রাজার ভুঁড়ি

ফারজানা তৈয়ূব ২০ আগস্ট ২০২২, শনিবার, ০৯:০২:৫৬অপরাহ্ন কবিতা ৯ মন্তব্য

#সোনেলা_ম্যাগাজিন_২০২২
#রম্য_কবিতা

হোমড়া রাজা গোমড়া মুখে পিটপিটিয়ে চায়,
তাকে দেখে দুষ্ট ছেলের দল আড়ালে আবডালে বংশী বাজায়।
রাজার মেজাজ বড্ড খারাপ গেছে তার চুরি,
দুপুরবেলা ঘুমের ঘোরে স্বপ্নে দেখে উধাও তার ভুঁড়ি।
ভুঁড়িখানা তাঁর বড্ড প্রিয় ছিল,
ছোট্ট রাজকুমার তার ভুঁড়ি নিয়ে করতো খেলা
ফুঁ দিয়ে গুঁতো দিয়ে মজা করতো মেলা।
এখন কি হবে উপায়
কে নেবে তার দায়?

সৈন্য সামন্ত ডাকা হলো,
রাজ্যে ঢেঁড়া পিটালো।
যে ভুঁড়ি দেবে খুঁজে,
অর্ধেক রাজকন্যা আর রাজত্ব পাবে সে চোখ বুজে।
আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে রাজা করেন হায় হায়
এখন কি হবে উপায়,
কে নেবে তার দায়?

ভুঁড়ি গেছে হারিয়ে সাথে সুখ নিয়ে
এখন সৌন্দর্য দেখাবেন কি দিয়ে?
রাজা হলেন অভিজ্ঞতায় ভরা,
ভুঁড়িখানা তার আপন হাতে গড়া।
দুঃখে তাঁর প্রান যায় যায়
কে নেবে তার দায়?

হঠাৎ রাজা দেখেন রাজ্যে এলো অচেনা এক লোক,
নিয়ে ভুঁড়ির খোঁজ।
দিলেন রাজার গায়ে ঠেলা,
রেগেমেগে রাজা বললেন বেটাকে সবাই ধরে কেলা।
কত্ত বড়ো সাহস রাজার গায়ে দেয় হাত,
করবো কুপোকাত।
নেই কোনো আক্কেল
বেটা বেয়াক্কেল।

স্বপ্ন ভেঙে রাজা উঠলেন জেগে
বিছানার পাশে রানী দাঁড়িয়ে কটমটিয়ে চায়,আছেন ভীষণ রেগে।

বললেন,
দুপুরবেলা নাক ডেকে আর কত ঘুমাবে
বেড়ে যাবে ভুঁড়ি।
দেখতে লাগবে হোদল কুতকুত,
তাকাবে না আর কোনো ছুড়ি।

হায়,হায়,হায়
রাজার ফিরলো হুশ,নিজেরে শুধায়
স্বপ্ন ছিল বুঝি?
গেলো সবই টুঁটি
সামনে দাঁড়িয়ে আছে মন্ত্রী আর শান্ত্রী অকালকুষ্মাণ্ড দুটি।

১৬০জন ৮৭জন
0 Shares

৯টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ