মোটিভেশন ওয়ান

মাছুম হাবিবী ২৯ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ০৪:২২:১১অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৮ মন্তব্য

কাউকে মোটিভেশন দেয়ার মত যোগ্যতা এখনো তৈরী হয়নি। তবু ক্ষুদ্র জ্ঞানে মাঝে মধ্যে ছোট ছোট বিষয় নিয়ে মোটিভেট করি। লাইফে কষ্ট থাকবেই, life is very hard আপনি আজ কষ্টের বিশাল একখণ্ড পাথর নিয়ে জীবন্ত বেঁচে আছেন। এই বেঁচে থাকার নামই জীবন। আর বুকে পাথর নিয়ে বেঁচে থাকাটা হল ধৈর্য্য! ধৈর্য্যহীন মানুষ কখনো সফল হতে পারে নাহ। কথায় আছে যার ধৈর্য্য বেশি তার শক্তি বেশি। কষ্টগুলো তিন ভাগ করুন, তারপর এক এক করে গিলে ফেলুন। ভুলে যাবেন নাহ কষ্ট মানুষকে পরিবর্তন করে। ভুলে যাবেন না কষ্ট মানুষকে জিরো থেকে হিরো বানিয়ে দেয়। কষ্টে থাকা মানুষগুলো সেরা এবং শ্রেষ্ঠ! আমাদের মাঝে মধ্যেই খুব মন খারাপ হয়। কোনো কারণ ছাড়াই হঠাৎ একরাশ মন খারাপ নিয়ে বসে থাকি। অথচ, এই মন খারাপ আমাদের অনেকটা অতীতের দিকে পিছিয়ে নেয়। মন খারাপ করলে চলবে নাহ। নিজেকে ভালো রাখতে হবে। নিজেকে ভালো রাখার চেষ্টা করতে হবে। নিজেকে ভালো রাখার শ্রেষ্ঠ উপায় ব্যস্ততা! আপনি যত ব্যস্ত থাকবেন ততো ভালো থাকবেন। নিজেকে সব সময় ব্যস্ত রাখুন। সব সময় চেষ্টা করুন ভালো কাজ করার। একটি ভালো কাজ যোগ হয়ে দুটি ভালো কাজ হয়, তারপর তিনটি, এভাবে একাধিক। আপনি প্রতিদিন একটি ভালো কাজ করলে এক সপ্তাহ ৭টি ভালো কাজ হবে এবং এক মাসে ৩০টি। এভাবে প্রতিদিন একটি করে ভালো কাজ করলে আপনি হয়ে উঠবেন একজন ভালো মানুষ। আর এই ভালো কাজগুলোই একদিন আপনাকে কঠিন বিপদ থেকে রক্ষা করবে। একটা কথা মনে রাখবেন, life is one ‘জিন্দিগি না মিলেগা দুবারা। যা করার এখনই করতে হবে, যা ভাবার এখনই ভাবতে হবে। নিজের কাজ নিজে করুন। নিজের আত্মবিশ্বাসকে আরো শক্তিশালি এবং মজবুত করুন। আপনি যতটা আত্মবিশ্বাসী হবেন ততো শক্তিশালী হবেন। কাল কি হয়েছে তা নিয়ে মন খারাপ না করে আগামীকাল কি হবে তাই ভাবুন। আমরা জীবনটাকে যতটা ছোট মনে করি জীবন ততোটাই ছোট নয়। আপনাকে দৌঁড়াতে হবে ক্যারিয়ার আর স্বপ্নের পিছনে। কোনো মেয়ের পিছনে নয়। আগে ক্যারিয়ার, তারপর ফ্যামিলি, তারপর প্রেম, ভালোবাসা, বন্ধুত্ব। নিজেকে যোগ্য করে তুলুন একদিন যোগ্যতার প্রমাণ পাবেন ইনশাআল্লাহ্। নিজেকে কখনো ছোট মনে করবেন নাহ। কারণ ছোট থেকেই বড় কিছুর সৃষ্টি। জীবনে সবকিছুর প্রয়োজন আছে। প্রেম, ভালোবাসা, বন্ধুবান্ধব, ফান, মাস্তি ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তুু আগে যোগ্যতা তারপর বাকী সব। আপনার ক্যারিয়ার স্ট্রং হলে সবাই,বাহ বাহ দিবে। আর আপনি যদি অবহেলা আর অহীনা নিয়ে নিজের ক্যারিয়ার আর স্বপ্নকে ধ্বংস করে দেন। তাহলে আপনার বেঁচে থাকাটাই কঠিন হয়ে যাবে। আপনি ধ্বংস হয়ে যাবেন। work start not late but work start smartly যত ক্লান্ত হবেন ততো কাজের গতি বাড়বে। জীবনে কষ্ট থাকবেই। জীবনে কাঁন্না থাকবেই তবু এগিয়ে যেতে হবে late jod not enjoy than smartly job very very enjoyed জীবন একটাই, তাই জীবনটাকে উপভোগ করুন। ভালোবাসুন নিজের জীবন এবং নিজেকে। একটা কথা মনে রাখবেন যে নিজেকে ভালোবাসতে জানে সে জগতের সবকিছুর যোগ্য।

১৮৪জন ৭৫জন
8 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য