যৌতুক কাব্য

মোকসেদুল ইসলাম ২৪ নভেম্বর ২০১৩, রবিবার, ১১:৪৪:৩৫পূর্বাহ্ন কবিতা ১৫ মন্তব্য

এই যে ভাই, শুনলাম আজকে নাকি আপনার বিয়ে?
টাকা-পয়সা কি নিচ্ছেন কিছু হবু শ্বশুড়কে ফাঁদে ফেলে?
না, না ভাই, কি যে বলেন শিক্ষিত মানুষ আমি
যৌতুকের ধারে কাছেও যে নাই
যৌতুক নিলে মান যাবে যে তখনি।
তাই নাকি! ভালোই বলেছেন, এমন মানুষ কজনেই বা আছে
কনের একখান কপাল বটে আপনার মতো বর পাচ্ছে।
তা বটে, বলেছেন ঠিক বুদ্ধিমানের মতন কথা।
আসলেই ভাই নিচ্ছেন না কিছুই? বিশ্বাস হচ্ছে না কোন মতে
শ্বশুড়ের হাতে দাবী-দাওয়ার ফর্দী দেননি তুলে?
না, না ভাই ও সব লাগে না এ যুগে
শ্বশুড় আমার দিল দরিয়ার মানুষ
কথার আগেই কথা যান যে বুঝে।
শুধু মেয়ের সুখের জন্য তিনি লাখ পাঁচেক টাকা দিচ্ছেন
গা ভরে গয়না দিচ্ছেন, খাট-পালঙ্ক সবই দিচ্ছেন
মেয়ে সকাল-বিকাল হাওয়া খাবে বলে একটা পাজেরো জীপও দিচ্ছেন,
বিশ্বাস করেন আমি নিচ্ছি না কিছুই শুধু
মেয়ের সুখের জন্য শ্বশুড় মশাই দিচ্ছেন সব কিছুই।
কি হল ভাই এসব শুনে মুখখানি কেন বাঁকাচ্ছেন?
মুখ তো বাঁকাই না ভাই ঘৃনায় নিচ্ছি সরিয়ে
আপনার মতো শিক্ষিত জন এ ধরায় যেন না আসে।

২২০জন ২২০জন
0 Shares

১৫টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য