সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

শহুরে বৃষ্টি

সাদিয়া শারমীন ২৪ এপ্রিল ২০২০, শুক্রবার, ১০:৫৯:৫২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৩ মন্তব্য

শহুরে বৃষ্টির এক অন্যরকম মাদকতা আছে।সারাদিন টানা ঝুম বৃষ্টি,আর তার ভিতর কর্মব্যাস্ত মানুষ । হুড তোলা রিক্সার টুং টাং আর বৃষ্টির সুরের ঐকতানে মুগ্ধ কপোত,কপোতি। ভাঙা রাস্তায় জমে থাকা নোংরা পানিতে দাপাদাপিতে ব্যস্ত শিশুর দল।ছাদের কার্ণিশে ঝিমোতে থাকা জুবুথুবু দাঁড় কাক দম্পতি বৃষ্টি থামার অপেক্ষায়।।পাড়ার নেড়ি কুকুরও আশ্রয় নেয় কোনো এক ছাউনিতে মানুষের সাথে। টং দোকানে ভিড় জমে ভিজে যাওয়া মানুষের।তারা মেতে ওঠে চা উৎসবে।কখনও যুক্ত হয় ধুম্র শলাকা।নীল শাড়ি আর খোঁপায় জড়ানো বেলি ফুলের মালায় অপেক্ষারত কোনো এক তরুণী  তার প্রেমিকের জন্য।আর প্রেমিকটিও  হাতে কদমগুচ্ছ নিয়ে তৈরীই থাকে ভালোবাসার মানুষটির জন্য।বর্ষা উদযাপনে মেতে উঠতে চায় যেন তারা।কোনো এক অচেনা যুবক ফুটপাথ ধরে হেঁটে চলে আর শিষ দিয়ে সুর তোলে”তোমার খোলা হাওয়া..।”আর সেই সুরে আনমনা হয়ে যায় মন।ভোজন রসিকদের ঘরে তখন খিচুরী-মাংসের উৎসব।আর কফি হাউস গুলো মেতে ওঠে আড্ডায়।খানিক সময়ের জন্য হলেও মানুষের অভিমানগুলো জমা রাখে মেঘের কাছে। মেঘ বুঝি আরো বেশি কান্না ঝরায়  বৃষ্টি রূপে। কখন যেন ঝুপ করে সন্ধ্যা নামে।রাতের নিয়ন আলো জ্বলে ওঠে। সে আলোয় বৃষ্টিভেজা পীচ ঢালা রাস্তায় রঙিন আলো গুলো প্রতিবিম্ব হয়ে ধরা দেয়।

 

 

৮৯৮জন ৭৯৭জন
22 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য