লইজ্জা

প্রিন্স মাহমুদ ৭ জানুয়ারী ২০১৪, মঙ্গলবার, ০৬:১২:৪৬পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি, সমসাময়িক ১১ মন্তব্য

তোরা সংখ্যালঘুদের উপর হামলা চালা … ইমান শক্ত কর …
বাংলাদেশে ৭% হিন্দু … তাদের একার ভোট দিয়া নৌকা ক্ষমতায় আসেনা …
তগো এইসব জিহাদের কারনে এরা নৌকাতে ভোট দিতে বাধ্য হয় …
তোরা মুসলমান হইয়া হামলা কর … আমরাও মুসলমান হইয়া চুপ থাকি , এটা নীরব জিহাদ …
বেহেশতও সত্তরটি হুর নিশ্চিত …

আর চুশিল সমাজ … প্রথম আলোর ধর্মীয় উসকানি সহ্য করেন … বেইচা দেন লাজশরম
পারসোনার লাহান মতির কাছে … তোরা ভালোই প্রগতিশীল …

আমার আম্মা যতবার মার্কেটে যান , বাজারে যান … এসে আমারে বলে বাংলাদেশের অনেক মানুষ জান্নাতে যাবে কিন্তু বেবসায়িরা যাবেনা … আমি মানুষ ধার্মিক না …
তবে খুব বড় মুখ করে নিজের ধর্মের পরিচয় দিই .. আমার ধর্ম আরেক ধর্মকে সম্মান দেয় … আমার ধর্ম শান্তির ধর্ম .. এই ধর্মের প্রবর্তক যুদ্ধের সময় নারী ও শিশুকে অনলে জ্বলতে দেননি …

কিন্তু আমার ধর্মের জিহাদি ভাইএরা শিশুদের উপর ককটেল মারে … নারীদের গালিগালাজ করে ..
আমার ধর্মের মানুষরা কিছু হলেই অন্য ধর্মের মানুষের ঘর জ্বালায় , মন্দির ভাঙ্গে …

আমার লইজ্জা লাগে , লইজ্জা লাগে
আমার সার্টিফিকেটে ” মুহাম্মদ ” আছেরে
তাই লইজ্জা লাগে ..

বেহেশতে যাওয়ার যোগ্যতা আমার নেই … কিন্তু এই মুসলিমগুলা বেহেশতে গেলে আমি যাইতে চাইনা .. ঐখানে …

১৯৫জন ১৯৫জন
0 Shares

১১টি মন্তব্য

  • মোঃ মজিবর রহমান

    আজ সুশিল সমাজ দালাল, ইসলামের নাম ভাংগিয়ে এরা চলে এখানে ধর্মের দোষ নেই ধর্ম ব্যাবকারির দোষ।
    এদের কি বলে যে ধিক্কার দিব তা জানা নাই ভাই,
    ভালো লিখেছেন।

  • স্বপ্ন নীলা

    ১. আমি প্রায় প্রতিটি ধর্ম নিয়ে পড়ার চেষ্টা করেছি এবং এর অন্তর্নিহিত অর্থ বোঝার চেষ্টা করেছি,,,,,,এবং এখনো পড়ছি,,,,,,,,,, কোন ধর্মই বলে না মানুষের উপর অত্যাচার কর,,,,,,,এটা প্রতিটি ধর্মের মানুষের মন গড়া ,,,,,,।

    ২. হ্যা ইসলাম শান্তির ধর্ম,,,,,,,,,ভাইয়া তুমি ধর্ম পালন,,,মানুষের উপকার কর,,,,সৎ থাক,,,,,,ধর্মীয় রীতি মেনে চল,,,,,,। আর সেই সাথে অন্যায়ের প্রতিবাদ কিন্ত অবশ্যই করতে হবে,,,,,,,যেটা তোমার এই লেখায় আছে

    ৩. বেশির ভাগ মানুষ কোরআন পড়ে কিন্তু এর ভিতর আসলে কি বলা হয়েছে তা বোঝার চেষ্টা করে না,,,,,,,এটা খুবই ক্ষতি,,,,,,,আরও ক্ষতি এর আগে পিছে কি বলা হয়েছে তা জানে না ,,,শুধুই এক লাইন জেনেই লাফালাফি করা শুরু করে,,,,,,তারা আরো ক্ষতিকর সমাজের জন্য,,,,,,,,,,,

    ৪. আপনার শ্রদ্ধেয় মা ঠিকই বলেছেন,,,,,,,,ব্যাবসায়ীরা সবচেয়ে বেশি বেহেস্তে যাবেন,,,,,,,,আবার অসৎ পথে থাকলে তারা আবার দোজখে যাবে সবচেয়ে বেশি,,,,,,,এটা ধর্মেরই কথা,,,,,,,

    ৫. কোন ধর্মের মানুষের উপর অত্যাচার করা যাবেই না,,,,,,,,কটাক্ষ করা যাবে না,,,,,,,,,,,,শ্রদ্ধা, সহযোগিতা এবং ভ্রাতৃত্ববোধ অবশ্যই থাকতে হবে,,,,,,,,,,,
    ৬. আমাদের পরিবার মুক্তিযুদ্ধের সময় –আমাদের গ্রাম এবং আশে পাশের গ্রামের হিন্দু ফ্যামিলিদের কোন ক্ষতি করতে দেয়নি,,(আমাদের বাড়িতে অনেক হিন্দু পরিবার আশ্রয়ও নিয়েছিল দীর্ঘদিন),,এর জন্য আমার শিক্ষক বাবা এবং আমার কাকুর বলিষ্ট পদক্ষেপ ছিল,,,,,তারা কার্যকর মোটিভেশন দিয়েছিল– এ্যাডাল্ট এবং তরুন সমাজকে,,,,,,,,,। আমার আফসোস এটার খুবই অভাব এখন,,,,,,,। আসলে শক্তি প্রয়োগ করে, ত্যারাব্যাকা কথা বলে, সন্ত্রাস করে, জোড় করে কোন মানুষকে বোঝানো যায় না,,,,,,,,,,,,। লিখ ভাইয়া আরো লিখ,,,,,,,,,,

    ৭. তোমার সার্টিফিকেটে মুহাম্মদ আছে,,,,,,,সমস্যা কি,,,,,,এটা তোমার অহংকার ভাই,,,,,,,তুমি নিজের দিকে নিও না,,,,,,,,,তুমি কলম তুলে নাও,,,,,,,,লিখে যাও সুন্দর মোটিভেশনাল লিখা,,,,,,,,তোমার আশে পাশের মানুষকে বোঝাও,,,,,,,,,,দেখবে শান্তি পাবে
    ৮. আমার বেশির ভাগ বন্ধু বান্ধব হিন্দু, আমার বাবা ভাইয়েরও তাই,,,,,,,,,,,,,,। আমরা আমাদের উৎসবে তাদের দাওয়াত দেই,,,,,,,,,তাদের উৎসবে আমরা যাই,,,,,,,,একে অপরকে আমরা সহযোগিতা করি,,,,কি চমৎকার আমাদের শ্রদ্ধাবোধ,,,,,,,,,,,,। কাকু নেই,,,,,,,,আব্বাও নেই,,,,,,,,,,,। কিন্তু ভাই এখন পর্যন্ত এটাকে আগলে ধরে আছে,,,,,,,,,,,।

    ৯. হিন্দু, মুসলমানসহ সব ধর্মের মানুষ মিলে মিলে বাস করতে চাই,,,,,,,,

    ১০. সকলের জন্য শুভকামনা,,,,,,,,,,,তোমার জন্য এক ফালি শীতের ভোরের রোদ আর এক গুচ্ছ শুভেচ্ছা,,,,,,,,,

  • স্বপ্ন নীলা

    ৥ মোঃ মজিবর রহমান বলেছেনঃ আজ সুশিল সমাজ দালাল, ইসলামের নাম ভাংগিয়ে এরা চলে এখানে ধর্মের দোষ নেই ধর্ম ব্যাবহারকারির দোষ। এদের কি বলে যে ধিক্কার দিব তা জানা নাই ভাই,,,,,,,,,,,,,সহমত

  • মা মাটি দেশ

    ভাইয়া খুব ভাল একটা যুক্তিযুক্ত পোষ্ট করেছেন….আসলে আমার কাছে ধর্ম একটা সামাজিক বন্ধন মাত্র মনে হয় এখানে পরিবেশ নষ্ট হবে ভেবে মানুষ মৃত্যুর পর কেউ কবর দেয় কেউবা শষানে পুড়ায় সত্য হল আমরা মানুষ।আর ধর্মের মধ্যে সব ধর্মেই শান্তি এবং খুন করা পাপ লিখা আছে কোন ধর্মেই বলে নাই ধর্ম প্রচারে মানুষ খুন করতে হবে অনিষ্ট করতে হবে সমপদের।আমাদের ধর্মান্ধদের জিহাদ আর হযরত মুঃ সঃ জিহাদে অনেক পার্থক্য সেখানে কর্মীদের রাতের অন্ধকারে ছোট ছোট ছাত্রদের মৃত্যুর মুখে রেখে হেফাজতের মত পালিয়ে যায়নি। (y)

  • অনুশঙ্কর গঙ্গোম্যাক্সিম

    খুবই ন্যাক্কারজনক ঘটনা, হিন্দু মুসলিম না হয় বাদই দিলাম। একজন মানুষ হয়ে কিভাবে আরেক মানুষকে জীবন্ত আগুনে পুড়ে মারে। আমরা কি প্রস্তরযুগে আছি। বাংলাদেশের প্রতি মোড়ে মোড়ে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গুলো কি আমাদের এই শিক্ষা দেয় ?সত্য বলার সৎ সাহসের জন্য আপনাকে বিনম্র শ্রদ্ধা প্রিন্স মাহমুদ ভাই।

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য