এপিঠ-

আজ সারাদিন আম্মার সাথে থেকে কাজে হাত বাটিয়েছি। তাঁর কত পরিকল্পনা, কত স্বপ্ন! যখন তিনি কিছু বলেন আমি চুপচাপ শুনি। কিছু বলতে গিয়েও মাঝেমধ্যে যখন থেমে যান তার মুখের দিকে তাকিয়ে থাকি।

আমি তার আবেগ বুঝতে পারি। না বলা কথাটি হয়তো মনের কোন গোপন প্রার্থণা! যদি পূরণ না হয়, সে শঙ্কা থেকে সন্তানের জন্য স্রষ্টার কাছে চাওয়া গোপন কথাগুলি মায়েরা কাউকেই বলেননা। এমনকি সন্তানদেরকেও না।

প্রার্থণা করি যেন আম্মার সকল স্বপ্ন পূরণ হয়। আজ ফেসবুকে না এলে ভুলেই যেতাম আজ মা দিবস। আম্মার সাথে কাটানো প্রতিটিক্ষণ আমার কাছে বেহেশতী সময়তুল্য, মা দিবসের অনুভূতিতে সদা জাগ্রত।

ওপিঠ-

মা দিবসে সন্তান আবেগাপ্লুত হয়ে কম্পিউটারের সামনে বসে ফেসবুক ওপেন করেছে। একটা হৃদয়ছোঁয়া স্ট্যাটাস দিতেই হবে। অন্যদের স্ট্যাটাস পড়ে তার চোখ ভিজে উঠেছে। কত সুন্দর সুন্দর কথা, ছবি শেয়ার করেছে সবাই! সে কিছুই করেনি।

মায়ের জন্যে কিছু একটা করে ঋণ কিছুটা শোধ করতেই হবে। আর কিছু না পারুক, একটা স্ট্যাটাসতো দিতেই পারে সে। তাতে প্রাপ্ত লাইক এবং কমেন্টগুলো মায়ের প্রতি শ্রদ্ধার স্মারক হয়ে থাকবে।

লেখা শুরু করল সন্তান। প্রায় শেষ হয়ে এসেছে ,এমন সময় মায়ের ডাক এলো। “ভাত খাবি না? সকালে তো কিছুই খাস নাই!”

বিরক্তিতে কুঁচকে এলো সন্তানের চোখ-মুখ। “যাও তো, জ্বালিওনা এখন। একটা গুরুত্বপূর্ণ কাজ করছি”- ঝাঁঝাল গলায় বললো সে। স্ট্যাটাস দেয়ার পর অবশ্য তার কুঁচকানো, বিরক্তি ভরা চোখ-মুখ স্বাভাবিক হয়ে এল। প্রচুর লাইক পড়ছে যে!

মনে রাখবেন- অনেকের চোখে আমরা বোকা হতে পারি, অনেক খারাপ ছাত্র হতে পারি, দেখতে অনেক কালো হতে পারি। কিন্তু আমাদের মায়ের কাছে আমরাই তাঁর শ্রেষ্ঠ সন্তান। এই বিশ্বাস নিয়েই আমৃত্যু বেঁচে থাকতে চাই।

“মা আমাদের সর্বদা এটা বোঝায় যে আমাদের জীবনের চরম কষ্টের মুহূর্তগুলো, একসময় হাসির কোনো গল্পে পরিণত হয়ে যাবে”- নোরা এফ্রন।

ভালো থাকুন আম্মা, ভালো থাকুক পৃথিবীর সকল মা। ❤❤

১৭৮জন ৩১জন
0 Shares

১৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য