মৃত্যু

পপি তালুকদার ১৪ মার্চ ২০২১, রবিবার, ১২:১৪:২১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৪ মন্তব্য

জীবনের একটা চরম বাস্তব সত্যের নাম  হলো “মৃত্যু”। যেকোনো প্রাণীর জন্ম গ্রহন করলে তার মৃত্যুর স্বাদ গ্রহন করতে হবে। জন্ম গ্রহনের নির্ধারিত সময় থাকলেও মৃত্যুর কোনো নির্ধারিত সময় নেই ।

 

কি এই মৃত্যু? মৃত্যু মানে পার্থিব জীবনের সমাপ্তি।মৃত্যু মানে দেহ হতে আত্মর পৃথক।মৃত্যু মানে পরকালের কিংবা অনন্তকালের জীবনের সূচনা।মৃত্যু মানে ইহকালের জীবনের সকল কাজের হিসাব – নিকাশ নিয়ে মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট দাঁড়ানো।মৃত্যু মানে দুনিয়ায় মায়া ত্যাগ।

 

মৃত্যু কথা ভাবলে পার্থিব ভোগ বিলাসিতা কিংবা উপরে উঠার আক্ষেপ আকাঙ্খা  কিছুই কাজ করেনা। থাকেনা স্বপ্ন পূরনের বিলাসিতা।

যাই হোক,খুব ছোট বেলায় মৃত্যু শব্দটির সাথে পরিচিত হলেও এই শব্দের ব্যাপকতা বা তাৎপর্য বুঝেছি অনেক পরে।

প্রিয় বাবা কে যখন হারিয়েছে তখন আমি নিতান্ত একজন শিশু। মৃত্যুর ব্যাপক অর্থ বোঝা আমার জন্য মুশকিল ছিল।

আমি ভাবতাম হয়তো বাবা কিছু দিন পরে আবার চলে আসবে।এ চলে যাওয়া যে একেবারে চলে যাওয়া তাতে ধীরে ধীরে বুঝেছি, অনুভব করেছি এ-র গভীরত্ব।

 

এরপর অনেক আত্নীয় – স্বজন, প্রতিবেশির মৃত্যু দেখেছি।

মনে তখন বিষন্ন কষ্ট পেতাম।  ভাবতাম কেন এই মৃত্যু? একা নির্জনে কাঁদতাম বাবার জন্য।এখনোও বাবার মৃত্যু আমাকে কাঁদায় কষ্ট দেয়।বাবার শূন্যতা জীবন কে অর্থহীন করে তুলে।কিন্তু নিয়তির নির্মম পরিহাসে এই চরম সত্যকে মেনে নিতে হয়।মেনে নিতে হয় জীবনের কঠিন বাস্তবতা।

 

সৃষ্টিকর্তা কেন এত নিষ্ঠুর?  এই প্রশ্ন আমাকে ভাবিছে অনেক! বুঝতে পারিনা  এর রহস্য!

সুবিশাল রাতের আকাশের তারার মাঝে প্রিয় বাবাকে খুঁজি প্রতিনিয়ত! যে চলে যায় সে হয়তো জানেনা কি বিশাল শূণ্যতা আর মানসিক যন্ত্রণার মধ্যে বেঁচে থাকে তার প্রিয় মানুষগুলো।হাজার হাজার সুখের সময়ও প্রিয় বাবাকে স্মরন করি।স্মরন করি শৈশবের সেসকল প্রিয় মুহূর্তগুলো যখন বাবা কে বিষন্ন দরকার ছিল।বাবার ভালোবাসা হীন জীবন অনেক অনেক কষ্টের!  যে শূন্যতা এখনো হয়তো আজীবন কষ্ট দিবে তবুও ভালো থাকো প্রিয় বাবা…………………………

৩৫৭জন ১১০জন
21 Shares

২৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য