শততম পোস্টের অভিনন্দন

সাবিনা ইয়াসমিন ২৫ জুন ২০২০, বৃহস্পতিবার, ০৬:৩১:৫৯অপরাহ্ন শুভেচ্ছা ৪৪ মন্তব্য

 

** আপনি আপনার পোস্টে আসা কমেন্ট গুলোর জবাব দেন না কেন? এরপর থেকে পোস্টের জবাব দিতে ইচ্ছে না করলে লেখার শেষে লিখে রাখবেন মন্তব্য নিষেধ। তাহলে  আর আমরা কমেন্ট দিবো না 😡😡**

এরপর আমি শিউর ছিলাম রাশভারি এই ভদ্রলোক বুঝি আমার উপর ক্ষেপে যাবেন, শুধু তাই নয়, হয়তো তিনি ব্লগেই আর লিখবেন না।

কিন্তু  আমার বেলায় প্রায় সময় যা হয়, এবারও তার ব্যতিক্রম হয় নি। আমার ধারণা ভুল প্রমানিত করে ভদ্রলোকটি কেবল লেখা দিয়েই ক্ষান্ত হোননি, প্রায় প্রতিটি ব্লগারের লেখাতেই তিনি উপস্থিত হোন। সুন্দর, মার্জিত ভাষায়/ ব্যাখ্যায় তিনি তার গুণের প্রকাশ রাখেন সর্বত্র।

সাহিত্য, সংস্কৃতি, ইতিহাস, কবিতা, গল্প, সমসাময়িক, মনীষী দের জীবনী, এমন  কোনো বিভাগ নেই যেখানে তার লেখনীর গুণগত মানের প্রকাশ ঘটেনি। তার লেখা পোস্ট গুলো আমাদের  ব্লগকে দিনকে-দিন সম্মৃদ্ধ করছে, করবে আগামীতেও।

ব্লগার মাহবুবুল আলম। অত্যন্ত আন্তরিক, অমায়িক, সদা মার্জিত, সুদর্শন এবং গুনী একজন ব্লগার। ২০১৫ সনের ১৯ জুন আমাদের সোনেলায় তিনি তার প্রথম লেখা ‘আশির কাব্য নিয়ে আসেন। সোনেলায়  আজ পূর্ণ হলো তার ১০০ তম পোস্ট 🙂 🙂

ব্লগের পক্ষ থেকে আপনাকে অনেক  অনেক  অভিনন্দন  ও শুভেচ্ছা  জানাই প্রফেসর  সাহেব।

★ মাহবুবুল আলমের জীবন সংক্ষিপ্ত বৃত্তান্ত

জন্ম ও বংশ: কবি-কথাসাহিত্যিক, কলামিস্ট ও শিক্ষাবিদ মাহবুবুল আলম, ১৯৫৯ খ্রীষ্টাব্দের ১ জানুয়ারী, কুমিল্লা জেলার তিতাস উপজেলাধীন হাইধন কান্দি গ্রামের সম্ভ্রান্ত মোল্লা পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও স্বনামধন্য শিক্ষক সাহেব আলী মাস্টার, মা বিদুষী গৃহিনী রাবেয়া খাতুনের নয় সন্তানের মধ্যে মাহবুবুল আলম তাঁদের ষষ্ঠ সন্তান।

লেখালেখি: সত্তর দশকের গোড়ার দিকে তিনি সিলেট সমাচার, যুগভেরী, বাংলার বার্তাসহ বিভিন্ন পত্রিকা সাময়িকীতে ছড়া, কবিতা গল্প ফিচার লিখে তার সাহিত্য প্রতিভার বিকাশ ঘটান। সাথে সাথে সাহিত্যাঙ্গণের সম্পাদক হিসাবে মৌলভীবাজারের সমসাময়িক সাহিত্যানুরাগীদের মুখপাত্র সাহিত্যের কাগজ ‘প্রসূন’ সম্পাদনা করেন। একজন শিক্ষাবিদ হিসাবে দেশের শিক্ষা বিস্তারেও তিনি নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, সেই লক্ষ্যে তিনি প্রতিষ্ঠা করেছেন-সানমুন ক্যাডেট স্কুল এন্ড কলেজ, হলিল্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, মিশো মিউজিক কেয়ার প্রভৃতি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

প্রকাশিত গ্রন্থসংখ্যা: ৩৮। উপন্যাস-৮, কাব্যগ্রন্থ-৯, ছড়ার বই-৩, কলাম সমগ্র-৫, নাটক-৭, গবেষনা-২, শিশুতোষ-২, প্রবন্ধ-নিবন্ধ-২টা।

পুরষ্কার: সাহিত্যক্ষেত্রে অবদানের জন্য তিনি কবিতাঙ্গন এ্যাওয়ার্ড (২০০৭), ড.মমিনুল হক একাডেমি ইউ.কে এ্যাওয়ার্ড (২০০৮) সংশপ্তক বঙ্গবীর ওসমানী পদক, অলইন্ডিয়া চিলরেন্ড লিটারারী ফউন্ডেশন ‘উৎপল হোমরায়’ স্মৃতি পুরস্কার-২০১২ ও ভারতের পূর্ব মেদিনীপুরের কবি ও কবিতা পত্রিকা সন্মাননা-২০১২, দুইবাংলা কবিতা উৎসব সন্মাননা-২০১৩, সাপ্তাহিক কালপুরুষ পত্রিকা সন্মাননা-২০১৩সহ বিভিন্ন পদক ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন।

ভালো  থাকুন, সুস্থ এবং নিরাপদে থাকুন সারাক্ষণ। অবারিত শুভ কামনা 🌹🌹

২৩১জন ১৪জন
59 Shares

৪৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য