রাতের বেদুইন নিস্তব্ধতায় ভালোবাসে,
বাসন্তী ফুলের সমারোহে, আ—মৃত্যুর সোনালী প্রহর,
বিলাসী-মরণের নাগপাশে।

সে মরণ অবগাহন হোক না দৈনিক/মাসিক/ষাণ্মাসিক!
বছরান্তের, চাতক হৃদয়ের হাহাকার ভুলে
শুধুই ডুবে থাকা, ভিজে-জ্যোৎস্নার তীব্র দহনে;
মরণ সে তো তুহ মম!

নৈকট্যের তীব্র আলোকে আলোড়িত সে-এক স্বপ্ন-পুরি
মত্ত-জ্যোৎস্নার স্ফীত শিহরণে, ফাগুন হাওয়ার উজ্জ্বল নিঃশ্বাসে
সে-সব বিনিদ্র রাত্রি, থরো-কম্পনের সোনালী ডানা
মরণের বেশে রাতের প্রহেলিকায় ভাসে গভীরের নিভৃত-কুঞ্জে,
স্বর্গের অপ্সরার মতই নান্দনিক সাজশয্যায়
বুকে আগলে রাখে, আঁধার ভ্রুকুটির বিহ্বল-লাজ ফেলে;

হাঁ-করা বিদীর্ণ আকাশ-রাত তামাদি হবে আজ!
হৈমন্তিক নরোম ফুলেল লঘু-নিনাদে।

১৬৭জন ৪৫জন
12 Shares

২১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য