মিলন-যুদ্ধের পুষ্প বিলাস

ছাইরাছ হেলাল ১৬ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, ১০:১১:৫১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২০ মন্তব্য

 

নির্ঘুমের প্রত্যাশায় জেগে আছি আজ-ও,
বলেছিলে আসবে, এই হেমন্তে;
শতবর্ষের ক্লান্তি নবায়ন করে করে
প্রত্যাশার তাঁত বুনে বুনে
অদৃষ্টের নিকুচি করে, জয়-পরাজয়ের বনেদি হিসাব
পাশে ফেলে, নকশা-তোলা হাতের তালুতে
ভাঁজ খোলা কবিতা-স্পর্শ-পল্লব দেখব বলে;

নিঃশব্দে মিলিয়ে যাবে একাকীর একাকীত্ব
কবিতার নিগূঢ়-নিয়ম নিঃশ্বাসে, স্পর্শ কাতর
মধুচন্দ্রিমার-মৌমাছি-গুঞ্জনে, বিষাক্ত হুলের
আলোর ঝলকানিতে, ভয়-শূন্যের ব-দ্বীপে;

যোজন যোজন দূর থেকেও দেখতে পাচ্ছি
হাসির আলোয় বিদ্যুতের খুনসুটি,
ম্যাজিশিয়ান নও তা ও জানি!
আকাশে রুমাল উড়িয়ে কী সংকেত দাও!
আকাশ-বাঁশি বাজিয়ে-ও!

সংহার-মন্ত্র জানি, তা-ও তো জানো!
পাখিদের ডাক শুনি আজ-ও, বুঝি সে ডাকের ভাষা,
অজগর-নদী নাভির জ্বল-জ্বলে তিল চিহ্নটি দেখাচ্ছে,
সোনাদ্বীপের ফসল আজ সোনালী আভায় চোখ ফেলে চেয়ে আছে,
মিলযুদ্ধের পুষ্প বিলাসের তড়পানো সময় যে বয়ে যাচ্ছে!

অস্তাচলের লাল আভায় কবিতা নিয়ে-ই এসো।
এই উৎসুক কিচির মিচির হেমন্তের কবিতা-উৎসবে,
যেমন কথা দিয়েছিলে, শূন্য শব্দের শেষ তিথিতে;
নোলকে লিখেছি কবিতা, শুধু-ই তোমাকে দেব বলে।

১৫৩জন ১৯জন
11 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য