এক রঙ্গা এক ঘুড়ি – একটি মানবিক, স্বেচ্ছাসেবী এবং সামাজিক সংগঠন। যারা দেশের ছিন্নমূল পথ-শিশু সহ অসহায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পাশাপাশি নানা দুর্যোগে দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াবার চেষ্টা করে। এক রঙ্গা এক ঘুড়ির নিজস্ব কোন তহবিল না থাকায় এই সকল কার্যক্রম আমরা আমাদের সঞ্চিত নিজস্ব তহবিল থেকে করার জন্য চেষ্টা করি। পাশাপাশি ভার্চুয়াল মাধ্যমে বন্ধু শুভাকাঙ্ক্ষীদের আসন্ন কার্যক্রম সম্পর্কে জানাই। আনন্দের কথা তাদের সহায়তা অংশগ্রহণ থাকে প্রতিটি কার্যক্রমে। এভাবেই আমরা গত ৭ বছর বেশ কিছু কার্যক্রমে সফল হয়েছি। হাসি ফোটাতে পেরেছি কিছু শিশু সহ অসহায় দুস্থ মানুষের মুখে।

ঈদের পূর্ব রাতে আমরা ছিন্নুমুল শিশুদের হাতে তুলে দেই নতুন কাপড়। শীতের সময় প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে পৌঁছে দেই উষ্ণ শীতপোষাক। নীমতলির অগ্নিকান্ডের মতন বা সাভারের রানা প্লাজার মতন দুর্ঘটনায় আমরা চেষ্টা করি তাদের পাশে থাকার। এভাবেই হাটি হাটি পা করে আমরা সকলের সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করছি।

আমরা পরিকল্পনা করেছি আগামী ডিসেম্বরের ১২ তারিখে বরিশালের একটি  দুর্গম চরে শীতার্তদের সহায়তা প্রদান করবো। এই সংক্রান্ত যাবতীয় প্রস্তুতি চলছে। আপনারা আরা এমন মানবিক সামাজিক এবং স্বেচ্ছাসেবী কাজে যোগ দিতে চান তারা চাইলে আমাদের মহতী এই কার্যক্রমে যুক্ত হতে পারেন।

  • আপনি প্রদান করতে পারেন আপনার বাসার পুরনো কাপড়।
  • আপনি অংশগ্রহণ করতে পারেন আমাদের ক্যাম্পেইনে। ডিসে ২ রবং ৩ তারিখ যা অনুষ্ঠিত হবে ধানমন্ডি ২৭ নম্বর সড়কে সিগনালে। রাপা প্লাজার সামনে। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলবে এই ক্যাম্পেইন।
  • আপনি প্রবাসী হলে আমাদের ব্যাংক একাউন্টে টাকা পাঠিয়ে যুক্ত হতে পারেন।
  • আপনি দেশে থাকলে এবং শারীরিকভাবে ক্যাম্পেইনে যোগ না দিতে পারলে বিকাশ নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে যুক্ত হতে পারেন।
  • সর্বশেষ হচ্ছে আমরা যেদিন শীতবস্র বিতরণ করব সেদিন ইচ্ছে করলে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে যুক্ত হতে পারেন।

কার্যক্রমে সহায়তা জমা দেবার শেষ তারিখ: ডিসেম্বর ১০, ২০১৪
বিতরণ: ডিসেম্বর ১২, ২০১৪

বিকাশ একাউন্ট নাম্বার: 01711310476 (এই নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে বার্তা বা SMS করে আমাদের জানাতে হবে)

ব্যাংক একাউন্ট:
SM Masudul Islam
150 620 188 980 0001
Brac Bank
Asad Gate Branch
Dhaka, Bangladesh

যে কোন প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন: ০১৯৮১২৩৬৯৮৯, ০১৯৬০৭০৯১০৬, ০১৭১১৯৭৮৫৬৯, ০১৯১৪৮৭৪৭০১

উদ্যোগ:
এক রঙ্গা এক ঘুড়ি (http://ekrongaekghuri.com/)
ঘুড়ি ব্লগ (http://ghuriblog.com/)

শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সু সম্পন্ন করার লক্ষ্যে এলাকা ভিত্তিক ঘুড়ি টিমের সদস্যদের তালিকা।
নিম্নে তাদের নাম এবং ফোন নাম্বার এবং তাদের নির্দিষ্ট এলাকার নাম দেয়া হল।
শীতবস্ত্র সংক্রান্ত সহায়তার জন্য ফোন করতে পারেন আমাদের।

০১৬৭৪৮৮৮৮৯৮ – শামিম রহমান আবির – মহাখালী, গুলশান এলাকা।
০১৭১৩২২৯৬৫৮ – স্বপ্নের ফেরিওয়ালা – মিরপুর, পল্লবী এলাকা।
০১৭১১৯৭৮৫৬৯ – চর্যাপদ – মুগদা, খিলগাঁও এলাকা।
০১৭১৪৭৮৫৯৮৭ – অয়ন আব্দুল্লাহ – ডেমরা, যাত্রাবড়ী, শনির আখড়া এলাকা।
০১১৯১০৯০৫১৫ – ফাহিম হাসনাত – উত্তরা, দক্ষিন খান এলাকা।
০১৯৭২২৬৯০৮৫ – রব্বানী চৌধুরী – গ্রীন রোড, হাতিরপুল, সাইন্স ল্যাব এলাকা।
০১৭১৭১৩৬৭৬৭ – তাহমিদুর রহমান – মোহাম্মদপুর, শ্যামলী এলাকা।
০১৯৬০৭০৯১০৬ – সৈয়দ মাজারুল ইসলাম রুবেল – শ্যামলী, কল্যাণপুর এলাকা।
০১৭২০৫৭৮৯৬৪ – দীপু – টিকাটুলি, মতিঝিল এলাকা।
০১৬৭০৬৭৫৫৫৪ – বাপ্পী আহমেদ – টঙ্গী গাজীপুর এলাকা।
০১৯৮১২৩৬৯৮৯ – ইকবাল মাহমুদ ইকু – ফার্মগেট, নাখালপাড়া, তেজগাও এলাকা।
০১৯১৪৮৭৪৭০১, ০১৯৫৫০৮৩৬৩৪ – নীলসাধু, আখতারুজ্জামান তুষার – কলাবাগান, শুক্রাবাদ, ধানমন্ডি এলাকা।

এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে সহায়তা/কাপড় পৌছে দিয়েছেন যারা তারা হলেনঃ

০১. তমা এবং সাজ্জাদ দম্পতি।
০২. ইলোরা শারমিন রাজ্জাক।
০৩. হামিদ আহসান ভাই।
০৪. নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন।
০৫. আফরিন ফারজানা।
০৬. সুমাইয়া মিজান রাত্রি।
০৭. নীলসাধু।
০৮. শামিম রহমান আবির।
০৯. নীল আকাশের কাক।
১০. চর্যাপদ।
১১. আখতারুজ্জামান তুষার।
১২. তাহমিদুর রহমান।
১৩. শিমুল।
১৪. কামরুল ভাই এবং সিমোন আপা দম্পতি।
১৫. ইকবাল মাহমুদ ইকু।
১৬. রব্বানী চৌধুরী।
১৭. ফাহিম হাসনাত।
১৮. স্বপ্নের ফেরিওয়ালা।
১৯. সৈয়দ মাজারুল ইসলাম রুবেল।
২০. নারগিস নীলিমা।
২১. অনিক শাহরিয়ার।
২২. আমির আসহাব।
২৩. সাজিয়া আফরিন।
২৪. গোলাম মোস্তফা সংগ্রাম।
২৫. শামিমা আকতার।
২৬. এই মেঘ এই রোদ্দুর।

ভুলক্রমে কারো নাম বাদ পড়লে প্লীজ মন্তব্যের ঘরে জানান। আমরা তালিকা আপডেট করে নেবো।

উল্লেখ্য ২০০৭ সনে এক রঙ্গা এক ঘুড়ি’র যাত্রা শুরুর পর থেকে বাংলাদেশের দরিদ্র মানুষ তথা আর্ত মানবতার কাজে নিজেদের নিয়োজিত করে। তারই ধারাবাহিকতায় ঘূর্ণিঝড় আইলার আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় এক রঙ্গা এক ঘুড়ি ত্রাণ সরবরাহ করে, সেখানে শীতের সময়টায় অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ায় ঘুড়ি। সেই ছিল শুরু! তারপর নিয়মিতভাবে শীতার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে এক রঙ্গা এক ঘুড়ি। পরবর্তীতে রংপুর, মানিকগঞ্জ, ঢাকা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সহ দেশের বেশ কিছু জেলায় অসহায় শীতার্ত মানুষের পাশে ছিলাম আমরা বিগত বছরগুলোতে। এ ছাড়াও রানা প্লাজা দুর্ঘটনা সহ জাতীয় দুর্যোগেও বেশ কিছু কার্যক্রম নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে এক রঙ্গা এক ঘুড়ি।

0 Shares

৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ