শিউলি ফুলের স্পর্শ

সুরাইয়া পারভীন ১ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার, ০২:৩০:৪৩অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৫ মন্তব্য

গতদিন শিউলি ফুল নিয়ে কথা হচ্ছিল। শিউলি কার কতোটা প্রিয়! কথায় কথায় আমি বললাম কাল প্রভাতে শিউলি ফুল কুড়াতে যাবো। তিনি বললেন..

বাহ্ দারুণ ব্যাপার! তা ম্যাডাম শিউলি হেমন্তে ফোঁটে। এখন কই পাবেন?

-জ্বী না স্যার শিউলি শরৎ কালে ফোঁটে।

সে কাল শিউলি তলায় গেলেই দেখতে পাবেন।

 

মনের মধ্যে কেমন করে উঠলো! আরে ধুর এতো বছর থেকে জেনে আসছি শিউলি শরৎ কালে ফোঁটে। আর এখন..

উইকিপিডিয়ায় সার্চ দিলাম। কোথাও় লেখা আছে শরৎ আবার কখনো হেমন্ত। গুগলে সার্চ দিয়ে দেখলাম শরতে ফোঁটে  হেমন্ত অব্দি থাকে।

ধুর! কিছুতেই মন মানছে না। স্বচক্ষে দেখতে হবে।

ভোরে উঠে ফজরের নামাজ পড়ে বেরিয়ে পড়লাম। হাঁটতে হাঁটতে পৌঁছে গেলাম শিউলি তলে। সবুজ পাতার সাথে লেগে থাকা লাল শুভ্রর ফুল দেখে চোখ জুড়িয়ে গেলো। তখন একটু একটু কুয়াশা, ভোরের শীতল বাতাসের স্পর্শ। দারুণ অনুভূতি।

 

গাছ ভর্তি শিউলি থাকলেও একটা নিচে পড়েনি। ধুর মন খারাপ হয়ে গেলো! এতো প্রিয় ফুল না ছুঁয়েই চলে যেতে হবে? না কিছুতেই না। প্রয়োজনে গাছে উঠে ফুল তুলবো। তখন একজন বললেন শিউলি এখন ঝরবে না। সূর্য ওঠার সাথে সাথে ই বৃষ্টির মতো ঝরে পড়বে সব গুলো ফুল।

এই প্রথম জানলাম শিউলি শিশির সিক্ত ভোরে নয় সূর্য ওঠা সকালে ঝরে।

 

তাইলে এখন আর গাছে উঠে পাড়ার দরকার নেই। তার চেয়ে বরং জগিং সেরে আবার আসবো শিউলি তলে, শিউলি ফুল কুড়াতে। যেমন ভাবা তেমন কাজ

জগিং শেষ করে ঘেমে ঘেঁটে চলে এলাম শিউলি তলে। তখন সময় ৬:৫০। দু চারটে পড়েছে বটে কিন্তু এতে আমার আকাঙ্ক্ষা পূরণ হচ্ছে কই? আজ সূর্যের হলোটা কী, এখনো উদয় হচ্ছে না কেনো? অপেক্ষা করলাম আরো কিছুক্ষণ। সাদা মেঘে ঢেকে গেছে পুরো আকাশ। না আর অপেক্ষা নয় এবার শিউলির স্পর্শ চাই-ই চাই। গাছ ঝাকিয়ে পড়ে থাকা শুকনো ডাল দিয়ে বেশ কিছু ফুল নিয়ে অঞ্চলে করে ফিরে এলাম ঘরে।

১০০৭জন ৭১৯জন
18 Shares

২৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য