মি টু মুভমেন্ট, যৌন নিগ্রহ ও কিছু উপলব্ধি!!!

শিপু ভাই ১৪ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ০৮:৩০:০৫অপরাহ্ন সমসাময়িক ১০ মন্তব্য

মি টু তথা যৌন নিগ্রহের অনেকগুলো কেস পড়লাম। অবাক হইনি। কমন কেস। অহরহ ঘটছে এগুলো।
ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি দুজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ পারস্পরিক সম্মতিতে যা খুশি করতে পারে তাতে আমার কিছু বলার অধিকার নাই। তাদের পাপ হলে তাদেরই হবে, প্রচলিত আইনে এটা অপরাধ হলে তারা সাজা পাবে। বাট আমি কিছু বলার রাইট রাখি না। কিন্তু যদি অসম্মতিতে (৯৯.৯% ক্ষেত্রে মেয়েদের) এমন কিছু ঘটে তবে কেবল আমি না প্রতিটা “মানুষেরই” কথা বলার রাইট আছে। বিকজ এটা অন্যায়/জুলুম/অপরাধ/নির্যাতন!!! যারা এটা করে তাদের শুধু রাস্ট্রিয় আইনেই না সামাজিক ভাবেও প্রতিহত করতে হবে।
কেস হিস্ট্রিগুলো পড়ে আমার যেসব উপলব্ধি হল-
১) নিপিড়করা তাদের অবস্থানকে/ইমেজকে ব্যবহার করে নারীদের প্রলুব্ধ করে। বড় ব্যবসায়ী, তারকা, ক্ষমতাধর ব্যক্তি ইত্যাদি।
২) অপরিচিত বা সল্প পরিচিত কারো সাথে নিরিবিলি কোথাও বা কোন কক্ষে যাওয়া উচিৎ না।
৩) মেয়ে শিশুদের শৈশব থেকেই আগলে রাখতে হবে।
৪) কোন পুরুষকেই বিশ্বাস করা যাবে না।
৫) দেশের আইন শৃংখলা সিস্টেম আরো ডেভেলপ না হওয়া পর্যন্ত নারীদের বাইরে একা না থাকাই উত্তম।
৬) রাত ১২ টার পর অচেনা ফেসবুক ফ্রেন্ডের সাথে চ্যাটিং না করা উত্তম।
৭) চাকরির ইন্টারভ্যু বা প্রথমদিন সাথে অভিভাবক কাউকে সাথে নিলে ভাল।
৮) সন্ধ্যার পর নতুন পরিচিত কোন পুরুষের সাথে মিট না করা উত্তম।
৯) বিবাহিত পুরুষদের মুখে নিজের প্রশংসা শুনলেই সতর্ক হতে হবে।
১০) আগ বাড়িয়ে উপকারী বান্ধব হতে চাইলে সতর্ক হতে হবে।
১১) রাতে মানুষের মুড ভিন্ন থাকে। রাত বড় ভয়ংকর এদেশে (অন্য দেশেও)। রাত এড়িয়ে চলুন।
১২) ছেলে বন্ধুদের সাথে ডার্টি জোক্স এভয়েড করুন। সেক্সুয়াল গল্প শুরু করলেই থামিয়ে দিন এবং আস্তে আস্তে তার বলয় থেকে কেটে পড়ুন।
১৩) কাজিনদের থেকে সতর্ক থাকুন।
১৪) হ্যাং আউটে গেলে সাথে কারা কারা যাচ্ছে নিশ্চিত হয়ে নিন। পরিবারকে বিস্তারিত জানিয়ে এবং সবার ফোন নাম্বার দিয়ে যান।
১৫) ওভার নাইট বা লেট নাইট পার্টি পরিহার করুন।
১৬)কিছু ঘটতে নিলে জায়গায় দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করুন, প্রতিহত করুন। নিজের শারিরিক শক্তি আর মাথা ব্যবহার করুন। পালটা আঘাত করুন।
১৭) আপনার পোশাক, আচরণ, কথাবার্তায় শালিনতা রাখুন। ব্যক্তিস্বাধীনতার কথা বলে যাচ্ছেতাই করলে আপনার সাথেও যাচ্ছেতাই ঘটার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে। বিড়ালকে বিশ্বাস করে দুধের হাড়ি উদাম রাখবেন না। বিড়াল নীতিকথা শোনে না।

২৩২জন ২জন
66 Shares

১০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য