আজ আমি বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে,,,,

কাঠগড়ার সামনে বসে থাকা সবার চোখে একই প্রশ্ন এতো উচ্ছ্বাসী,সদা হাস্যোজ্বল মেয়েটির নামে কিসের মামলা?

আদালতে ছি! ছি! এর ছড়াছড়ি,,,,

যাহা বলিবো সত্য বলিবো, সত্য বৈ মিথ্যা বলিবো না।

বিচারকার্য শুরু,,,,

অপর পক্ষের উকিলের বয়ান,,,,

আমার অপরাধ কাউকে ভালো লাগা,

আমার অপরাধ ভালোলাগার মানুষটাকে সারাজীবন আগলে রাখার চেষ্টা করা,

আমার অপরাধ, ভালোলাগার মানুষটার সাথে উইপোকার মত লেগে থাকতে চাওয়া,

আমার অপরাধ এলোমেলো,অগোছালো কাউকে গুছিয়ে দেয়ার চেষ্টা।

আমার সবচেয়ে বড় অপরাধ মানুষকে ভালোবাসা,বিশ্বাস করা,সবার সাথে এক নিমিষেই মিশে যাওয়া,নিজের দূর্বলতা প্রকাশ করা, আরও কত হাবিজাবি অপরাধ!!!

উকিল সাহেবের হাতে এরকম আরও হাজারটা আমার অপরাধের ফর্দ।

জজ সাহেব আমার পক্ষের উকিলকে বলতে বললেন।

কিন্তু কোথায় আমার পক্ষের উকিল????

আমারতো কোন উকিলই নিয়োগ দেয়া হয় নি।

কথায় আছে কাউকে ভালোবাসলে তার বাড়ীর কুকুরকেও ভালো লাগে।

আমার ক্ষেত্রেও তাই, তার সব আপনজন ছিল আমার আপনজন।

আজ আমিইতো দোষী,সে সহ তার পক্ষের সাক্ষীরাই ছিল আমার আপনজন।

অগত্যা আমার কোন সাক্ষী খুঁজে পাওয়া গেল না।

জজ বেচারা হতাশ দৃষ্টিতে তাকিয়ে আমায় জিজ্ঞেস করল আমার অনুভূতি,,,

আমি🥰এখনো মুখে সেই পুরনো হাসি,,,

ভালোবাসিতো তাই বেহায়াপনা করি,,,,

আমার বলার কিছু নাই,

আমিতো কোন পীথাগোরাসের উপপাদ্য নই যে চিত্র দেখিয়ে আমাকে প্রমান করতে হবে?

আমি রবীঠাকুরের কাদম্বরী দেবী যে কিনা শতকিছু নিজের ভিতর পুষে রেখে  নিরবে নিভৃতে চলে গিয়েছে,

আমি নিউটনের কোন সূত্র নই যে আমার পরস্পর আর বিপরীত প্রতিক্রিয়া থাকবে!

আমিতো সুনীলের মস্ত বড় আকাশের ছাঁদে ভেসে যাওয়া মেঘের মত।

আমি বেগম রোকেয়ার মত এতো সাহসীও নই, যে সব অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে পারি?

আমি হুমায়ুন আহমেদের তিথির মত,নীল তোয়ালেটায় নিজের দুঃখ লুকাই।

আমি পাঠ্যবইয়ের পাঠিগনিতের মত জটিল অংক ও নই

যে,জেনে বুঝে  মাথায় ঢুকিয়ে নিতে হবে!

আমি গিরিনন্দিনী হৈমন্তীর মতো,সৌন্দর্য ও সংসারের ভাবগত দ্বন্দের উপর আশ্রিত ভোরের স্নিগ্ধ শিশির।

আমি সমরেশ মজুমদারের হৃদয় নিঃসৃত সৌন্দর্যবোধে সৃষ্ট একখানা শান্ত শ্রীর প্রতিক।

অবশেষে শুধু এইটুকু বলতে পারি,

আমি শৈলচূড়ার বরফের মত শুভ্র ও পবিত্র।

আজ আমার বিচারের রায় দেয়া হলো,,,

ভালোবাসার  অপরাধে আজীবন ভাষাহীন একাকী অন্ততকালের পথযাত্রার-দণ্ড।।।

তুমিইইই জিতলে।।।

অতঃপর আমি হেরে গিয়ে বেঁচে গেলাম

তবুও আমি এখনো খুঁজে বেড়াই তোমায়,

আমার ঘরের কোনের কল্পছায়ায়।

আমার স্বপ্ন বাসরে তোমার সীমানা ছুঁতে চাই।

তোমার জোঁছনামাখা শরীরের গন্ধ নিতে চাই আঁধারে দাঁড়িয়ে।

এখন আমি বাঁচি শুধু নক্ষত্রের রুপালী আলোর ফিকে হওয়ার আশায়।।।।

ছবিঃ নেট থেকে

২৪৪জন ৫৩জন
0 Shares

১৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ