আমি মানুষটা কেমন? জ্ঞানী নই, আবার খুব সিরিয়াস নই, খুব বেশী ইমোশনাল, নাহ তাও ঠিক নই। তবে অন্তত আঁতেল নই, নৈরাশ্যবাদী তো নই-ই। কেন এসব বলছি? এখন তো চিঠি নিয়ে কথা বলার কথা! প্রতিযোগিতায় অংশ নেবার জন্য প্রস্তুতি, যে করেই হোক প্রথম পুরষ্কারখানা চাই-ই চাই। আর আমি কিনা বিরক্তিকর টপিকস নিয়ে লিখছি? নাহ নীলা তুই গেছিস। কি করবো? বেশ কয়েকদিন থেকে রিক্সা খুঁজেই চলছি। কিন্তু কিছুতেই পাচ্ছিনা। এভাবে কি মাথা ঠিক থাকে?

যাক আজ অবশেষে রিক্সা খুঁজে পেলাম। আমার ছেলেটা রিক্সা খুঁজতে সাহায্য করেছে। কম করে হলেও পনেরো থেকে বিশবার রেকর্ড করেছি আর মুঁছেছি। কি করবো? আমি কি আর সেই নীলাঞ্জনা আছি যে কিনা যখন-তখন বুড়ো আর আনন্দ কবির বিশাল বড়ো বড়ো কবিতা না দেখে আবৃত্তি করতো? নাহ নেই!   ‘র জ্বালায় এই ঘাতুম-ঘুতুম কন্ঠকে (যে কিনা ভুত-পেত্নীদের রানী শাঁকচুন্নী হয়ে আছে বহুদিন থেকে) শোনাতেই হলো। আমার কি দোষ!

শুনুন গতমাসে সরস্বতী পূজো হলো। পনেরো দিন আগে হঠাৎ করে অনেক সিনিয়র এক দিদি ফোন দিয়ে বললো, “নীলাঞ্জনা তোমাকে এবারে গান গাইতেই হবে।” বললাম দিদি আমায় দিয়ে কিছুতেই হবেনা। হারমোনিয়ম বাজানোই ভুলে গেছি। তাছাড়া আমার কন্ঠ এখন আমার নিজেকেই শোনাইনা। কিন্তু যথেষ্ট সিনিয়র, এই প্রথম আমাকে অনুরোধ করলেন, গাইতে হলো। হারমোনিয়ম নেই, কি করি! ইউএসএতে আমার বোন বাণী থাকে। বললো, “নীলাদি তুই ট্র্যাকে কর।” বললাম আমি রিক্সার যাত্রী, ট্রাকে চড়তে পারবো না। বললো, “ফাজলেমি রাখ, ট্র্যাক ঠিক করে পাঠাচ্ছি।” জীবনে প্রতিযোগিতার জন্যও এমন প্র্যাক্টিস করিনি। ভালো কথা, গেলাম, যখন ডাকলো হাত-পা কাঁপছে ভয়ে। প্রথমেই মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে বললাম জীবনের প্রথম ট্রাকে চড়তে যাচ্ছি, ভুল হলে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। দেখুন হাত-পা সব কাঁপছে। সকলে বেশ মজা পেয়ে হাসলো। কাহিনী হলো যখন সঞ্চারীতে এলাম। মিউজিক একদিকে, আর আমার গান আরেকদিকে। কিভাবে যে দ্বিতীয় অন্তরা মিলিয়েছি সেটা আমি জানি। আর কিছু বলার নেই। কেন বললাম এই কথাগুলো জানেন? আমি রিক্সার যাত্রী, খুব প্রিয় যান আমার এটা।

আগামীকাল ১২ মার্চ বাপি-মামনির ৪৬তম বিয়েবার্ষিকী। সবাই ওঁদের জন্য প্রার্থনা করবেন, যেনো সুস্থ থাকে। ভালো থাকে। যেনো আমার কাছে খুব তাড়াতাড়ি নিয়ে আসতে পারি। মানুষ দুটোকে সবসময় অনুভব করি। ভাষা পাচ্ছিনা খুঁজে। ❣

আমার আত্মা...
আমার আত্মা…

“রিক্সা কোথায়!” এই লেখাটি যখন লিখি, ভাবিনি অনেকের এতো ভালো লাগবে। সকলের অনুরোধে বিশেষ করে প্রহেলিকার বারবার করা মন্তব্য আমাকে বাধ্য করলো লেখাটিকে কন্ঠের মাধ্যমে প্রকাশ করতে। একে আমি আবৃত্তি বলতে পারছি না। কারণ একমাত্র কবিতা-ই আবৃত্তি করা হয় যে! পটর পটর অনেক হলো। এবারে রিক্সা কিভাবে পাওয়া গেছে সেটার ভিডিও দেখুন।

রিক্সা কোথায়!

হ্যামিল্টন, কানাডা
১১ মার্চ, ২০১৭ ইং।

৬৫৫জন ৬৫৫জন
5 Shares

৫০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ