লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড এর কথা শুনে জনতা প্রথম ভেবেছিল অসমতল একটি মাঠ । এটি সমতল করার দায়িত্ব তাঁদের নয় , একারনে তাঁরা নিঃস্পৃহ ছিল। শুধু সরকারী ক্রীড়া সংস্থার জনবল মহা ধুমধামে মাঠ পরিস্কার কাজে নিয়জিত ছিল , কিন্তু তা ছিল ভুল। তিনি আসলে দুটো সমান আয়তন এবং সমতল দুটো মাঠের কথা বলেছেন।

জনতার উপর তাঁর প্রভাব কম নয় , তাঁর পক্ষের সেরা খেলোয়ার ফারুক , আনোয়ার বা ফকরুল প্রায়ই বলে ফেলেন ৯০% জনতা তাঁদের সাথে আছেন, কেউ খেলোয়ার হয়ে , কেউ দর্শক হয়ে । মাঝে মাঝে তাঁদের সেরা খেলোয়াড়গণ  দু আংগুলের ভিক্টরি চিনহ দেখান।

জনতা কিছুদিনের মাঝেই বুঝে গেল তাঁর কথার অন্তর্নিহিত অর্থ । যেহেতু তিনি অসম্ভব জনপ্রিয় , জনতা তাঁকে আদর্শ মানেন , সেহেতু জনতাও এই লেভেল প্লেইং ফিল্ডে খেলার জন্য প্রস্তুত হতে শুরু করে দিল।

তাঁদের ৩ দিনের হরতাল নামক খেলায় বাবার সামনে পুড়ে গেল সন্তান , দুই শিশু সহ অগ্নি দগ্ধ হলো প্রায় ১২ জন । সর্বমোট নিহত হলেন ২৩ জন। নিহতদের ২০ জনই সাধারন জনতা , যারা প্রস্তুত এখন নেত্রীর লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডে খেলার জন্য। পুড়ে গেল দুই শতাধিক যানবাহন । এটি আজকের সর্বশেষ সংবাদ । নেত্রী খেলছেন জনতার সাথে। তাঁর প্রতিপক্ষা জনতা।

আগামী তিনদিনের সম্ভাব্য খবরঃ
১ / জনতা বিএনপি জামাত এর বিরুদ্ধে অবরোধ কর্মসূচী ঘোষনা করেছে।
২/ সকাল দশটায় নয়া পলটনের বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিএনপি নেতা ফকরুল এবং গয়েশব্র রায়ের গাড়ীতে আগুন দিয়েছে। ভয়ে বিএনপি কার্যালয় থেকে নেতা কর্মীরা পালিয়ে গিয়েছেন। ভিতরে আটকে পরেছেন বিএনপি নেতা আনোয়ার আর পাপিয়া। পাপিয়া জানালার পাশে এসে ইতমধ্যে ২ বার দুই আংগুলের ভিক্টরী সাইন দেখিয়েছেন।
৩ / গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতির ৮ বছরের সন্তানকে জনতা তাঁর গাড়ির মাঝে রেখে পুড়িয়ে দিয়েছে। নাটোর জেলা জামায়াত এর আমীর এর ১০ বছরের ছেলেকে অবরোধকারীরা জলন্ত টায়ারের মাঝে নিক্ষেপ করে উল্লাস করেছে।
বাবুকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না , ধারনা করা হচ্ছে সেও পুড়ে মারা গিয়েছে।  বাবুর বাবা ফারুক পাগলের মত আচরন করায় জনতা তাঁকে পাগলা গারদে নিয়ে গিয়েছে।
৪ / ৬৪ জেলা থেকে সর্বশেষ খবরে জানা গিয়েছে , অবরোধকারী জনতা এখন পর্যন্ত ২৩ জন বিএনপি এবং জামাত সমর্থককে মেরে ফেলেছে। বিএনপি , জামাত নেতা কর্মীদের বিভিন্ন বাড়িতে ঢুকে জনতা প্রায় ৮০০০ গাছ কেটে ফেলেছে। দুইশত এর বেশী গাড়ী পুড়িয়ে দিয়েছে , শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিসংযোগ , ভাংচুর করা হয়েছে।
৫ / বিএনপি প্রেসিডেন্ট খালেদা জিয়ার বাড়ীর সামনে অবরোধকারী জনতা অবস্থান নেয়ায় তিনি অবরুদ্ধ হয়ে আছেন।
মুন্নি সাহাঃ ম্যাডাম আপনার লেভেল প্লেইং ফিল্ড সাধারন জনতা আন্তরিক ভাবে গ্রহন করেছেন। এ ব্যাপারে আপনার অনুভূতি কি ?
খালেদা জিয়াঃ গত তিনদিন আমার বিউটিশিয়ান আমার বাসায় আসতে পারেননি 🙁 আগে সেজে নেই এরপর কথা । আপনি আসতে পারেন।

১৫২জন ১৫২জন
0 Shares

১৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য