলিশের। তরুনীর দিকে চোখ আঠার মত সেঁটে আছে। খেয়াল করছে বাইরে কোন কিছু ফেলে দেয় কিনা। দারোয়ানের কথার বিশ্বাস আছে পুলিশ টার।
  • গাড়ী থানায়  পৌছাতেই আগের মত ঘ্যানর ঘ্যানর শুরু  করলো তরুনী।
  • মেয়েটাকে চেক করা দরকার ঘটনার বিস্তারিত শুনে  ঘোষণা করলো ইন্সপেক্টর। নারী পুলিশের সাথে ইন্টারভিউ রুমে নিয়ে যাওয়া হলো তাকে। জেরা শুরু  করার  আগেই তরুনী নিজের পকেট থেকে সিগারেটের কেস বের করে।  টেবিলে রাখলো। যেটা খুঁজছেন, সেটা । আর আমার পার্সটাও নিন। হ্যাঁ ,  এবার ওই কাগজটা বের করুন প্লিজ।  কাগজটাতে নোট লেখা আছে। প্লিজ একবার পড়ে দেখুন।
  • তরুনীর এমন অদ্ভুত অনুরোধে থতমত খেল  মহিলা পুলিশ । তবে কথামত কাজ করলো।তাতে লেখা ছিল —-++
  • ” আমি চুরিটা করেছি।নইলে যার কাছে থেকে চুরি করেছি,তাকে পুলিশ স্টেশনে আনা  সম্ভব হতো না। তাই একমাত্র পথটাই বেছে নিতে হয়েছে। লম্বা লোকটার নাম  মিষ্টার ওয়াটসন ওরফে  ক্রিষ্টিপার ওরফে ম্যাক।মিশিগান ডেট্রয়েট থেকে  শুরু করে নিউইয়র্ক, মেলবোর্ন  কলম্বো,লন্ডনের পুলিশরা তাকে হন্য হয়ে খুজছেঁ। মারাত্মক ঘাঘু  অপরাধী  লোক টা “
  • আর আপনি কে ? –+++++
  • চলবে—+++
২৩৩জন ৮৭জন
0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য