শিকার —– চার—- শেষপর্ব

উর্বশী ৭ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার, ১১:৫৩:৩৮পূর্বাহ্ন গল্প ২১ মন্তব্য

আর আপনি কে ?  পুলিশের বিহবল ভাব কাটছিল না।

“আমি ডিটেক্টিভ  ন্যান্সি মরগান।নোটটা আপনার বসের কাছে নিয়ে যান, প্লিজ। এক্ষুনি ”

কিছুক্ষণ পরেই হন্তদন্ত হয়ে ছুটে এলেন ইন্সপেক্টর। তার মনের ভাব বুঝতে পারলো তরুণী। ‘ আপনি নিশ্চিত’ এই লোকটাই  ডেট্রয়েটে ব্যাংকের ম্যানেজারকে গুলি করেছিল ? আপনার কোন ভুল হচ্ছে না তো  ?

ফুঁপিয়ে কাঁদতে শুরু করলো তরুনী। ” আমার চোখের সামনে, আমার  মাইকেল কে  গুলি করেছিল ম্যাক। তাকে খোঁজার জন্যই আমি পুলিশে যোগ দিয়েছিলা। এতটা দিন এই লোকটাকেই খুঁজে বেড়িয়েছিলাম আমি ” আর আজ  এতদিন পর —

ইন্টারভিউ রুম থেকে  দ্রুত বেড়িয়ে গেল পুলিশ।    গোলমাল শোনা গেল অন্যদিক। কিছুক্ষণ বাদে শান্ত হয়ে গেল পরিবেশ। পাখি প্রতিবার ফাঁকতালে পালালেও এবার আর সুযোগ পায়নি।

আমার মনে হয় আপনি ঠিক বলেছেন।আধঘন্টা পরের ঘটনা। ম্যাক এখন শিকার করা  জিনিস,একদম বন্দী খাঁচায় যাকে বলে।   লোকটা ম্যাক ই বটে। তবে আপনাকে সাহায্য করার জন্য  আমাদের সাহায্য নিতে পারতেন। এতটা ঝুঁকি  নেয়া উচিৎ হয়নি  আপনার।

” জানি” ন্যান্সির গলা ভেঙে  এলো  আবার। টপ টপ করে  পানি গড়িয়ে পড়ছে গাল বেয়ে। কিন্তু আমি চেয়েছিলাম শয়তানটাকে নিজে থেকেই গ্রেপ্তার করতে

থানা ছেড়ে বাইরে এলো ন্যান্সি ।    পোষ্ট অফিসে গিয়ে নিউইয়র্ক পুলিশ ফোর্সে   জরুরী টেলিগ্রাম করতে হবে। খোলা আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকলো কিছুক্ষণ।  তার মনে এক অদ্ভুত প্রশান্তি কাজ করছে।

যুগে যুগে ন্যান্সিরা হয়তো এরকম কঠিন  বাস্তবতার সাথে  জীবন সংগ্রামে জয়ী হয়ে এরকম প্রশান্তি  পাবে। অদম্য ইচ্ছাশক্তি,  আত্মবিশ্বাস  নিয়েই হয়তো আগামীর পথ চলা নিয়ন্ত্রণ করবে।

 

১৯০জন ৫৪জন
0 Shares

২১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য