মায়ায় মানবী

সৌবর্ণ বাঁধন ২৯ জুলাই ২০২১, বৃহস্পতিবার, ০৯:৪৯:৩৫অপরাহ্ন কবিতা ১১ মন্তব্য

শোন মেয়ে! স্মৃতি তো পুতুল খেলা,
কতো আজব চিড়িয়া এসে বসায় রঙ্গিন মেলা!
কেউ মাটিতে কঠোর! কেউ পাথরে কোমল!
কেউ ভাস্কর্যে গম্ভীর! কেউ প্লাস্টিকে ম্যানিকিন!
কেউই তো পারল না দিতে সুখের খবর,
জনমে যময পেলে দুঃখ তার নাম,
কিভাবে ছাড়বে বলো সেই তীব্র ভার!
মাঝে মাঝে কাঁদ,
হুহু করে কাঁদ দুপুরের মতো রাতের গভীরে,
গালের মসৃণে নামে কি নিঃখুত টোল!
এতোটা দুঃখ কেন রেখেছ জমিয়ে,
ভেবে ভেবে শহুরে জ্যোৎস্নাও হয়েছে পাগল!

শোন মেয়ে প্রতিটি আকাশই চিতা,
প্রতিদিন নিয়ম মেনে সূর্য্য পুড়ায়!
জীবন মানেই ম্যাচের কাঠিতে আগুন,
হয়তো নিজেই পুড়ে অথবা পুড়ায়!
রূপালী হ্রদের জলে নেমে খেলাচ্ছলে,
হুটহাট ডুবে যায় হস্তীশাবক!
এভাবেই চলে যায় কতো প্রেম,
ডুবে যায় স্রেফ!
তুমি তো পুরাণের পাখি পুড়েছ অনেক,
তবুও এখনো দাঁড়িয়ে আকাশে,
তবুও এখনো অমর!
মানবীর দীর্ঘশ্বাসে জাগ্রত দেবী,
হাসে প্রতিরাতে! আহা, গালে পড়ে টোল!
হাসে স্থির সরোবরে আহত কমল!

তুমি নাকি স্থির সরোবর!
অলিন্দে জমিয়েছ দুঃখের পলল,
এখানে ভাসেনা কেউ,
এখানে ডোবেনা কেউ আর,
মাঝে মাঝে পা দুটো ভিজায় জোয়ার,
একটি বদ্বীপ দিচ্ছে উঁকি দরোজার ওপার!
এইতো সেদিন তুমি নিতান্ত মানবী ছিলে,
এখন অম্লান দেবী!
উঠোনে জ্বালানো আছে বিরহ প্রদীপ বাতি,
তবুও সবই কল্পনায় স্থির!
আহ্নিক গতি স্থির! সৌরমন্ডল স্থির!
আরো স্থির তোমার বেদনার মন্দির!

২১১জন ৪১জন
17 Shares

১১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য