সকাল বেলা বা ঘুম থেকে ডেকে উঠিয়ে মা বললেন- গাছের লেবুটা না পড়ে গেছে। দেখলাম মায়ের মুখ ভার। মা আমাকে সাহস করে বলল- সে নিচে গিয়ে দেখবে লেবুটা পাওয়া যায় কি না। আমি বারণ করতেই মা চুপ হয়ে গেলেন। আমার ছোট্ট বারান্দায় টবের লেবু গাছটিতে, মাশাআল্লাহ কয়েকটি লেবু ধরেছে। গাছগুলোর পরিচর্যা মা ই করে থাকেন। গাছের ডাল বারান্দার গ্রিলের ফাঁক দিয়ে বাহিরে প্রসারিত। এই সুযোগে লেবুটির ইচ্ছে হয়েছে নিচ লাফ দিতে। গতকাল মাকে বলেছিলাম লেবুটা ছিড়ে ফেলি পড়ে যেতে পারে। মা বারণ করায় ছেড়া হয় নি। মা তাই এখন খুব আফসোস করছে। মাকে লেবু হারানোর সান্তনা দিলাম। মুখ দেখে বুঝলাম মন ভীষণ খারাপ। হয়তো আমাদের কাছে এটি সামান্য একটা লেবু। মায়ের কাছে পরম যত্নের এক ভালোবাসা। আমার নিজেরও খারাপ লাগছিল। বাজার থেকে কয়েক ডজন কিনে আনা যায় কিন্তু তাতে ভালোবাসার আবেশ টুকু থাকে না। অফিসে যাওয়ার সময় দেখতে পেলাম - অ্যাপার্টমেন্টের সামনে যেখানে গাছ লাগানো আছে। সেখানে লেবু খানি যত্ন সহকারে আছে। বাসার কেয়ার টেকার কে বলে লেবু খানা উদ্ধার করে ব্যাগে রেখে দিলাম। অফিসে যেয়ে মাকে ফোন দিলাম। লেবু পাওয়া গেছে। ফোনের ওপাশ থেকে মায়ের মুখ খানি দেখতে পাইনি। কিন্তু বুঝতে পেরেছি প্রাপ্তির অনুভূতি টুকু। একটি লেবুর পরিবর্তে কয়েক ডজন লেবু এনে দিলেও "মা" এতো খুশি হতেন না। কত তুচ্ছ বিষয়ে কতো বড় আনন্দ পাওয়া যায়।

0 Shares

৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ